হ্নীলা গুলফরাজ-হাশেম ফাউন্ডেশনের ২১তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী সম্পন্ন

প্রকাশ: ২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ১০:০৪ : অপরাহ্ণ

 

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ … টেকনাফের অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী ও দাতব্য প্রতিষ্ঠান হ্নীলা গুলফরাজ-হাশেম ফাউন্ডেশনের ২১তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বার্ষিক চিকিৎসা শিবির, সম্মাননা ও কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।
২৬ এপ্রিল সকাল ৯টায় হ্নীলা গুলফরাজ-হাশেম ফাউন্ডেশনের বার্ষিক অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে জাতীয় সংগীত পরিবেশন ও পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে শুভ উদ্বোধন করা হয়। এরপর বিভিন্ন রোগের বার্ষিক চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম, ডায়াবেটিস পরীক্ষা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীদের কর্ণছেদন কার্য্যক্রম পরিচালিত হয়। সকাল ১১টায় গুলফরাজ-হাশেম ফাউন্ডেশনের মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান ফাউন্ডেশনের সভাপতি সফিক আহমদ বিকমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। ফাউন্ডেশনের সদস্য কায়সার উদ্দিন আহমদ ও মমতাজুল ইসলাম মনুর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের কিডনী বিভাগের প্রাক্তন অধ্যক্ষ ও বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ ইমরান বিন ইউনুছ। বিশেষ অতিথি ছিলেন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ডাঃ জামাল আহমদ, চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ সরওয়ার আলম, কক্সবাজার ডায়াবেটিস সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ, পূবালী ব্যাংক লিমিটেডের সাবেক উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোখতার আহমদ, চট্টগ্রামের পরিবেশ ও মানবাধিকার কর্মী শ, ম বখতিয়ার, এডভোকেট রফিকুল আলম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিরাজুল মনোয়ার, ওসি রফিকুল্লাহ, হ্নীলা ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আবুল হোছন এবং টেকনাফ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মাওলানা রফিক উদ্দিন। বক্তাগণ জনসেবায় গ্রামীণ জনপদে এ ধরনের বৃহৎ কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করে মানব সেবায় অনন্য এই প্রতিষ্ঠানকে ধরে রাখতে দলমত, রাজনীতি ও আঞ্চলিকতার উর্ধ্বে উঠে কাজ করার আহবান জানান।
স্বাগত বক্তব্যে ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জামাল আহমদ এতদ্বাঞ্চলের স্বাস্থ্য, শিক্ষা এবং মানব কল্যাণে এই প্রতিষ্ঠানের বিস্তারিত কার্যক্রম তুলে ধরেন। মানবতার কল্যাণে আগামী দিনে এই ফাউন্ডেশনের সেবা বিষয়ে আশ^ত্ব করে সকলের আন্তরিক সহায়তা কামনা করেন। এতে ফাউন্ডেশনের প্রয়াত দুই সদস্য হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান এইচকে আনোয়ার ও মৌলানা নুরুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ এবং বিদেহী আতœার শান্তি কামনা করে দুয়া করা হয়। শুরুতে উপস্থিত অতিথিবৃন্দকে সম্মাননা ক্রেস্ট দিয়ে বরণ করে নেন। এরপর ২০১৮ সালে আন্তঃ উপজেলা গুহাফা বৃত্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী, কম্পিউটার কোর্স উত্তীর্ণ এবং গরীব-মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বৃত্তির টাকা ও উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। ##


সর্বশেষ সংবাদ