টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

সীমান্তের ডন নুর হুদার ছত্রছায়ায় ঢাকায় যাচ্ছে ইয়াবার বস্তা বস্তা চালান-সম্রাজ্যের গডফাদাররা এখন প্রশাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলনমুখী

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০১২
  • ২১২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ফরিদুল মোস্তফা খান, কক্সবাজার …
সীমান্তের ওপার হতে দেশে আসছে বিপুল ইয়াবা। আর অবৈধ মাদকের চালান পাচার করে অঢেল অর্থ সম্পদের মালিক হওয়া টেকনাফ লেদার নুর হুদা এখন আন্ডার ওর্য়াল্ডের ডন। এক সময়ে ভবঘুরের ফেরারী ও টোকাই এখন বিলাস বহুল রঙ মহলে বসে নিয়ন্ত্রণ করে ইয়াবা জগত। এই গড ফাদার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়, গোয়েন্দা সংস্থা ও রাষ্ট্রের কালো তালিকা ভুক্ত ব্যক্তি হওয়া সত্ত্বেও ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে প্রশাসনিক কার্যালয় সর্বত্র মহড়া দিয়ে নানান অবৈধ কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অসংখ্য পাচারকারীর পৃর্থক পৃর্থক সিন্ডিকেট ছাড়াও তার রয়েছে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক পরিচয়ী কিছু দুর্বৃত্ত, অসাধু জন প্রতিনিধি, প্রশাসনের এক শ্রেণীর দুর্নীতিবাজ চক্র ও সোর্স-মিডিয়া কর্মী গড়ে তোলে ৫ স্তরের বাহিনী। এসব বাহিনীর অপশক্তি ব্যবহার করে মিয়ানমার হতে হাজার হাজার ইয়াবা এনে সারা দেশে সরবরাহ করে রমরমা বাণিজ্য গড়ে তোলে। অভিযুক্ত ইয়াবার নায়ক নুর হুদার অপর সহোদর নুর মোহাম্মদ অন্যতম র্শীষ গড়ফাদার। একাধিক ইয়াবা মামলা রয়েছে। ঢাকাই বড় আকারের ইয়াবা চালান সহ ডিবি পুলিশের হাতে আটক হয়। সে দেশব্যাপী সিন্ডিকেট পরিচালনা করত বলে জানা যায়। অভিযুক্ত ইয়াবা গড় ফাদার কালো টাকাও শক্তির প্রভাবে  নিরাপদে চালান দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচার করে যাচ্ছে। সীমান্ত এলাকা হতে কক্সবাজার -চট্টগ্রাম সড়কে অনেকটা বিনা বাধায় তার অবৈধ চালান পাচার করে। নানান প্রভাবে প্রশাসনের অনেক টিম চালান আটক করতে চাইলেও তার বাহিনীদের নানান কারিশমা, রাজনৈতিক অপশক্তি ও নানা প্রভাবে তারা খোদ প্রশাসনের বিরুদ্ধে পর্যন্ত লাখ লাখ টাকার মিশন নিয়ে ষড়যন্ত্র করে। আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কক্সবাজার জেলার অনেক কর্মকর্তারা বিষয়টি ওয়াকিবহাল নন। তবে অনেক দারোগা ওসি, এ.এ.এসপি সার্কেল এবং এস.পি অফিসের সংশি¬ষ্টরা আদৌ এ মাফিয়া ডন কিংবা তার বাহিনীর বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় নানা প্রশ্ন দেখা দেয়। উল্টো পুলিশ সুপারের কার্যালয় বিভিন্ন প্রশাসনিক দপ্তর ও থানা এলাকায় প্রভাবশালী ক্ষমতাসীন নেতাদের নিয়ে প্রকাশ্য মহড়া, দেন দরবার বেপরোয়া ঘুরাফেরার বিষয়টি আইন শৃঙ্খলার পরিণতি ডেকে আনবে বলে সচেতন মহল অভিমত প্রকাশ করে। এদিকে স্ব-রাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত উক্ত গডফাদার টেকনাফ-কক্্সবাজার ও দেশের বিভিন্ন স্থানে বিলাস বহুল প্রসাদ, দালান ভবন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, নানান মডেলের যানবাহন গড়ার বিষয়টি এখন এলাকায় আলোচ্য বিষয় হয়ে দাড়িঁয়েছে। টেকনাফ সড়কের লেদা, আলি খালি, টেকনাফ সদর ইউনিয়ন এলাকায় আধুনিক প্রসাদ গড়ে তোলার দৃশ্য দেখে ইয়াবা ব্যবসার প্রতি সাধারণ মানুষেরও লোভের সৃষ্টি হচ্ছে বলে অনেকেই ধারণা করেন। যা নিজ ও ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য মারাত্মক বিপজ্জনক।
৪২-বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল জাহিদ হাসান জানান অভিযুক্ত নুর হুদা একজন ইয়াবা গড় ফাদার। তার অপর সহোদর নুর মো: কে বিজিবি ১০,০০০ ইয়াবা সহ নাফ নদী হতে হাতে-নাতে আটক করেছিল। বিগত বিভিন্ন সময় বিজিবি তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দায়ের করে। স্ব-রাষ্ট্রমন্ত্রণালয় ও গোয়েন্দা তালিকা সর্ম্পকে তিনি অজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন অভিযোগ সর্ম্পকে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ পুলিশের দায়িত্ব। টেকনাফ থানার ও.সি ফরহাদ বলেছেন নুর হুদা স্ব-রাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকা ভুক্ত গড়ফাদার। তার সহোদর সম্প্রতি ঢাকায় ইয়াবার চালান সহ আটক হয়। শীর্ষ এ গড়ফাদার ও সিন্ডিকেট সদস্যরা থানা অভ্যন্তরে-বাহিরে প্রকাশ্য ঘুরাফেরার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি দেখিনি, তবে তাকে আমি চিনি না। যদি সামনে পড়ে-পরিচয় পাই, আটক করা হবে।
এদিকে স্বার্থে আঘাত আসলে শুধু নুর হুদা নয় এই চক্রের সকল সদস্যরা আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীদের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে বিষোদগার মিছিল মিটিং, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে মিথ্যা অভিযোগ এমনকি নাটকীয় সংবাদ সম্মেলন পর্যন্ত করে বিব্রতকর পরিস্থিতি তৈরী করে বলে জানা গেছে। সূত্র জানায়, এই চক্রের ষড়যন্ত্রে ইতিমধ্যে কর্তব্যপরায়ন অনেক পুলিশ অফিসার বদলীসহ নানা হয়রানীর মুখোমুখি হয়েছে। কারণ এরা নাকি ১ হাজার ট্যাবলেট নিয়ে আইনশৃংখলা বাহিনীর কাছে আটক হলে পরবর্তীতে যেই ধরে সেই পুলিশ অফিসার ১০ হাজার ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে বলে বিভ্রান্তি ছড়ায়। জানা গেছে, এ কারণে সীমান্তে কর্মরত ছোটখাট পুলিশ সদস্যদের অনেকেই বর্তমানে চোখের সামনে ইয়াবা ব্যবসায়ীও চালান যেতে দেখলেও ধরেননা।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT