নির্বাচনী সহিংসতা গ্রেপ্তার চলছেই: ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীসহ গ্রেপ্তার ১৩৮

প্রকাশ: ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ৯:৫০ : পূর্বাহ্ণ

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক ::  পাবনার ঈশ্বরদীতে বিএনপি প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিবকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়েছে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় আনা হয়েছে।

এ ঘটনায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের আট কর্মীকে আটক করা হয়েছে। এদিকে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমের ওপর ফের হামলা হয়েছে। ময়মনসিংহের ত্রিশালে হামলা হয়েছে বিএনপি প্রার্থী ডা. মাহবুবুর রহমান লিটনের ওপর। ঝিনাইদহ-৩ আসনের ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী জামায়াত নেতা মতিয়ার রহমানকে রাজধানীর রায়ের বাজার থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদিকে বগুড়া, গাইবান্ধা, ঝালকাঠির রাজাপুর, সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর, জয়পুরহাটের আক্কেলপুর, টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী, খাগড়াছড়ির পানছড়ি, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ, টাঙ্গাইল ও গাজীপুরের কালীগঞ্জে আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টির প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস, গণসংযোগ ও কর্মীর ওপর হামলা হয়েছে। খাগড়াছড়িতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকর্মীদের মধ্যে ধাওয়াধাওয়ি হয়েছে। নাটোরের সিংড়া, নওগাঁর রানীনগর, পঞ্চগড় এবং যশোরের মণিরামপুরে আক্রান্ত হয়েছে বিএনপি প্রার্থীর নেতাকর্মীরা। গত মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার পর্যন্ত এসব হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এদিকে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বিএনপি-জামায়াতের ১৩৮ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসনের বিএনপি প্রার্থী ও দলটির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিবকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে সরকার সমর্থিত কর্মীরা। এ সময় হাবিবের সঙ্গে থাকা তাঁর ছোট ভাইসহ কমপক্ষে চার কর্মীকে পিটিয়ে আহত করা হয়। ভাঙচুর করা হয়েছে হাবিবের ব্যক্তিগত গাড়ি। গতকাল বুধবার সকালে পাবনা ঈশ্বরদীর আলহাজ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ হামলার ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের আট কর্মীকে আটক করেছে। ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইনচার্জ ডা. এ এফ এম আসমা খানম জানান, হাবিবের শরীরের নিচের অংশে ধারালো অস্ত্রের চারটি কোপের গভীর জখম রয়েছে। প্রচুর রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাঁকে পাবনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরে সেখানে হাবিবের অবস্থার অবনতি হলে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় নেওয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছে হাবিবের পরিবার।

চট্টগ্রাম-৫ (বায়েজিদ আংশিক) হাটহাজারী আসনে ধানের শীষের প্রার্থী কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীকের নির্বাচনী প্রচারণার সময় দুষ্কৃৃতকারীরা আবারও হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বুধবার বিকেলে হাটহাজারীর ধলই ইউনিয়নের মুনিয়াপুকুরপাড়ের পশ্চিমে  রেললাইনের পাশে হামলার এ ঘটনা ঘটে। এ সময় জেলা যুবদল নেতা মোহাম্মদ ইয়াছিনসহ আটজন নেতাকর্মী গুরুতর আহত হয় বলে অভিযোগে প্রকাশ। হামলাকারীরা দুটি গাড়িও ভাঙচুর করেছে। এ সময় জেনারেল ইবরাহিম প্রাণ বাঁচাতে পাশের একটি বাড়িতে আশ্রয় নেন। সংবাদ  পেয়ে হাটহাজারী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মাসুম ও বিজিবির একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

ময়মনসিংহের ত্রিশালে বিএনপি পদপ্রার্থী ডা. মাহবুবুর রহমান লিটনের গণসংযোগ চলাকালে তাঁর ওপর গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় অতর্কিত হামলা হয়েছে। ত্রিশাল বাজার এলাকায় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে প্রতি দোকানে দোকানে ভোট ও দোয়া চেয়ে লিফলেট বিতরণ করছিলেন ডা. লিটন। পৌর শহরের কেন্দ্রীয় পূজামণ্ডপ পর্যন্ত পৌঁছাতেই লগি-বৈঠা হাতে হেলমেট পরা দুর্বৃত্তরা বিএনপি পদপ্রার্থী ও তাঁর নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলাকালে প্রার্থী ও নেতাকর্মীরা পাশের দোকানে লুকালে  সেখানেও হামলা চালায় তারা। এ সময় দুটি মোটরসাইকেলও ভাঙচুর করা হয়।

এদিকে বগুড়ার শেরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব আম্বিয়ার বাসায় গত মঙ্গলবার রাতে ককটেল হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অবিস্ফোরিত চারটি তাজা ককটেল উদ্ধার করে। একই দিন রাতে আদমদীঘির নসরতপুরে বিএনপিকর্মীদের হামলায় আওয়ামী লীগের চার কর্মী আহত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ বিএনপির দুই কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে। ধুনটে বিএনপিপ্রার্থী গোলাম মো. সিরাজের নির্বাচনী কার্যালয় থেকে ককটেলসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের ৩৬ নেতাকর্মীর নামে নাশকতা ও বিস্ফোরক আইনে মামলা হয়েছে।

গাইবান্ধা সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের গড়দীঘি বাজারে ৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অফিসে গতকাল বুধবার ভোরে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

ঝালকাঠির রাজাপুরের মঠবাড়ি ইউনিয়নের পাড়েরহাট এলাকায় গত মঙ্গলবার রাতে আওয়ামী লীগের একটি নির্বাচনী কার্যালয়ে দুর্বৃত্তরা আগুন দেয়।

খাগড়াছড়ির সাবেক এমপি ও জেলা বিএনপির সভাপতি ওয়াদুদ ভুইয়ার রামগড় আগমনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে গতকাল বুধবার দুপুরে ধাওয়াধাওয়ি ও  ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনায় পুলিশসহ কয়েকজন আহত হয়েছে। এদিকে পানছড়ির ইসলামপুর যুবলীগের ওয়ার্ড কার্যালয় গত মঙ্গলবার রাতে ভাঙচুর করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়নের সৈয়দপুর বাজারে গত মঙ্গলবার রাতে তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এম এ মান্নানের নির্বাচনী সভা পণ্ড করে দেওয়া হয়েছে।

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরের হাস্তাবসন্তপুর গ্রামের রেলগেট এলাকায় গত মঙ্গলবার রাতে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ক্যাম্পে অগ্নিসংযোগের অভিযোগ উঠেছে।

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীর যদুনাথপুর ইউনিয়নে নেটমশরা নতুন বাজারে গত মঙ্গলবার রাতে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁর মেঘনা ঝাউচর এলাকায় গতকাল বুধবার মহাজোট প্রার্থী লিয়াকত হোসেন খোকার নির্বাচনী ক্যাম্প ভাঙচুর করেছে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল্লাহ আল কায়সারের সমর্থকরা। এ সময় খোকার পাঁচজন সমর্থককে পিটিয়ে আহত করে তারা।

টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসনের জাতীয় পার্টির (এরশাদ) প্রার্থী পীরজাদা সফিউল্লাহ আল মুনিরের গাড়িতে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বুধবার বিকেলের দিকে টাঙ্গাইল শহরের মসজিদ রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে মনিরের মামা ও গানম্যানসহ তিনজন আহত হয়েছেন।

গাজীপুরের কালীগঞ্জের নাগরী এলাকায় গত মঙ্গলবার রাতে জাতীয় পার্টির প্রার্থী রাহেলা পারভীন শিশিরের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় তাঁর গাড়িও ভাঙচুর করা হয়।

পঞ্চগড়ে সদর উপজেলার মডেলহাট এলাকায় গতকাল বুধবার দুপুরে নির্বাচনী প্রচারণার সময় বিএনপি সমর্থকদের হামলায় ছাত্রলীগকর্মী আল ইমরান আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে একই সময়ে পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আওরঙ্গজেব ধানের শীষের প্রচারণার সময় নৌকা প্রতীকের সমর্থকদের হামলায় আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

রাজশাহীতে বিএনপিপ্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা এবং অব্যাহত হামলা ও গ্রেপ্তারের অভিযোগ করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ অভিযোগ করেছেন রাজশাহী জেলার বিএনপির তিন প্রার্থী। রাজশাহী মহানগর বিএনপি কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, প্রশাসন ও আওয়ামী লীগ একজোট হয়ে বিএনপিপ্রার্থীদের প্রচারে নানাভাবে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে।

নাটোরের সিংড়ায় আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ভোলার নেতৃত্বে গত মঙ্গলবার রাতে বিএনপিকর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। এতে বিএনপির দুই নেতাকর্মী আহত হয়।

নওগাঁর রানীনগরের কাশিমপুর ইউনিয়নের দফাদার মোড়ে গত মঙ্গলবার বিকেলে গণসংযোগ করে ফেরার পথে বিএনপি নেতাকর্মীদের গাড়িবহরে হামলা হয়েছে। এ ঘটনায় বিএনপির তিন নেতা আহত হয়েছেন। এদিকে নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা দেওয়ায় গতকাল বুধবার নওগাঁর নিয়ামতপুরে বিএনপিপ্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান তাঁর দলীয় লোকজনদের নিয়ে থানার সামনে ১৫ মিনিট অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন।

যশোরের মণিরামপুরে বিএনপির কর্মী-সমর্থকদের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। গত মঙ্গলবার রাতে মুখোশ পরা একদল দুর্বৃত্ত উপজেলার শ্যামকুড় ইউনিয়নের লাউড়ী মাদরাসা মোড়, দক্ষিণ লাউড়ী, লাউড়ী ভাবির মোড় ও শ্যামকুড় বুজতলা বাজারে গিয়ে মুদি দোকান, চায়ের দোকান, কম্পিউটারের দোকানসহ আটটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা চালায়।

ঝিনাইদহ-৩ (মহেশপুর-কোটচাদপুর) আসনের জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী জামায়াত নেতা মতিয়ার রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল বুধবার ভোরে ঢাকার রায়ের বাজারের একটি বাসা থেকে পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে। তাঁর নামে নাশকতা সৃষ্টি ও বোমা হামলার পরিকল্পনার অভিযোগে বিভিন্ন থানায় ২০টি মামলা রয়েছে। তাঁর কাছ থেকে দুটি ল্যাপটপ ও সাতটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে।

টাকা দিয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগে সুনামগঞ্জের ছাতকের মণ্ডলীভোগ এলাকা থেকে গত মঙ্গলবার রাতে আবু হুরায়রা ছুরত নামের এক বিএনপি নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এদিকে গত মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার পর্যন্ত বিএনপি-জামায়াতের ১৩৮ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে সিলেটে ৩৬ জন, পিরোজপুরে ৩০ জন, বরিশালের আগৈলঝাড়ায় আটজন, পঞ্চগড়ে ১৪ জন, ফরিদপুরে ১২ জন, বাগেরহাটের রামপালে তিনজন, ময়মনসিংহের ভালুকায় পাঁচজন, নেত্রকোনার কলমাকান্দায় ছয়জন, নওগাঁর নিয়ামতপুরে ছয়জন, ধামইরহাটে তিনজন ও আত্রাইয়ে তিনজন, বগুড়ার ধুনটে চারজন ও শাজাহানপুরে একজন, পাবনার চাটমোহরে দুজন এবং যশোরে দুজন বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এদিকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে পেট্রলবোমা হামলার ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের দুই শতাধিক নেতাকর্মীর নামে মামলা হয়েছে। হামলায় ম্যাজিস্ট্রেট আহত হওয়ার ঘটনায় সিলেট-৬ আসনের বিএনপিপ্রার্থী ফয়সল আহমদ চৌধুরীসহ আড়াই শ নেতাকর্মীকে আসামি করে গত মঙ্গলবার রাতে মামলা হয়েছে গোলাপগঞ্জ থানায়। দিনাজপুরের বীরগঞ্জে মহাজোট প্রার্থীর পথসভাস্থলে হামলার ঘটনায় ধানের শীষ প্রার্থী জামায়াত নেতা মোহাম্মদ হানিফসহ ১৯৯ নেতাকর্মীর নামে মামলা হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন অভিযোগে ময়মনসিংহের ভালুকায় ৮০০ জন, গাজীপুরে ২৩৬ জন, বরিশালের উজিরপুরে ২০০ জন এবং নড়াইলের লোহাগড়ায় ৬০ জন বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীকে আসামি করে আলাদা মামলা হয়েছে।


সর্বশেষ সংবাদ