টেকনাফে ভাঙ্গা বাঁধ নির্মানের দাবীতে লবন চাষীদের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশ: ১০ নভেম্বর, ২০১২ ৮:২১ : অপরাহ্ণ

এটিএন ফায়সাল,…টেকনাফে ভাঙ্গা বাঁধ নির্মানের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে লবন চাষীরা। ১০ নভেম্বর শনিবার দুপুর ১২ টায় সাবরাং নয়াপাড়া বাজারে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন লবন চাষী মোঃ তৈয়ুব। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাবরাং লবন উৎপাদনকারী ও ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সুলতান আহাম্মদ বি এ, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল করিম বি এ, লবন চাষী হাজী মাহামুদুল রহমান, আবদু রহিম কোং, আব্দুল সালাম, আবু তালেব, ফরিদ আহম্মদ, করিম উলাহ ও সিরাজুল হক প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে জানায়, দেশের সর্ব দক্ষিণ শেষ সীমানা সাবরাং ইউনিয়নে  ২ হাজার একর জমিতে লবন উৎপাদন হয়। এক একর জমিতে প্রতি মৌসুমে ৮শ মন লবন উৎপাদন হয়। এ এলাকায় প্রতি মৌসুমে ১৬ লাখ মন লবন উৎপাদন করা হয়। উৎপাদিত লবনের বাজার দামে মূল্য প্রায় ৫০ কোটি টাকা। এতে চাষী, ব্যবসায়ী, শ্রমিক ও পরিবহন খাতে প্রায় ১২ হাজার লোক নিয়জিত থাকে। এ বাঁধ সংস্কার করা না হলে লবনের সাথে সংশিষ্ট ১২ হাজার লোক বেকার হয়ে পড়বে। তাছাড়া এ অবস্থা বিরাজমান থাকলে দেশে লবন ঘাটতি দেখা দিতে পারে বলে আশংকা রয়েছে।

গত ৪ মাস আগে প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারনে বঙ্গোপসাগরের করাল গ্রাসে শাহপরীরদ্বীপ রক্ষাবাঁধ ভেঙ্গে জোয়ারের পানি এলাকায় ডুকে পড়ছে। যার ফলে হাজার হাজার একর লবন চাষের জমিতে জোয়ারে পানি তলিয়ে থাকে। চলতি নভেম্বরের মাঝামাঝি ডিসেম্বর মাসের শুরু হচেছ লবন চাষের জন্য উপযোক্ত সময়। এ সময়ে সাগরের জোয়ারের পানির কারনে লবন চাষ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। এ অনিশ্চিয়তা থেকে বেরিয়ে আসতে ভাঙ্গা বেড়ীবাঁধ নির্মান করে লবন চাষের উপযোগী করার জন্য জরুরী পদক্ষেপ গ্রহনে স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বদির সু-দৃষ্টি কামনা করছেন তারা।


সর্বশেষ সংবাদ