টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

অভিনব কায়দায় টোল আদায় করছে পৌরসভা

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৭ এপ্রিল, ২০১৩
  • ১৬৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

কক্সবাজার বাস টার্মিনালে পৌর কর্তৃপক্ষের টোল আদায় নিয়ে অপ্রতিকর ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল থেকে অভিনব কায়দায় টোল আদায় করছে পৌর কর্তৃপক্ষ। গতকাল পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র রাজবিহারী নিজেই বিভিন্ন বাস কাউন্টার থেকে টোল তুলছেন। প্রধান সড়কের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে দাড়িয়ে টমটম, সিএনজি থেকে টোল তুলছেন।
জানা যায়, গত ১৫এপ্রিল কক্সবাজার বাস মালিক শ্রমিকেরা পৌরসভার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে ৫ঘন্টা পরিবহন ধর্মঘট পালন করেন। পরে প্রশাসন, সৃষ্ট জটিলতা অবসানে নানা পদক্ষেপ নেওয়ার কারণে বাস মালিক-শ্রমিকরা তাদের ধর্মঘট প্রত্যাহার করে। গত ১৫এপ্রিল সোমবার পৌর মেয়র রাজ বিহারী দাশের নেতৃত্বে মহা সড়কে ব্যারিকেড যাত্রীবাহি বাস থেকে চাঁদা সংগ্রহ করে। এতে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে পড়ে। ওই দিন বিকাল সাড়ে ৩টায় কক্সবাজার পৌর কার্যালয়ে বাস মালিক, শ্রমিক, পৌর কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসনের মধ্যে তৃপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। আর এই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে চাঁদা তোলা যাবে না। ইজারার বিষয়টি নিষ্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত বিকল্প ও গ্রহণযোগ্য উপায়ে টোল আদায়ে পৌর কর্তৃপক্ষকে পরামর্শ দেয় জেলা প্রশাসন। এর প্রেক্ষিতে গতকাল বুধবার থেকে অভিনব কায়দায় বিভিন্ন যানবাহন থেকে টোল তুলছে পৌরসভা।
এ ব্যাপারে শ্যামলী পরিবহনের ইনচার্জ শামীম সমুদ্রকণ্ঠকে জানান, মহাসড়কে চাঁদা তোলা হলে সন্ত্রাসী তৎপরতা ও চাঁদাবাজী বেড়ে যাবে এবং যে কোন মূহুর্তে বাস মালিক শ্রমিকদের সাথে চাঁদাবাজদের সংঘর্ষ হতে পারে। আর এ সংঘর্ষ এড়াতেই এই নতুন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
এস আলম এর ইনচার্জ মোঃ আলম জানান, অতিরিক্ত টোল আদায় করায় তারা প্রতিবাদ করেন এবং পূর্ব নির্ধারিত হারেই অর্থাৎ প্রতি বাসের জন্য ২০ টাকা করে টোল দিচ্ছেন তারা। তবে পৌর কর্তৃপক্ষের ইচ্ছাতেই বাস কাউন্টার থেকে এই টোলের টাকা পরিশোধ করা হচ্ছে।
এদিকে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার আযাদ মিয়া বলেছেন, সড়কে যানবাহনে ব্যারিকেড দিয়ে টোল আদায় করতে দেওয়া হবে না। সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে চাঁদা তুললে সাথে সাথে আটক করা হবে বলে তিনি হুশিয়ারি প্রদান করেন।
এদিকে সরেজমিনে গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন কাউন্টারে কাউন্টারে ঘুরে দেখা যায়, স্বয়ং ভারপ্রাপ্ত পৌর মেয়র রাজবিহারী দাশ ও পৌর সচিব টোলের টাকা সংগ্রহ করছেন। বাস কাউন্টার ইনচার্জদের সাথে কথা বলে জানা যায়, সারাদিনে যে কয়টি বাস ছেড়েছে তার উপর ভিত্তি করে রসিদের বিনিময়ে পৌর কর্তৃপক্ষকে তারা টোলের টাকা দিচ্ছেন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT