টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :

সেন্টমার্টিনদ্বীপের চতুর্দিকে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুর আহমদের সংবাদ সম্মেলন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৫ জানুয়ারি, ২০১৭
  • ২৮০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ … প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃষ্টি কামনা করে সেন্টমার্টিনদ্বীপের চতুর্দিকে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন সেন্টমার্টিনদ্বীপ ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা ও সেন্টমার্টিনদ্বীপ বিএন ইসলামিক হাইস্কুল এন্ড কলেজ গভর্ণিং বডির সভাপতি আলহাজ্ব নুর আহমদ। ১৫ জানুয়ারী সকাল ১১টায় টেকনাফ পৌর এলাকা আবু সিদ্দিক মার্কেটে ‘ভাঙ্গণের কবলে দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন, পরিবেশ প্রতিবেশ ও পর্যটন শিল্প রক্ষায় টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে’ এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেন্টমার্টিনদ্বীপ ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার আলহাজ্ব আমির হোসেন ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হাফেজ উল্লাহ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সেন্টমার্টিনদ্বীপ ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা ও সেন্টমার্টিনদ্বীপ বিএন ইসলামিক হাইস্কুল এন্ড কলেজ গভর্ণিং বডির সভাপতি আলহাজ্ব নুর আহমদ বলেন ‘বাংলাদেশের সর্বদক্ষিণ অংশে মিয়ানমার সীমান্তে ৮.৩ বর্গকিলোমিটার আয়তণের মুল ভুখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন। পর্যটন মৌসুমে দ্বীপ ভ্রমণে দেশী-বিদেশী পর্যটক, ভিআইপি, ভিভিআইপিদের ঢল নামে। দ্বীপে প্রায় ৯ হাজার মানুষের বসবাস। দ্বীপের চতুর্দিকে প্রাকৃতিক প্রবাল দ্বারা আচ্ছাদিত। সরকারী-বেসরকারীভাবে বিভিন্ন স্থাপনা নির্মিত হলেও দ্বীপের চতুর্দিকে টেকসই বেড়িবাঁধ এযাবৎ নির্মিত হয়নি। ১৯৯১ সালের ২৯ এপ্রিল ভয়াবহ ঘুর্ণিঝড় ও জলোচ্ছ্বাসের পর থেকে প্রতি বছরই দ্বীপের চতুর্দিকে ভাঙ্গণ ধরে তা অব্যাহত রয়েছে। প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে ভাঙ্গণের কবলে পড়ে বসতবাড়ি সাগরে বিলীন হয়ে যায়। বর্তমানে ভাঙ্গণ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। জরুরী ভিত্তিতে সেন্টমার্টিনদ্বীপের চতুর্দিকে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ করা না হলে সরকারের উন্নয়ন পরিকল্পনা ম্লান হওয়ার পাশাপাশি দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন বাংলাদেশের মানচিত্র থেকে হারিয়ে যাওয়ার আশংকা রয়েছে’।
উপস্থিত সংবাদকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুর আহমদ আরও বলেন ‘দ্বীপের চতুর্দিকে বেড়িবাঁধ না থাকায় প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে ভাঙ্গণের কবলে পড়ে বহু বসতবাড়ি ও সরকারী-বেসরকারী অবকাঠামো সাগরে বিলীন হয়ে যায়। ভাঙ্গণ রোধে ক্ষতিগ্রস্থরা ব্যক্তি উদ্যোগে বেড়িবাঁধ নির্মাণ নির্মাণ করতে চাইলে প্রশাসন বাধা প্রদান করে। আমি সেন্টমার্টিনদ্বীপের চতুর্দিকে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুদৃষ্টি কামনা করছি’। ##

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT