হাজামপাড়ায় মসজিদের জমি গোপনে বিক্রি করার অভিযোগ

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১১:৩৩ : অপরাহ্ণ

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ … ভুয়া মালিক সেজে জামে মসজিদের নামে ওয়াকফকৃত জমি গোপনে বিক্রি ও নামজারী করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। টেকনাফের উপকুলীয় ইউনিয়ন বাহারছড়ায় ঘটেছে এ ঘটনা। মসজিদ কমিটির মুতুওয়াল্লী নামজারী খতিয়ান বাতিলের আবেদনের প্রেক্ষিতে ১২ ফেব্রæয়ারী সহকারী কমিশণার (ভুমি) তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বাহারছড়া তহশীলদারকে নির্দেশ দিয়েছেন।
টেকনাফের বাহারছড়া হাজামপাড়া পাগলিরছড়া জামে মসজিদ কমিটির পক্ষে মুতওয়াল্লী আরএস ৭৬ নম্বর রেকর্ডীয় মালিক ছলামত উল্লাহ লিখিত অভিযোগে জানান, বড়ডেইল মৌজার জেএল নং-৭, বিএস খতিয়ান নং-৪২৯, সৃজিত বিএস খতিয়ান নং-২৭৫৭, সৃজিত বিএস দাগ নং-১৩৬২ এর আন্দর ৪৫ শতক জমি ভুলক্রমে স্থানীয় নুর আহমদের নামে রেকর্ড হওয়ায় মসজিদ কমিটি কক্সবাজার সহকারী জজ আদালতে রেকর্ড সংশোধনী মামলা দায়ের করে। দীর্ঘ শুনানী শেষে বিজ্ঞ আদালত গত ১৫ জানুয়ারী মসজিদের পক্ষে রায় প্রদান করেন। ইত্যবসরে আদালতে মামলা চলাকালীন জমির মুল্য অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পাওয়ায় লোভের বশীভুত হয়ে নুর আহমদের ভুয়া ওয়ারিশ হিসাবে ২০১৯ সালের ২৯ আগস্ট উক্ত জমির নামজারী ও জমা ভাগ করেন। যার মামলা নম্বর ৩৭৫ (৯)/ ২০১৯-২০২০, সৃজিত খতিয়ান নং-২৭৫৭। অভিযোগে বাহারছড়া দক্ষিণ শীলখালী গ্রামের ফয়েজ উল্লাহর পুত্র নুরুল আবছারকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। উক্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে ১২ ফেব্রæয়ারী সহকারী কমিশণার (ভুমি) তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বাহারছড়া তহশীলদারকে নির্দেশ দিয়েছেন। ঐতিহ্যবাহী উক্ত জামে মসজিদটি বাংলাদেশ ওয়াকফ এস্টেট এর তালিকাভুক্ত। ইসি নং-১৮০৭৯। ভুয়া মালিক সেজে জামে মসজিদের নামে ওয়াকফকৃত জমি গোপনে বিক্রি ও নামজারী করার ঘটনায় এলাকায় মুসল্লী ও সর্বসাধারণের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ##


সর্বশেষ সংবাদ