টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ঈদগাঁও ও কক্সবাজার জেলার অন্যন্য খবর….

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১৭৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

জেলা প্রাথমিক শিক সমিতির সভা অনুষ্ঠিত জেলা ব্যাপী কর্ম বিরতি পালন ও কেন্দ্রিয় সমাবেশ সফল করার আহবান

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক সমিতি কক্সবাজার জেলা শাখার এক সভা গতকাল (২৪.০৯.১৩ইং) হোটেল সী-কুইনের সম্মেলন কে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক সমিতি কক্সবাজার জেলা শাখার নবগঠিত কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও কেন্দ্রিয় শিক নেতা সৈয়দুর রহমানের সভাপতিত্বে, জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও কেন্দ্রিয় শিক নেতা মুহাম্মদ রেজাউল করিমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন-বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক সমিতির কেন্দ্রিয় সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক ও নবগঠিত জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ নজরুল ইসলাম। সভার শুরুতেই নবগঠিত কমিটির সভাপতি জনাব আবুল কালামের রোগ মুক্তির দোয়া কামনা করা হয়।

সভায় বক্তাগণ ৩ দফা দাবী (যথা-১. প্রধান শিকদের ২য় শ্রেণীর পদ মর্যাদা, ২. সহকারী শিকদের বেতন স্কেল দুইধাপ উন্নীত করণ, ৩. সহকারী শিক পদোন্নতির জটিলতা নিরসনে)  বাস্তবায়নে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচীর আলোকে বিগত ১৫/০৯/১৩ইং হতে চলমান কর্মবিরতির উপর বিষদ আলোচনা করা হয়। আলোচনান্তে জেলা ব্যাপী বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক সমিতি কর্তৃক ঘোষিত ২৩-৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে দাবী আদায় না হলে আগামী ১লা অক্টোবর কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচী অনুযায়ী কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে অনুষ্ঠিতব্য শিক মহাসমাবেশ ও মহা অনশনে যোগদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন-জেলার কেন্দ্রিয় সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ও জেলার নবগঠিত কমিটির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক শহিদুল আলম, কেন্দ্রিয় ক্রীড়া সম্পাদক একরামুল হুদা, সহ-সভাপতি ও সদর উত্তর সভাপতি রফিকুল ইসলাম, গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, সাহাদত হোসেন, জেলা যুগ্ম সম্পাদক মোঃ জাকারিয়া, সহ-সম্পাদক ও সদর উত্তর সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরী, জেলার সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোহসিন, অর্থ সম্পাদক মেজবাহ উদ্দিন, দপ্তর সম্পাদক ও চকরিয়া উপজেলা সম্পাদক আরিফ উদ্দিন, সহ-দপ্তর সম্পাদক অজিত কুমার পাল, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক নুরুল আলম, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আবদুল মন্নান, সহ-তথ্য বিষয়ক সম্পাদক শিব্বির আহমদ, প্রচার সম্পাদক মোঃ আজিজুল হক হেলালী, প্রাথমিক শিার গুনগতমান বিষয়ক সম্পাদক সাঈদ আল করিম, আদিবাসী বিষয়ক সম্পাদক জেমসেন বড়–য়া, সাংস্কৃতিক ও বিনোদন বিষয়ক সম্পাদক ও রামু সভাপতি আমজাদ হোসেন, ক্রীড়া সম্পাদক সুভাষ দত্ত, জেলা শিা ও সাহিত্য সম্পাদক মিজানুর রহমান, সদর দণি সম্পাদক জিয়াবুল হক, পেকুয়া উপজেলা সভাপতি মোঃ হানিফ চৌধুরী, সমবায় সম্পাদক সৈয়দ আলম, কুতুবদিয়া সভাপতি মফিজুল আলম, জেলা সদস্য বেদারুল ইসলাম, ফজলূল করিম, মোঃ ইদ্রিস, নুর আহমদ, মনির উদ্দিন, জোৎস্না বড়–য়া, রাশেদা বেগম প্রমুখ।

 

সংবাদদাতা স্বারিত মোঃ রেজাউল করিম মোবাইল ঃ ০১৮২১৮১৮৬৯২। সাংগঠনিক সম্পাদক বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক সমিতি, কক্সবাজার জেলা।

 

প্রধান শিকদের দ্বিতীয় শ্রেণীর মর্যাদা দানের দাবী সদর উপজেলার শতাধিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চলছে কর্মবিরতি এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁও ২৪-০৯-২০১৩ইং সদর উপজেলার প্রায় শতাধিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্ম বিরতি চলছে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিকদের ২য় শ্রেণীর মর্যাদা দান এবং সহকারী শিকদের ১১ তম স্কেল দানের দাবীতে দেশ ব্যাপী অনুষ্ঠিত কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে দৈনিক ৩ ঘন্টা করে এ কর্মবিরতি পালন করছেন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান ও সহকারী শিকরা। ২০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে এ বিরতি। কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকবে বলে জানান বিভিন্ন বিদ্যালয়ে কর্মরত প্রধান ও সহকারী শিকবৃন্দ। —————————————-

খুটাখালীতে কবরস্থান দখলকে কেন্দ্র করে প্রতি পরে হামলায় মহিলা সহ আহত -১২ এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁও ২৪-০৯-২০১৩ইং খুটাখালীতে কবরস্থানের জায়গা দখলকে কেন্দ্র করে প্রতি পরে হামলায় মহিলা সহ অন্তত ১২ জন গুরুত্বর আহত হয়েছে। ২৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে এই ঘটনাটি ঘটে। জানা যায়, খুটাখালী ইউনিয়নের উত্তর ফুলছড়ি জামে মসজিদের জোর পূর্বক কবরস্থানের জায়গা দখলকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটে। চলতি বছরের ১৮ মে উক্ত কবরস্থানের গাছপালা কেটে নতুন রাস্তার বাহানা দিয়ে জায়গা দখল করে নিচ্ছে একই এলাকার মৃত একটি গং। এদিকে খুটাখালী ইউনিয়ন পরিষদে একাধিকবার বৈঠক হলেও তা অমান্য করে ঐ গং, আরও বেপরোয়া হয়ে উঠে। ফলে চকরিয়া থানায়, মসজিদ কমিটির সেক্রেটারীর পুত্র বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করে। ঐ অভিযোগের ভিক্তিতে এস.আই রুহুল আমিন এলাকাবাসীকে দীর্ঘদিনের সেই পুরানো রাস্তার সাকো নির্মাণ করতে বললে এলাকাবাসী সাকো নির্মাণ করে। নতুন রাস্তা বন্ধ করতে গেলে একপর্যায়ে ঐ গং গুলি বিনিময় করে। এতে শিার্থী-মহিলা সহ অন্তত বার জন গুরুত্বর আহত হন। আহতরা হলেন- শিার্থী- সার্মিন আক্তার (৯), আবদুল হামিদ (৫০), হান্নান মিয়া (৪০), আবুল হাশেম (৩৫), মছুদা বেগম (৩০) জাফর আলম (৭০), হেফাজত (৩০), বশির আহমদ (৪০), ফয়েজ উল্লাহ (৬৫) আবদুল গণি (৫০), জাফর আলম (৫৫)। ঐ গং এর প থেকে দু’জন আহত হয়। তারা হলেন- শাহাব মিয়া (৭০), নুরুল আবছার (৫০)। এব্যাপারে স্থানীয় মেম্বার ডাঃ আবুল বশর ঘটনা সত্যতা স্বীকার করেন এবং ঘটনাটি আসলে দুঃখজনক বলে জানান।

