টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

সীমান্তের চোরাইপণ্যের মধ্যে ইয়াবা সবার শীর্ষে

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১২৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

নুর হাকিম আনোয়ার,টেকনাফ :::: ইয়াবা একটি আলোচিত নাম। চোরাইপণ্যের মধ্যে ইয়াবা সবার শীর্ষে। ইয়াবা পাচার ও ব্যবসা করে টেকনাফ সীমান্তের অনেক লোকের ভাগ্য পরিবর্তন ঘটেছে। গত ৫ বছরে ছিল ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সুখের দিন। এ সময়ে অনেকেই নীরবে ইয়াবা ব্যবসা করে বিপুল পরিমান অর্থও বিত্তের মালিক বনে গেছেন। ইয়াবা থাই শব্দ। এর অর্থ পাগলা। থাইলেন্ড এর ইয়াবা মিয়ানমারে হয়ে চলে আসে বাংলাদেশের টেকনাফ সীমান্তে। বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত পর্যায়ে দুদেশের একাদিক ইয়াবা সিন্ডিকেট কর্তৃক ইয়াবার চালান টেকনাফ সীমান্তের লেদা, জাদিমুড়া, নাইথংপাড়া, নাজিরপাড়া, সাবরাং নয়াপাড়া ঘাট ও শাহপরীরদ্বীপের জালিয়াপাড়া ও বাজার পাড়া করিডোর ও ঘোলার পাড়া দিয়ে চলে আসে। ইয়াবা আটক এবং জব্দের মধ্যে টেকনাফ সীমান্তে যে ক’জন সরকারী এজেন্সী রয়েছে তার মধ্যে বিজিবি ও পুলিশ অন্যতম। প্রতিদিন বিজিবি ও পুলিশের হাতে ধরা খাচ্ছে ইয়াবার চালান ও পাচারকারী। এরপরও অভিসপ্ত ইয়াবা প্রবেশ বন্ধ হচ্ছে না। ব্যবসায়ীরা মিয়ানমার থেকে ইয়াবা গোদামজাত করে রাখে এবং পাচার করতে গিয়ে পুলিশের কাছে বারংবার ধরা পড়ে। এতে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা রয়েছে মহাবিপদ। সরকারের মেয়াদ শেষ হতে না হতে ইয়াবা পাচারে মরিয়া হয়ে উঠেছে ব্যবসায়ীরা। কিন্তু নাছুড় বান্দা পুলিশের বদ নজরে পড়ে যায় ইয়াবা পাচারকারীরা। এজন্য ইয়াবা ব্যবসায়ী ও পাচারকারী পড়ে যায় বেকায়দায়। পুলিশ ইয়াবাসহ পাচারকারী কে আটক এবং জব্দ করার পর পুলিশকে বেকায়দায় ফেলার উদ্দেশ্যে ইয়াবার পরিমাণ বৃদ্ধির গোজব ছড়িয়ে দেয়। এ কারনে পুলিশ ওদের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়। পুলিশের ভাষ্য ইয়াবা ধরলে ও না ধরলে দুষ। #######

 

 

 

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT