টেকনাফের মানুষ কি বাংলাদেশের নাগরিক নই : সাবেক জেলা ছাত্রলীগ নেতা মামুন

প্রকাশ: ৩০ মে, ২০১৯ ৫:৪৫ : অপরাহ্ণ

বাংলাদেশের সর্বদক্ষিণ কক্সবাজার পর্যটন শহর তার দক্ষিণে টেকনাফ উপ শহর সেই টেকনাফের প্রতিটি মানুষ আজ খুবই অসহায়,আমার মনে হচ্ছে তারা বাংলাদেশের ২য় শ্রেণীর নাগরিক। কারন তাদের নেই কোন নাগরিক অধিকার,নেই কোন সম্মান,নেই কোন ইজ্জত সম্মান। তারা যাদেরকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত করেছে,আশা করেছিল তারা বুক পাঠিয়ে মোদির মত ৫২”পাঠা নিয়ে বলবে, কেন আমার টেকনাফের মানুষ বাংলাদেশর কোন জায়গায় যেতে রোহিঙ্গা অপবাদ দিয়ে গাড়ী থেকে নামিয়ে এক লক্ষ দুই লক্ষ টাকা কেন দাবি করবে,কেন আমার টেকনাফের সকল মানুষকে ইয়াবার কালিমা দেবে,কেন আমার টেকনাফের মানুষ বল্লে ইয়াবা দিয়ে কারাগারে চালান দেওয়ার ভয় দেখাবে,কেন আমার টেকনাফের মানুষ ভয় নিয়ে চলাফেরা করতে হবে। কই কোন নেতা তো এই পর্যন্ত কোথা ও বললো না। আমরা বড়ই অসহায়,যারা ইয়াবা ব্যবসায়ী তাদের বিরুদ্ধে অভিযান সব সময় চলতে থাকুক তা সবাই কামনা করেন। প্রকৃত ইয়াবা ব্যবসায়ীকে যারা শেল্টার দিবে তাদের কেউ আইনের আওতায় আনা হওক। তাই বলে টেকনাফ থেকে চট্টগ্রাম বা ঢাকা বা বাংলাদেশের অন্য কোন যায়গায় যাইলে গাড়ী থেকে নামিয়ে ইয়াবা দিয়ে কারাগারে চালান দেওয়ার ভয় দেখিয়ে টাকা দাবি করবে,তা করা খুবই দুঃখ জনক। প্রতিবাদ কিভাবে করবে তার ভাষা ও তারা হারিয়ে ফেলছে। কোথায় গিয়ে বললে তারা মুক্তি পাবে তা ও তারা বুঝতে পারছে না। আমরা কি বাংলাদেশের নাগরিক না ? মুক্তি চাই,মুক্তি চাই, মুক্তি চাই!!!

মামুনুর রশিদ মামুন
সাবেক উপ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কক্সবাজার জেলা শাখা।


সর্বশেষ সংবাদ