টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
ফেসবুকের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের ১৫০ বিলিয়ন ডলারের মামলা ‘আল্লাহ ছাড় দেন, ছেড়ে দেন না’ স্বেচ্ছায় সেন্টমার্টিনদ্বীপে আটকা পর্যটকদের হোটেল ভাড়া অর্ধেক কমিয়ে মাইকিং টেকনাফে মুক্তির প্রকল্প অবহিতকরণ কর্মশালা টেকনাফে লবণ উৎপাদনের শুরুতেই বিপত্তি তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী দারুল মা’আরিফে সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ কোর্স চালু টেকনাফ পৌরসভা মেয়র ও ৪ কাউন্সিলর বিনা প্রতিদন্ধিতায় নির্বাচিত চকরিয়ায় র‍্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২জন নিহত : আটক-২, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে যা বললেন ওবায়দুল কাদের

আজ শুভ বিজয়া

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১২
  • ৭১৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে শুভ ও কল্যাণ আহ্বান এবং সকল সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে নিরন্তর শান্তি ও সম্প্রীতির আকাঙ্ক্ষা নিয়ে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে আজ বুধবার সমাপন ঘটবে হিন্দু সমপ্রদায়ের সবচে’ বড় উত্সব শারদীয় দুর্গা পূজা। আজ শুভ বিজয়া।

সনাতন বিশ্বাসে শনিবারের বোধনে অরুণ আলোর অঞ্জলি নিয়ে আনন্দময়ী মা উমাদেবীর আগমন ঘটে। টানা পাঁচদিন মৃন্ময়ীরূপে মণ্ডপ থেকে মণ্ডপে ঘুরে আজ ফিরে যাবেন কৈলাশে স্বামী শিবের সান্নিধ্যে। গজগামিনী দেবী ফিরে যাবেন নৌকায়। ফল-মড়ক। আজ সকাল থেকেই মণ্ডপে মণ্ডপে ভক্তদের ঢল। ঢাক আর শঙ্খধ্বনি। টানা মন্ত্র পাঠ। উলুধ্বনি আর অঞ্জলি। সঙ্গে ঢাকের বাদ্য, নাচ, সিঁদুর খেলা। ধান, দুর্বা, মিষ্টি আর আবির দিয়ে দেবীকে বিদায় জানাবে ভক্তরা। একদিকে বিদায়ের সুর। অন্যদিকে উত্সবের আমেজ। ঢাকেশ্বরী মন্দির,রামকৃষ্ণ মিশন, তাঁতী বাজার, শাঁখারী বাজার,স্বামীবাগসহ বিভিন্ন মণ্ডপে চলবে আবির উত্সব। সকালে দেয়া হবে দর্পণ ঘট বিসর্জন। রাজধানীতে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ এবং মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির যৌথ উদ্যোগে বিজয়া শোভাযাত্রা শেষে বুড়িগঙ্গা নদীতে প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হবে। বিজয়া দশমী উপলক্ষে আজ সরকারি ছুটি। বেতার ও টেলিভিশনে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করা হবে। সংবাদপত্রগুলো বিশেষ নিবন্ধ ও ক্রোড়পত্র প্রকাশ করেছে। বঙ্গভবনসহ গুরুত্বপূর্ণ ভবন আলোকসজ্জিত করা হয়েছে।

গতকাল নীলকণ্ঠ, নীল অপরাজিতা ফুল ও যজ্ঞের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয় নবমী বিহিত পূজা। নবমী পূজায় যজ্ঞের মাধ্যমে দেবী দুর্গার কাছে আহুতি দেয়া হয়। ১০৮টি বেলপাতা, আমকাঠ, ঘি দিয়ে এই যজ্ঞ করা হয়। সকালে নবমী বিহিত পূজার মধ্য দিয়ে দিনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। পূজা শেষে অঞ্জলি, প্রসাদ বিতরণ, সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয় ভোগ আরতি। সনাতন বিশ্বাসে-ধর্মের গ্লানি আর অধর্ম রোধ, সাধুদের রক্ষা, অসুর বধ আর ধর্ম প্রতিষ্ঠার জন্য প্রতি বছর দুগর্তিনাশিনী দেবী দুর্গা ভক্তদের মাঝে আবির্ভূত হন। শুভ বিজয়ার মাধ্যমে জাগতিক প্রাণীকে শোনান সাম্য ও ভ্রাতৃত্বের বাণী।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT