বিশ্ব ইজতেমায় এবারও দু’পক্ষের মুখ দেখাদেখি বন্ধ

প্রকাশ: ২৮ অক্টোবর, ২০১৯ ৯:৩৬ : অপরাহ্ণ

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক []
বিশ্ব ইজতেমার তারিখ চূড়ান্ত করা হয়েছে। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে দুই দফায় ৬ দিন বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাবলিগ জামাতের বিবদমান দুটি পক্ষ। ১০ থেকে ১২ জানুয়ারি সাদবিরোধী মাওলানা জুবায়ের গ্রুপ এবং ১৭ থেকে ১৯ জানুয়ারি সাদপন্থী ওয়াসিফুল ইসলাম গ্রুপ বিশ্ব ইজতেমায় নেতৃত্ব দেবে। সোমবার (২৮ অক্টোবর) বিকালে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। এ সিদ্ধান্তে সমস্যার সমাধান না হয়ে উভয়পক্ষের মুখ দেখাদেখি বন্ধই থাকলো।

বৈঠক সূত্র জানায়, বিশ্ব ইজতেমার তারিখ নির্ধারণে অনুষ্ঠিত বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ছাড়াও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, তাবলিগ জামাতের শীর্ষ মুরুব্বি মাওলানা মুহাম্মদ জুবায়ের ও ওয়াসিফুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের রাজনৈতিক ও আইসিটি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আবু বকর ছিদ্দীক বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, সকল পক্ষের সম্মতি নিয়ে বিশ্ব ইজতেমার তারিখ চূড়ান্ত করা হয়েছে। ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসের ১০, ১১ ও ১২ তারিখে প্রথম দফায় মাওলানা মুহাম্মদ জুবায়ের পক্ষ বিশ্ব ইজতেমা করবে। দ্বিতীয় দফায় ১৭, ১৮ ও ১৯ জানুয়ারি সাদপন্থী ওয়াসিফুল ইসলাম পক্ষ বিশ্ব ইজতেমা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া তাবলিগ জামাতের কেন্দ্রীয় নেতা ভারতীয় মোহাম্মদ সাদ কান্দালভি বাংলাদেশে আসবেন না বলেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

১৯৬৭ সাল থেকে টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে তিন দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমা নিয়মিত হয়ে আসছে। তবে মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে ২০১১ সাল থেকে বিশ্ব ইজতেমা দুই পর্বে আয়োজন করে আসছে সরকার। ২০১৭ সালের শেষের দিকে তাবলিগ জামাতের নেতৃত্ব নিয়ে বিরোধ চরমে ওঠে। পরে সরকারি কর্তৃপক্ষের মধ্যস্থতায় ২০১৮ সাল থেকে দুই পক্ষ আলাদাভাবে তাবলিগ জামাতের নেতৃত্ব দিয়ে আসছে।


সর্বশেষ সংবাদ