টেকনাফে ২২ কোটি ৫৭ লক্ষ টাকার ইয়াবা মাদক ও চোরাইপণ্য উদ্ধার

প্রকাশ: ২ জুন, ২০১৮ ১১:৫৮ : অপরাহ্ণ

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ … টেকনাফ বিজিবি সীমান্তের দায়িত্বপুর্ণ এলাকায় টহল ও বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ২২ কোটি ৫৭ লক্ষ ৭৩ হাজার ১৩৫ টাকা মুল্যমানের ইয়াবাসহ মাদকদ্রব্য ও অন্যান্য মালামাল আটক করেছে বলে জানা গেছে। তম্মধ্যে শীর্ষে রয়েছে ইয়াবা। মোট ১২৫টি মামলায় ২৪ জন চোরাচালানী গ্রেপ্তার এবং ২ জন আসামী পলাতক রয়েছে।
টেকনাফ-২ বিজিবি’র পরিচালক অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আছাদুদ-জামান চৌধুরী জানান ‘টেকনাফ-২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ বিওপি ও ক্যাম্প সমূহ ১ মে হতে ৩১ মে পর্যন্ত এক মাসে বিভিন্ন সময়ে টহল পরিচালনার মাধ্যমে সর্বমোট ২২ কোটি ৫৭ লক্ষ ৭৩ হাজার ১৩৫ টাকা মূল্যমানের ইয়াবা, মাদকদ্রব্য ও অন্যান্য মালামাল আটক করে। উক্ত মাসে ২১ কোটি ৫৫ লক্ষ ৩৬ হাজার ৮০০ টাকা মুল্যের মোট ৭ লক্ষ ১৮ হাজার ৪৫৬ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। তম্মধ্যে ২৪ হাজার ৩৫৬ পিস মালিকসহ এবং ৬ লক্ষ ৯৪ হাজার ১০০ পিস ইয়াবা মালিকবিহীন। ইয়াবা আটকের ৪৯টি মামলায় ২৩ জন গ্রেপ্তার এবং ২ জন আসামী পলাতক রয়েছে।
ইয়াবা ছাড়া অন্যান্য মাদকের মধ্যে রয়েছে ৬টি মামলায় ৪ লক্ষ ৬০ হাজার ৫০০ টাকা মুল্যের ১ হাজার ৮৪২ ক্যান মালিকবিহীন বিয়ার, ৮টি মামলায় ৫ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা মুল্যের ৩৮০ বোতল মালিকবিহীন বিদেশী মদ, ২টি মামলায় ৫৭ হাজার টাকা মুল্যের ১৯০ লিটার চোলাই মদ, ১টি মামলায় ১৭৫ টাকা মুল্যের ৫০ গ্রাম গাঁজা। ১টি মামলায় ১১ হাজার ৬০০ টাকা মুল্যের ২৯ বোতল মালিকবিহীন ফেন্সিডিল। মোট ১০ লক্ষ ৯৯ হাজার ২৭৫ টাকা মুল্যের এসব মাদক আটকের ১৮টি মামলায় কোন আসামী গ্রেপ্তার ও পলাতক নেই।
এছাড়া মে মাসে ৯১ লক্ষ ৩৭ হাজার ৬০ টাকা মুল্যমানের বিভিন্ন প্রকারের চোরাইপণ্য জব্দ করা হয়েছে। এসব চোরাইপণ্য আটকের ৫৮টি মামলায় ১জন আসামী গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এসব মামলায় পলাতক আসামী নেই’। ##


সর্বশেষ সংবাদ