টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

আমার দেখা মাওঃ হোসাইন আহমদ (রাঃ)

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১৭
  • ৮৬৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ইয়াহিয়া কলিম:: আজ হারিয়েছি আমরা এমন এক ব্যাক্তিকে যার শুন্যতা আমাদের যুগ যুগ ধরে অনুভব হবে। যার অবিজ্ঞতা ও মেধার প্রখরতা অতুলনীয়। তিনি শুধু একটি প্রতিষ্ঠানের পরিচালকই ছিলেন না, বরং পুরো দ্বীপবাসীর একজন আধ্যাত্মিক রাহবার ও অভিভাবকও ছিলেন।
আমি হুজুরকে খুব কাছ থেকে দেখেছি, মাঝেমধ্যে বিভিন্ন বিষয়ে কথাও হয়েছে।
এক সপ্তাহ্ আগের ঘটনা, আমরা যখন গিয়েছি হুজুরের কাছে,
একটি প্রশ্নের জবাবে হুজুর বলতেছে, এমন একটা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করা সহজ ব্যাপার নয়,
হয়ত আল্লাহর বিষেশ রহমত আছে বিদায় শুভাগ্য হয়েছে।
যে কোন একটা কাজ করতে গেলে অনেকেই অনেক মন্তব্য করে থাকে, ঠিক আমার বেলায়ও এটা হয়েছে।
আমি সহ সবাইকে একদিন তো আল্লাহর কাছে যেতে হবে, তাই কে কি বলবে এটা না ভেবে আল্লাহ্ কি বলবে এটা যদি খেয়াল করি সব ঠিক হয়ে যাবে।
আরো বলেছিল, যতই ষড়যন্ত্র হোক না কেন, বাতিলের বিরুদ্ধে সবসময় সোচ্চার থাকব আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায় যতদিন হায়াতে বেচে থাকি।

এক কথায় বলতে গেলে, দক্ষিণ চট্রলার প্রাচীনতম ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষার প্রাণকেন্দ্র জামেয়া আহমদিয়া বাহরুল উলুম বড় মাদ্রাসা‘ এক সময়ের কেমন একটি প্রতিষ্ঠান? লেখা পাড়ায় ও সর্বদিক দিয়ে এতো উন্নতি সবই তার অবদান।

তিনি একজন আমাদের আমীরও ছিলেন।
অনেক সময় দেখেছি, কোন একটি সামাজিক বিষয় নিয়ে এলাকার একজন গুরুত্বপূর্ণ জনপ্রতিনিধি ও সরদার মাতব্বরদের কাছেও লোকের এতো ভিড় হয় না, যেমনি ভাবে হতো সর্বশ্রেণীর মানুষের ভিড় হুজুরের দফ্তরে।
কঠিন থেকে কঠিনতর যেকোনো বিষয় খুব সহজ ভাবে সমাধা দিওয়ার খুব একটা যোগ্যতা হুজুরের মধ্যে পেয়েছি।
সর্বোপরি জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে আমরা হরিয়েছি যুগের এক শ্রেষ্ট আলেমে দ্বীন ও রুহানি ডাক্তারকে।
যার শুন্যতা জাতি যুগ যুগ ধরে উপলদ্ধি করতে পারবে।

হুজুরের কৃতিত্বের কথা লিখতে গেলে নির্ঘুম রাত কাটবে
তবুও এতো কৃতিত্ব ও অবদানের কথা লিখা শেষ হবে না।
সর্বশেষ আশা রাখি, অনেকে অনেক কিছু করতে পারি, কিন্তু হুজুরের এতো কৃতিত্ব ও অবদানের কথা কখনো ভুলব না।
সবাইকে একদিন চলে যেতে হবে এই দুনিয়ার মায়া ত্যাগ করে পরকালে।

আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ জানাই,
আল্লাহ্! আপনার অধম বান্দার অনেক ভুল ভ্রান্তি থাকতে পারে,
জীবনের সব ভুল-ভ্রান্তি ক্ষমা করে দিয়ে আপনার পছন্দের স্থানে স্থান দিও।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT