হোয়াইক্যংয়ে ছুরিকাঘাতে ৮ম শ্রেণীর ছাত্র নিহত

প্রকাশ: ১২ জানুয়ারি, ২০২০ ১:২৯ : অপরাহ্ণ

জাহাঙ্গীর আলম,টেকনাফ::  টেকনাফ উপজেলার মনিরঘোনা গ্রামে ছুরিকাঘাতে
হোয়াইক্যং আলী আছিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে’র জসীম উদ্দিন নামে
৮ম শ্রেণীর ছাত্র ১১ই জানুয়ারী রাতে মারা যায়।মৃত জসীম
উদ্দিন(১৫)হোয়াইক্যং মনিরঘোনা গ্রামের সৈয়দ মিয়ার পুত্র।
স্থানীয়দের সুত্রে জানা যায়,জসীম উদ্দিন(১৫)১১ই জানুয়ারী
শনিবার বিদ্যালয় থেকে এসে বিকালে মনিরঘোনা মসজিদে
আসরের নামাজ পড়তে যাওয়ার জন্য মনিরঘোনা এলাকায় সড়কের
পাশে অবস্থান করছিল।এরপর হোয়াইক্যং আমতলী ঘোনা এলাকার
বকতার আহমদের পুত্র খাইরুল আমিন(১৮)এর সাথে ফুটবল খেলার
বিষয় নিয়ে দু’জনের মধ্যেই র্তকাতর্কি হয় র্তকাতর্কির
একপযার্য়ে খাইরুল আমিন(১৮)তাকে ছুরিকাঘাতে করে
পালিয়ে যায়।
সুত্রে আরো জানাযায়,ছুরিকাঘাতে আহত স্কুল ছাত্রকে স্থানীয়
লোকজন সহ তার মা দেলোয়ারা বেগম ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে
কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।পরবতর্ী সময় অবস্থার
অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্রগ্রাম হাসপাতালে
নেওয়ার পথে রাতের দিকে জসীম উদ্দিন(১৫) এর মৃত্যু হয়।
নিহত জসীম উদ্দিনের মা দেলোয়ারা বেগম জানান,বিনা কারণে
হোয়াইক্যং তুলাতলি আমতলীঘোনার বকতার আহমদের পুত্রখাইরুল আমিন(১৮)ছুরিকাঘাতে করে আমার ছেলেকে খুন
করেছে আমি এই হত্যাকান্ডে বিচার চাই।
হোয়াইক্যং আলহাজ্ব আলী আছিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান
শিক্ষক মোস্তফা কামাল চৌধুরী মুসা জানান,ছুরিকাঘাতে
নিহত জসীম উদ্দিন আমার বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর ছাত্র।আমরা
নিহত ছাত্র জসীম উদ্দিন হত্যার বিচার দাবি জানাই।শোকাহত
পরিবারে প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।
এবিষয় হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ি’র ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ
আরিফুল ইসলাম জানান,ফুটবল খেলা নিয়ে কথা র্তকাতর্কি’র
জেরে ছুরিকাঘাতে ঘটনাটি ঘটেছে বলে প্রাথমিক তদন্তে
জানা গেছে।লাশ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে
রয়েছে।##


সর্বশেষ সংবাদ