সাবরাং সুপারি বাগান ও বেগুন-বরবটি থেকে ১ কোটি ৫৬ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার

প্রকাশ: ৫ জুলাই, ২০১৮ ১১:৪২ : অপরাহ্ণ

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ … টেকনাফের সাবরাং থেকে ১ কোটি ২০ লক্ষ টাকা মুল্যের ৪০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি। তবে এ অভিযানে কোন ইয়াবা চোরাচালানী আটক হয়নি। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।
টেকনাফ-২ বিজিবি’র অধিনায়কের পক্ষে অতিরিক্তি পরিচালক মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার ৫ জুলাই প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান ‘গত ৪ জুলাই রাতে ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ সাবরাং বিওপির নায়েক মোঃ মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টহল দল নয়াপাড়া এলাকায় বিশেষ টহলে গমন করে। পরবর্তীতে বিশ্বস্ত গোয়েন্দা তথ্যের মাধ্যমে জানতে পারে যে, চান্দলীপাড়া এলাকায় একটি সুপারি বাগানে ইয়াবা ট্যাবলেট লুকায়িত থাকতে পারে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে টহল দল দ্রুত বর্ণিত এলাকায় গমন পূর্বক সুপারি বাগানে তল্লাশী অভিযান পরিচালনা করে। তল্লাশীর এক পর্যায়ে টহল দল উক্ত বাগানে একটি ঝোপের ভেতর কালো পলিথিন দ্বারা মোড়ানে একটি প্যাকেট দেখতে পায়। পরবর্তীতে ঝোপের ভেতর হতে প্যাকেটটি বের করতঃ খুলে গণনা করে ১ কোটি ২০ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ৪০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে’।
তিনি আরও জানান,টেকনাফের সাবরাং কাটাবনিয়া থেকে বিজিবি অভিযান চালিয়ে বেগুন ও বরবটিতে লুকানো ৩৬ লক্ষ টাকা মুল্যের ১২ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বলে জানা গেছে।
টেকনাফ-২ বিজিবির অধিনায়কের পক্ষে অতিরিক্ত পরিচালক মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার জানান ‘৫ জুলাই বিকালে ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ সাবরাং বিওপির নায়েক মোঃ মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টহল দল মোটর সাইকেলযোগে কাটাবুনিয়া এলাকায় বিশেষ টহলে গমন করে। টহল দল কাটাবুনিয়া পুরানপাড়া এলাকায় পৌঁছার পর রাত সোয়া ৮টায় একজন লোককে একটি ব্যাগ হাতে নয়াপাড়া বাজারের দিক হতে পুরানপাড়া এলাকার দিকে আসতে দেখে কাছে আসার জন্য অপেক্ষারত থাকে। এমতাবস্থায় বর্ণিত লোকটি বিজিবি টহল দলের উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই তার হাতে থাকা ব্যাগটি রাস্তার পার্শ্বে ফেলে কর্দমাক্ত এলাকা দিয়ে দ্রুত দৌড়ে পার্শ্ববর্তী গ্রামের দিকে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে টহল দল উক্ত ব্যাগটি তল্লাশী করে ব্যাগে রক্ষিত বেগুন এবং বরবটির সাথে কৌশলে লুকায়িত অবস্থায় পলিথিন দ্বারা মোড়ানো ইয়াবা ভর্তি একটি প্যাকেট দেখতে পায়। উক্ত প্যাকেটটি খুলে গণনা করে ৩৬ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ১২ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে’। ##


সর্বশেষ সংবাদ