সেন্টমার্টিন দ্বীপের জেটির বেহাল দশা

প্রকাশ: ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ৯:৫৫ : অপরাহ্ণ

নুর মোহাম্মদ সেন্টমার্টিন থেকে = দেশের পর্যটন স্পট গুলোর মধ্যে অন্যতম প্রধান আকর্ষনীয় স্থান প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন। সেন্টমার্টিন দ্বীপের নাম শুনেনি এমন ভ্রমন পিপাসু মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবেনা।তাইতো দেশী বিদেশী সৌন্দর্য প্রিয় ও ভ্রমন পিপাসু মানুষ গুলো প্রতি বছর পর্যটন মৌসুমে দল বেঁধে কেউ বা স্বপরিবারে ঘুরতে আসেন সেন্টমার্টিন দ্বীপে। আর যারা এক বার দ্বীপে ভ্রমন করেছেন তারা আবারও আসতে চেষ্টা করে। এমনই মায়াবী সৌন্দর্য এই দ্বীপের। কিন্তূ বর্তমানে দেশী বিদেশী আগত পর্যটকদের উঠা নামার একমাত্র জেটির বেহাল দশা। পরিবেশগত নানা হুমকির মুখে সেন্টমার্টিন দ্বীপ, তাই সংশ্লিটরা মনে করেন সেন্টমার্টিন দ্বীপকে বাঁচিয়ে রেখে পর্যটন বিস্তারে দরকার সমন্বিত পরিকল্পনা। বর্তমানে পর্যটন মৌসম এলে প্রতিদিন ৭ থেকে ৮ টি জাহাজ পর্যটকদের নিয়ে সেন্টমার্টিন যাতায়াত করে,পর্যটদের রাত্রি যাপনের সুবিধার্থে দ্বীপে গড়ে উঠেছে শতাধিক আবাসিক হোটেল কটেজ, সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ ও দ্বীপের বিভিন্ন ব্যবস্যায়ীগন বলেন দ্বীপে প্রতি বছর লাখো পর্যটক ভ্রমনে আসে,কিন্তূ দ্বীপের একমাত্র জেটির বর্তমানে করুন হাল বিরাজ করছে। একমাত্র জেটি কখন ভেঙ্গে পড়ে তা শংখিত ও আতংকিত দ্বীপবাসী।তাই দ্বীপবাসী মনে করেন পর্যটকদের স্বার্থেই জেটি মেরামত করা খুবই জরুরী। এই বিষয়ে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবিউল হাসান জানান পর্যটন মৌসুম শুরর আগেই জেটি মেরামত সহ দ্বীপের উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ডের জন্য জেলা প্রশাসন বরাবরে সুপারিশ প্রেরনের প্রক্রিয়া চলছে যাতে আগত পর্যটকদের কোন অসুবিধা না হয়।


সর্বশেষ সংবাদ