টিকাটুলিতে সংঘর্ষের ঘটনায় আ.লীগের মামলা, গ্রেফতার ৫

প্রকাশ: ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ ৪:০৪ : অপরাহ্ণ

টেকনাফ নিউজ ডেক্স:

টিকাটুলিতে নির্বাচনী প্রচারণার সময় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা হয়েছে। রোববার (২৬ জানুয়ারি) রাতে বিএনপির ৫০ নেতা-কর্মীকে আসামি করে ওয়ারী থানায় এ মামলা করেন আওয়ামী লীগ নেতা মাকসুদ আহমেদ। যদিও এ ঘটনার জন্য আওয়ামী লীগের লোকজনকে দোষারোপ করেছে বিএনপি।

এ মামলায় ইতোমধ্যে বিএনপির পাঁচ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে থানা পুলিশ।

রোববার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেনের সমর্থকদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ বাঁধে। এতে এক সংবাদকর্মীসহ ডজনখানেক লোক আহত হন।

সংঘর্ষের ঘটনাটির বিষয়ে বিএনপির কর্মীরা বলছেন, মতিঝিল এলাকায় প্রচারণা চালিয়ে দুপুর ১টার দিকে ইশরাক মিছিল নিয়ে গোপীবাগে নিজের বাসার দিকে যাওয়ার সময় সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজের মোড়ে ‘আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা’ তাদের ওপর হামলা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ইশরাক মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময় আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী রোকন উদ্দিন আহমেদ এবং সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলর প্রার্থী লাভলী চৌধুরীর কর্মীরা উপস্থিত হন ওই মোড়ে। দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি স্লোগানের এক পর্যায়ে উত্তেজনা এবং ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। পরে তা ঢিল ও চেয়ার ছোড়াছুড়িতে রূপ নেয়।

সংঘর্ষের পর ইশরাক প্রেস ব্রিফিংয়ে অভিযোগ করেন, তাদের জনপ্রিয়তায় ভীত হয়ে আওয়ামী লীগের লোকজন বিনা উসকানিতে হামলা করেছে।

মামলার বিষয়ে পুলিশের ওয়ারী জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) হান্নানুল ইসলাম জানান, গতকাল দুপুরে টিকাটুলি এলাকায় বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেনের কর্মী-সমর্থকরা আওয়ামী লীগের ৩৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থীর কার্যালয়ে হামলা, নৌকাবিরোধী শ্লোগান, মারধর ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটিয়েছেন অভিযোগ তুলে মামলা করেছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত এক কাউন্সিলর প্রার্থীর অনুসারী মাকসুদ আহমেদ।

সূত্র : জাগোনিউজ২৪


সর্বশেষ সংবাদ