টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

আছে মাইকিংয়ে নেই কাজে

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৬
  • ২০৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ওমর ফারুক হিরু :::
কক্সবাজার পৌরসভার পক্ষ থেকে মাইকিং করে জানিয়ে দেয়া হয়েছে ‘১৮ বছরের নীচে কোন চালক টমটম চালাতে পারবেনা। এটি সম্পূর্ণ অবৈধ। কারন টমটমের বেশিরভাগ সড়ক দূর্ঘটনা ঘটে অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক চালকদের হাতে। এসব চালকেরা মানেনা ট্রাফিক আইন এবং ইচ্ছেমত ওভার টেকিংসহ নানা বিশৃংখলতা সৃষ্টি করে। ফলে ঘটছে দূর্ঘটনা। মাইকিংএ আরো বলা হয়, লাইসেন্স ছাড়া কোন টমটম রাস্তায় নামানো যাবেনা। পৌরসভার লাইসেন্স ছাড়া বহিরাগত (সদর উপজেলার) কোন টমটম শহরে প্রবেশ করতে পারবেনা। এই আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। আর জব্দ করে রাখা হবে বহিরাগত ও লাইসেন্সবিহীন টমটম।’ এই অপরাধের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সতর্কতা হিসেবে পৌরসভা একটি সময় নির্ধারণ করে দেয়। যা শেষ হয়েছে গত ১ সপ্তাহ আগে।
এদিকে পৌরসভার এই ভাল উদ্যোগে সন্তুষ্ট হয়েছিল শহরবাসী। তারা আশা করেছিল টমটমের কারনে সৃষ্ট সড়ক দূর্ঘটনা কমবে। আর অবৈধ ও বহিরাগত টমটম শহরে প্রবেশ করতে না পারলে যানজট কমবে। কিন্তু সতর্কতার ১ সপ্তাহ পার হয়ে গেলেও তেমন কোন কাজের কাজ হয়নি। বরাবরেই দেখা যায় অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক ছেলেরা বিশৃংখলতার মধ্যদিয়ে দ্রুত গতিতে টমটম চালাচ্ছে। ঘটছে দূর্ঘটনা। অবৈধ ও বহিরাগত টমটমে সৃষ্টি করছে যানজট।
প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, পৌরসভার লাইসেন্সধারী টমটম রয়েছে আড়াই হাজার। কিন্তু শহরে টমটম চলে ৮ হাজারেরও বেশি। আড়াই হাজারের বাহিরে এতগুলো টমটমের কারনে সৃষ্টি হচ্ছে যানজট আর ঘটছে দূর্ঘটনা। এছাড়া দেখা যায়, অবৈধ টমটম জব্দ করলেও জরিমানা করে ছেড়ে দেয়া হচ্ছে। আর পুনরায় টমটমগুলো রাস্তায় যানজট সৃষ্টি করছে।
অন্যদিকে টমটম চালকের মধ্যে অনেকে রয়েছে ১৮ বছরের নীচে। তারা উচ্চস্বরে গাণ বাজিয়ে, ট্রাফিক আইন না মেনে, ওভার টেকিংসহ নানা বিশৃংখলতার মধ্য দিয়ে টমটম চালায়।
এ ব্যাপারে পৌরকর্তৃপক্ষের সাথে কথা বললে তারা সঠিক কোন তথ্য দিতে পারছেনা। একে অন্যের উপর দায়িত্ব চাপাচ্ছে। দিচ্ছে মিশ্র তথ্য।
এ বিষয়ে পৌরসভার লাইসেন্স পরিদর্শক নূরুল হক জানান, অপ্রাপ্ত বয়স্থ চালকদের ধরা হচ্ছে। আর জরিমানা করা হচ্ছে এবং লিখিত (মুচলেকা) নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। অবৈধ টমটম জব্দের ব্যাপারে বলেন, তারা ১৫-২০ টি অবৈধ টমটম জব্দ করেছেন। আর জব্দকৃত কিছু টমটম নবায়ন করা হচ্ছে।
পৌরসভার সচিব শামশুদ্দিন জানান, পৌরসভায় অবৈধ টমটম জব্দ করেছে ৩০-৪০ টি। লাইসেন্সবিহীন অবৈধ টমটম আর অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক চালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে প্রতিনিয়ত।
কিন্তু বাস্তবে এই দুই কর্মকর্তার কারো কথা মিল নেই। কোনটি সঠিক বুঝা যাচ্ছিলনা। কারন সরেজমিনে দেখা যায়, পৌরসভার পিছনে (জব্দকৃত টমটম রাখার জায়গা) ও সম্মুখে মোট ১১টি টমটম জব্দ রয়েছে। আর লাইসেন্স না থাকায় ১০-১২ জন চালককে জরিমানা করা ও মুচলেকা নেওয়ার কাগজ দেখানো হয়েছে।
ওই সময় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কাউন্সিলর বলেন, অবৈধ টমটম জব্দ করলেই অনেক প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের ফোন আসে জব্দকৃত টমটম ছেড়ে দেওয়ার জন্য। এছাড়া যেভাবে মাইকিং এর মাধ্যমে অবৈধ টমটম জব্দ ও অপ্রাপ্ত বয়স্ক চালকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থ্য গ্রহনের কথা বলা হয়েছে তা বাস্তবে ততটুকু হয়নি।
এ ব্যাপারে পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র মাহবুবুর রহমান জানান, তার জানামতে গত ৩ দিন ধরে লাইসেন্স বিহীন টমটম জব্দ আর অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক চালকেরা যাতে টমটম না চালায় সে ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আর পৌরসভার পক্ষ থেকে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT