টেকনাফে গভীর রাতে প্রবাসীর বাড়ীতে বিজিবির অভিযান

প্রকাশ: ২৩ জুন, ২০১২ ৭:৩১ : পূর্বাহ্ণ

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম,   টেকনাফে প্রবাসীর বাড়ীতে অস্ত্র রাখার গোপন সংবাদে বিজিবি অভিযান চালিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের জাদীমুরা জুম্মা পাড়া গ্রামে বুধবার গভীর রাত দেড় টায় আয়ুব আলীর স্ত্রী মোর্শেদা বেগমের বাড়ীতে এ ঘটনাটি ঘটেছে। জানা গেছে- দমদমিয়া বিওপির জওয়ানরা মোর্শেদার বাড়ীতে অস্ত্রসহ ডাকাতদল রয়েছে মর্মে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে। বাড়ীর চারদিক ঘিরে বাড়ীর কর্তাকে বিজিবি দরজা খুলতে বললে মোর্শেদা গভীর রাতে ডাকাত দল মনে করে স্থানীয় গ্রাম পুলিশ ছাড়া দরজা খুলতে অপারগতা প্রকাশ করলে বিজিবি জওয়ানরা গ্রাম পুলিমকে নিয়ে এসে বাড়ীতে তল্লাশী চালায়। ঘন্টা পর্যন্ত তল্লাশী চালিয়ে কোন অস্ত্র না পেয়ে বিজিবি দুঃখিত বলে চলে গেছে বলে মোর্শেদা জানিয়েছে। তিনি আরো জানান- মিয়ানমারের রোহিঙ্গা বর্তমানে একই গ্রামের বসবাসকারী মৃত আবদুর পুত্র আবদুর রশিদ ওরফে রাজা মিয়ার ইশারায় আমার স্বামীর অবর্তমানে অহেতুক আমার বাড়ীতে অস্ত্র আছে মর্মে মিথ্যে সংবাদ দিয়ে বিজিবি দিয়ে হয়রানী করছে বলে অভিযোগ করেন। আতংকিত বাড়ীর মালিক মোর্শেদা আরো অভিযোগ করে বলেন- রোহিঙ্গা ভূমি দস্যু রাজা মিয়া অর্থের প্রভাব খাটিয়ে তার বসত ভিটা জবর দখলের বিভিন্ন ভাবে পায়তারা ও হয়রানী করে যাচ্ছে। এভাবে অহেতুক হয়রানী থেকে প্ররিত্রাণের জন্য তিনি প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টদের হস্থক্ষেপ কামনা করেন। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি মেম্বার মোঃ আলী জানান- বিজিবি তল্লাশীর ঘটনা সকালে অবহিত হয়েছি। একটি প্রবাসীর বাড়ীতে গভীর রাতে নিশ্চিত না হয়ে তল্লাশী করা আতংকের বিষয়। গভীর রাতে বিজিবির অভিযানের ঘটনা নিশ্চিত করে দমদমিয়া বিওপির নায়েব সুবেদার বজলু বলেন- অস্ত্র রাখার গোপন সংবাদ পেয়ে স্থানীয় গ্রাম পুলিশসহ বাড়ীতে তল্লাশী চালানো হয়েছে। এতে কোন ধরনের অস্ত্র পাওয়া যায়নি। ####


সর্বশেষ সংবাদ