ঈদগড় সড়কে আবারো ডাকাতি মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও,কক্সবাজার। মোবাইল- ০১৫৫৮-৪৩৪২২৮, ০১৮৩৫-৪১০১২৫।  রামু উপজেলার ঈদগড়ে চিহ্নিত ডাকাত বেসামাল হয়ে পড়েছে। ডাকাত দল ঈদগড়-বাইশারী সড়কের বেন্ডেপা ঢালায় আবারো যাত্রী যানবাহনে ডাকাতি সংঘঠিত করেছে। ডাকাত দলি ৫ টি সিএনজি টেক্সি একটি হিল লাইন মিনি বাস ও অসংখ্য মোটর সাইকেলের যাত্রীদের আটকিয়ে অমানবিক মারধর ও স্বর্বশ লুট করে নেই। প্রাপ্ত তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়, গতকাল ২৩ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৭ টায় ডাকাত দল ঈদগড়-বাইশারী সড়কের বেন্ডেপা ঢালায় উভয় দিক থেকে আসা কক্্সবাজার জ-১১-০০৬৯ হিল লাইন সহ ৫টি সিএনজি ও অসংখ্য মোটর সাইকেল যাত্রীদের আটকিয়ে গণ ডাকাতি করে বীর দর্পে চলে যায়। ডাকাতের এলোপাতাড়ি মারধরে ৬ অসহায় যাত্রী আহত হয়। এরা হলেন আবদু শুক্কুর, ছোটন, রাজা মিয়া, ফরিদুল আলম, ছেনুআরা বেগম ও গাড়ি চালক মোহাম্মদ কালু। সম্প্রতি ঈদগড়ের আইন পরিস্থিতি চরম অবনতি প্রেক্ষিতে রামু থানা কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করলে রামু থানার ওসি (তদন্ত ) বকতিয়ার চৌধরী জনান, ঈদগড়ে ডাকাতদের বিরোদ্ধে বিশেষ অভিযান পরিচালনার জন্য ঈদগড় পুলিশ ক্যাম্পে সার্বক্ষনিক একজন থানা থেকে পুলিশ অফিসার দায়িত্ব পালন করবে। রামু থানার এ এসআই মুশারফ গত কাল সন্ধ্যায় ঈদগড় পুলিশ ক্যাম্পে যোগদানের কথা রয়েছে। এদিকে গত ২২ সেপ্টেম্বর ঈদগড়ের সীমান্তবর্তী পূর্ণগ্রাম এলাকা থেকে অপহিত এরশাদ উল্লাহকে এখনো উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। চকরিয়া থানা পুলিশ ডাকাতি স্থল পরিদর্শন করলেও অপহিতা এরশাদ উল্লাহকে উদ্ধারে কোন ব্যবস্থা না করায় এলাকাবাসী অসন্তুষ প্রকাশ করেছে। এদিকে এলাকাবাসী ঈদগাঁও- ঈদগড় ও বাইশারী সড়কে সকাল ৮ টা হইতে রাত ১০ টা পর্যন্ত নিয়মিত পুলিশ টহল জোরদারের দাবী জানিয়েছে।

 

মাতৃ ছাত্র সংগঠনের নির্বাচন সম্পন্ন

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও,কক্সবাজার। মোবাইল- ০১৫৫৮-৪৩৪২২৮, ০১৮৩৫-৪১০১২৫। কক্সবাজার সদরের বাণিজ্যিক এলাকা ঈদগাঁও বাজারস্থ জাগির পাড়া মাতৃ ছাত্র সংগঠনের কার্যকরী কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। ২৪ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রাত ৮ টার সময় এ নির্বাচন সম্পন্ন হয়। ৮ জন প্রতিদন্ধির মধ্যে নির্বাচিত কর্মকর্তারা হলো সভাপতি শহিদুল ইসলাম সোহেল, সেক্রেটারী ছালাহ উদ্দিন আহমদ, অর্থ সম্পাদক নিয়ামত উল্লাহ নিমু, প্রচার সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ। খুরশেদুল আলম ফরিদের পরিচালনায় দারুল হেরা মার্কেটে ১২ ভোটারের উপস্থিতিতে এ নির্বাচনে উপস্থিত ছিলেন জিয়াউল মুরশেদ ফরাজী, মিজানুর রহমান, এনামুল হক, মিজানুর রহমান প্রমুখ।

====================================

ঈদগাঁও যুবদলের কাউন্সিল ঘিরে নেতা-কর্মীদের আনন্দ উল্লাস

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও,কক্সবাজার। মোবাইল- ০১৫৫৮-৪৩৪২২৮, ০১৮৩৫-৪১০১২৫। কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও যুবদলের সম্মেলন ও কাউন্সিল আজ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বুধবার বিকাল ২ টায় ঈদগাঁও বাসষ্টেশনের অস্থায়ী কার্যালয়ে ইউনিয়ন ৪ নং ওয়ার্ড যুবদলের কাউন্সিল হতে যাচ্ছে। এনিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে আনন্দ উল্লাস পরিলক্ষিত হচ্ছে। প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, এ কাউন্সিল ও সম্মেলন গত ২৩ আগস্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও উর্ধ্বত নেতৃবৃন্দ বিশেষ কারণে কাউন্সিল স্থগিত ঘোষনা করে ও পরে আজ (২৫ সেপ্টেম্বর) উক্ত সম্মেলনের দিন ধার্য্য করা হয়েছিল। কাউন্সিলের প্রার্থীদের মধ্যে সভাপতি পদে মোজাম্মেল হক ও জিল্লুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক পদে আবু বক্কর ছিদ্দিক ফারুক, রাসেদুল ইসলাম, এমরানুল রশিদ রানা ও রমজান আলী প্রতিদন্ধিতা করবে। অন্যদিকে সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মো. ফেরদৌসের নাম শুনা যাচ্ছে। কাউন্সিল পরিচালনায় থাকবে ইউনিয়ন যুবদল সভাপতি মো. শফিউল আলম আজাদ, সার্বিক সহযোগিতায় থাকবে সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম, সাংগঠনিক সম্পাদক নাছির উদ্দিন পিন্টু। ক্ষোবে ফুঁসছে জনগণ ঈদগাঁওতে চরম বিদ্যুৎ বিভ্রাট ॥ শিল্প-বাণিজ্য বিঘিœত

আতিকুর রহমান মানিক, ঈদগাঁও। মোবাইল- ০১৮১৮-০০০২২০, তারিখ- ২৪-০৯-২০১৩ ইং। স্মরণকালের ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কবলে পড়েছে ঈদগাঁও বাজারসহ বৃহত্তর ঈদগাঁও’র ৭/৮ ইউনিয়নের জনগণ। শিক্ষার্থীদের লেখা-পড়াসহ শিল্প ও ব্যবসা-বাণিজ্য এবং অপরাপর সবকিছু একপ্রকার থমকে গেছে বিদ্যুতের অভাবে। বিগত পক্ষকালব্যাপী দিনে গড়ে আধা ঘন্টাও বিদ্যুৎ পাওয়া যাচ্ছে না। ভাদ্র-আশ্বিন মাসের প্রচন্ড ভ্যাপসা গরমে হাঁস-ফাস করছে সর্বস্তরের জনসাধারণ। চলমান বিদ্যুৎ বিভ্রাট এতই তীব্র যে, মোবাইল চার্জ করার মতও বিদ্যুৎ পাওয়া যাচ্ছে না। বিদ্যুতের অভাবে চার্জ করতে না পারায় দিনের বেশীরভাগ সময়ই বন্ধ রাখতে হচ্ছে মোবাইল ফোন। এ যুগে ব্যবসা-বাণিজ্য, চাকরি, শিক্ষা ও চিকিৎসাসহ সবকিছু মোবাইল নির্ভর হওয়ায় মারাত্মক বেকায়দায় পড়েছে এলাকাবাসী। মঙ্গলবার বিকালে ঈদগাঁও বাজারের জলিলিয়া জামে মসজিদে গিয়ে দেখা যায়, পানির অভাবে মুসল্লিরা ওযু করতে পারছেন না। বিদ্যুতের অভাবে মোটর চালাতে না পারায় ওযুর পানি তোলা সম্ভব হয়নি। একই অবস্থা দেখা গেছে বাঁশঘাটা দক্ষিণ জামে মসজিদ, বাঁশঘাটা উত্তর জামে মসজিদ, বাসষ্টেশন জামে মসজিদ, কেজি স্কুল জামে মসজিদ, ঈদগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ মসজিদসহ অপরাপর সব মসজিদে। মুসল্লিদের অসুবিধার কথা বিবেচনা করে বাজারের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে বিকল্প ব্যবস্থায় জেনারেটর চালিয়ে পানি তোলা হয়েছে বলে জানা গেছে। বিদ্যুতের এ অবস্থার কারণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। ঈদগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ তথ্য ও সেবা কেন্দ্রের পরিচালক ছরওয়ার সিফা জানান, লোডশেডিংয়ের ফলে আইপিএস বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কয়েকদিন ধরে কেন্দ্রের কম্পিউটারসহ অন্যান্য বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি বন্ধ থাকায় জন্ম -মৃত্যু নিবন্ধন ও অপরাপর সেবা নিতে আসা জনগণকে নিরাশ হয়ে ফিরে যেতে হচ্ছে। ঈদগাঁও কেজি স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী ইয়াছির সিকদার বলেন, ভয়াবহ লোডশেডিংয়ের ফলে আসন্ন পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে সমস্যা হচ্ছে। জালালাবাদ ফরাজী পাড়ার গৃহিনী জন্নাতুন নাইম বলেন, বিদ্যুৎ না পেয়ে ফ্রিজে রক্ষিত মাছ-মাংস-তরকারীসহ অন্যান্য খাদ্যদ্রব্য নষ্ট হয়ে গেছে। অনলাইন পত্রিকা ঈদগাঁও নিউজ ডট কম’র সহযোগী অপারেটর মো. নুরুল আবছার জানান, বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে কম্পিউটার সরঞ্জাম চালু রাখতে না পারায় ওয়েব পোর্টালে সংবাদ ও ছবি আপলোড করতে না পারায় চলমান ঘটনাবলির আপডেট সংবাদ থেকে পাঠকরা বঞ্চিত হচ্ছে। এ অবস্থা চলছে বৃহত্তর ঈদগাঁও’র ৭/৮ ইউনিয়নে। এসব এলাকার পোল্ট্রি ফার্ম, ডেইরী ফার্ম, রাইচ মিল, লবণ মিল, বরফ কল, ফিড মিলসহ অপরাপর বিদ্যুৎ নির্ভর ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্পে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় পল্লি বিদ্যুতের উপর জনগণের ক্ষোভ ক্রমশ দানা বাঁধছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে জনগণের ধৈর্য্যের বাঁধ ভেঙ্গে গিয়ে যে কোন সময় অপ্রত্যাশিত ও অনাকাঙ্খিত কিছু ঘটতে পারে।

============================

 

 

 

পুলিশের ভূমিকা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন জালালাবাদে ধারাবাহিক চুরি, এবার টার্গেট নলকূপ

আতিকুর রহমান মানিক, ঈদগাঁও। মোবাইল- ০১৮১৮-০০০২২০, তারিখ- ২৪-০৯-২০১৩ ইং। বৃহত্তর ঈদগাঁওর জালালাবাদ ইউনিয়ন অপরাধীদের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে। চুরি, ডাকাতি, ছিনতাইসহ রকমারী অপরাধ যেন ইউনিয়নবাসীর নিয়তি হয়ে দাড়িয়েছে। প্রায় প্রতি রাত্রেই কোননা কোন এলাকায় দুঃসাহসিক চুরি, ডাকাতি অথবা অন্যান্য অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত কয়েক দিনে পূর্ব ফরাজী পাড়ার বিভিন্ন গৃহস্থ বাড়িতে ধারাবাহিক চুরি সংঘটিত হয়েছে। গত ২১ সেপ্টেম্বর দিবাগত গভীর রাতে উক্ত গ্রামের নাজির হোসেনের বাড়ীর আঙ্গিনা থেকে টিউবওয়েল চুরি করে নিয়ে যায় সংঘবদ্ধ চোরেরা। ২২ সেপ্টেম্বর পূর্ব ফরাজী পাড়া ও খামার পাড়ার কয়েকটি সুপারি বাগানে হানা দেয় চোরের দল ও কাঁচা-পাকা সুপারি চুরি করে নিয়ে যায়। সর্বশেষ ২৩ সেপ্টেম্বর উক্ত গ্রামের বাসিন্দা ও ঈদগাঁও আলমাছিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার শিক্ষক মাষ্টার আব্দুল হাকিমের বাড়ী থেকে সন্ধ্যারাত ৮ টার সময় নলকূপ চুরি হয়ে যায়। এরও কয়েকদিন আগে একই এলাকার মৌলভী মাহমদুল হকের বাড়িতে সংঘটিত হয় দুঃসাহসিক চুরি। গৃহকর্তা মাহমদুল হক কক্সবাজারস্থ নিরিবিলি গ্রুপের হ্যাচারির কর্মকর্তা বলে জানা গেছে। এভাবে ধারাবাহিক চুরি ও অপরাধের ফলে জনগণের জান-মালের সার্বিক নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়েছে। আইন-শৃঙ্খলার এরকম অবনতিতে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে জনমনে প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পেতে প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT