রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ২২ আগস্ট, তালিকায় ৩৫৪০ জন

প্রকাশ: ১৬ আগস্ট, ২০১৯ ৯:৫৭ : পূর্বাহ্ণ

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক::

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে নতুন তারিখ নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার। আগামী ২২ আগস্ট এ প্রত্যাবাসন শুরু হবে। মিয়ানমারের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্স গতকাল বৃহস্পতিবার এ খবর জানিয়েছে।

মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মিন্ট থু বলেন, ‘আগামী ২২ আগস্ট তিন হাজার ৫৪০ জনের প্রত্যাবাসনে আমরা সম্মত হয়েছি।’ বাংলাদেশ সম্প্রতি ২২ হাজারের বেশি রোহিঙ্গার একটি তালিকা মিয়ানমারকে দিয়েছিল। সেখান থেকে যাচাই-বাছাই শেষে দেশটি তিন হাজার ৫৪০ জনকে ফেরত নেওয়ার জন্য চূড়ান্ত করে।

বাংলাদেশের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, এটি একটি ছোট আকারে প্রত্যাবাসন পরিকল্পনা। তিনি আরও বলেন, ফেরত যাওয়ার জন্য কাউকে জোর করা হবে না। বাংলাদেশ চায় রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছায়, নিরাপদ, মর্যাদাপূর্ণ ও স্থিতিশীল প্রত্যাবাসন।

এর আগে গত নভেম্বরে কক্সবাজারে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ফেরতের একটি উদ্যোগ ব্যর্থ হয়। রোহিঙ্গারা নিজভূমি রাখাইনে ফেরত যাওয়ার আগে মিয়ানমারের নাগরিকত্বসহ কিছু দাবি জানিয়েছে। এসব দাবি এখনো পূরণ হয়নি। ফলে এবারও তারা স্বেচ্ছায় যাবে কিনা তা অনিশ্চিত। এদিকে জাতিসংঘ বলছে, রাখাইনের পরিবেশ এখনো রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়ার উপযোগী হয়নি। জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর বলেছে, প্রত্যাবাসনের আগে রাখাইনের পরিস্থিতি রোহিঙ্গাদের কাছে তুলে ধরবেন তারা।


সর্বশেষ সংবাদ