টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

অভিযানে হতাহতের ঘটনা ঘটেনি: হানিফ

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ৬ মে, ২০১৩
  • ২০২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

2013-05-06-08-41-52-51876cd06ddce-hanfi‘গতকাল রাতে হেফাজতের শত শত লাশ গুম হয়েছে’—বিএনপির নেতা এম কে আনোয়ারের এমন দাবির বিষয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, ‘আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনী কোনো প্রাণহানি না ঘটিয়ে নির্বিঘ্নে হেফাজতের কর্মীদের মতিঝিলের শাপলা চত্বর থেকে বের করে দিয়েছে। সেখানে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।’
আজ বিকেলে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে হানিফ এ দাবি করেন। দেশের সর্বশেষ রাজনৈতিক পরিস্থিতি তুলে ধরতে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘মতিঝিলের পুরো ঘটনা টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়েছে। পত্রিকার ছবিতে দেখা গেছে, হেফাজতের কর্মীরা হাত উঁচিয়ে সেখান থেকে বের হয়ে যাচ্ছেন। অথচ এম কে আনোয়ার সাহেব নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জাতিকে বিভ্রান্ত করছেন। তাঁর মতো একজন রাজনীতিবিদের কাছ থেকে এ ধরনের নির্লজ্জ মিথ্যাচার জাতির জন্য লজ্জাকর।’ তিনি বলেন, ‘আপনি কিসের ভিত্তিতে এ অভিযোগ করলেন, আপনাকে এটা প্রমাণ করতে হবে। তা না হলে জাতি আপনাকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাবে।’
আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘মতিঝিলে একটি সফল অভিযান পরিচালনার জন্য র্যাব, পুলিশ ও বিজিবিকে অভিনন্দন জানাই। কোনো হতাহতের ঘটনা ছাড়াই হেফাজতকে ঢাকা থেকে বের করে দেওয়ায় রাজধানীবাসীর মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে।’
প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রতিনিধি হানিফ বলেন, ‘সাংবাদিকদের ওপর হেফাজতসহ জামাত-শিবির যে হামলা করেছে, সেটা মেনে নেওয়া যায় না। আর যদি তাদের ওপর হামলা হয়, সেটা মেনে নেওয়া হবে না।’
‘দেবাশীষ নামের এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ-নেতা বায়তুল মোকাররম এলাকায় কোরআন শরিফে আগুন দিয়েছে’—এম কে আনোয়ারের এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে হানিফ বলেন, ‘কোরআন পোড়ানোর ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য তিনি এ কথা বলেছেন। তিনি জাতির সঙ্গে মিথ্যাচার করেছেন। তিনি এ তথ্য কোথায় পেলেন? কিসের ভিত্তিতে এ অভিযোগ করলেন?’ হানিফ আরও বলেন, ‘যারা প্রমাণ ছাড়া এ ধরনের অভিযোগ করে, তারা শুধু মানসিক বিকারগ্রস্ত নয়, মতলববাজ। এম কে আনোয়ার, আপনাকে এ অভিযোগের প্রমাণ দিতে হবে। নয়তো আপনার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীরা হেফাজতের ওপর কোনো হামলা করেনি দাবি করে হানিফ বলেন, ‘হেফাজতে ইসলাম আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলা করলে স্থানীয় ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা তাদের প্রতিহত করে। আওয়ামী লীগের কোনো নেতা-কর্মী হেফাজতের ওপর হামলা করেনি।’
হামলা নিয়েও বিএনপির নেতা এম কে আনোয়ার নির্লজ্জ মিথ্যাচার করেছেন বলে অভিযোগ করে হানিফ বলেন, ‘এম কে আনোয়ারের মতো মিথ্যাবাদী রাজনীতিবিদ থাকায় রাজনীতিবিদদের প্রতি জনগণের আস্থা উঠে গেছে। সত্য বলুন, নয়তো রাজনীতি থেকে বিদায় নিন।’
সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ, আওয়ামী লীগের নেতা ফরিদুন্নাহার লাইলি, সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT