হটলাইন

01787-652629

E-mail: teknafnews@gmail.com

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয়প্রচ্ছদমাছ

শেকলে বন্দি জেলের জীবন: দাদনের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ জেলেকে নির্যাতন

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক ::
বরগুনার পাথরঘাটায় হওয়ায় ট্রলার মাঝি জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে জেলেকে শেকলে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।
রোববার সকালে উপজেলার হাজিরখাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত জসিম ওই এলাকার বাসিন্দা।

জসিম বলেন, চার মাস আগে পাথরঘাটার নজরুলের মালিকানাধীন ট্রলারে জেলে হিসেবে সাগরে মাছ ধরতে আট হাজার টাকা দাদন নিয়েছি। মৌসুমের শুরুতে মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা থাকলেও ট্রলারের মাঝি জাকির সাগরে যেতে তাড়া দেন। কিন্তু এতে রাজি হইনি।

এদিন সকালে বাজারে এলে জাকিরের সঙ্গে আমার দেখা হয়। এ সময় জাকির আমাকে তার ট্রলারের কাছে নিয়ে আসেন। জাকির টাকা ফেরত চাইলে আমি ১৫ দিন সময় চাই। কিন্তু সময় না দিয়ে অন্যান্য জেলেদের সহায়তায় তিনি শেকল দিয়ে বেঁধে মারধর করেন। সকাল নয়টা থেকে দুপুর দুটা পর্যন্ত এ নির্যাতন করা হয়। খবর পেয়ে ট্রলার মালিকের ছোট ভাই আল-আমিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আমাকে মুক্ত করে চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠান।

ট্রলার মালিক নজরুল ইসলাম বলেন, মৌসুমে মাঝির দায়িত্বেই ট্রলার মাছ শিকারে যায়। জেলে জোগার, দাদন দেয়াসহ জেলেদের সব দায়িত্ব থাকে মাঝির ওপর। এ ঘটনা শুনে তাৎক্ষনিক ছোট ভাইকে পাঠিয়ে জসিমকে মুক্ত করে চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি পাঠিয়েছি। মাঝি জাকির যে ঘটনা ঘটিয়েছে জেলে সমিতির মাধ্যমে এর বিচার হবে।

মাঝি জাকির হোসেন বলেন, জসিম আরো কয়েকটি ট্রলারের দাদন নিয়েছে। আমাদের টাকা ফেরত চাইলে দিচ্ছিল না। তাকে ট্রলারের স্টাফদের কাছে রেখে আমি বাড়িতে গেলাম। পরে কে বা কারা বেঁধেছে আমি জানি না।

জেলে সমিতির সাধারণ সম্পাদক দুলাল মাঝি বলেন, জেলে সমিতিতে ভুক্তভোগী জেলে অভিযোগ করলে সত্যতা মিললে মাঝির বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পাথরঘাটা থানার ওসি হানিফ সিকদার বলেন, ভুক্তভোগী অভিযোগ করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Response

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.