হটলাইন

01787-652629

E-mail: teknafnews@gmail.com

সর্বশেষ সংবাদ

প্রচ্ছদসাহিত্য

শিশু

ফারুক আ10430433_897849033665561_1730575805631292640_nজিজ::০১৮১৪৮২০৮৩৩::চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়++==

যাদের থাকা উচিত ছিলো ঘরে, মায়ের স্নেহ পরবশে; আদরে আদরে। তার আজ পথে ঘাটে,অনাদরে অনাহারে; ছেঁড়া কাটা কাপড়ে। কেউ কেউ ভিক্ষা করে, কেউ বা আবার ইট ভাঙে; ভর দুপুরে। একমুঠো খায় বা না খায়, রেল স্টেশনের ফ্লোরে ; ঘুমিয়ে পড়ে। যাদের থাকা উচিত ছিলো স্কুলে বা মাদরাসার সবুজাভ মাঠে। তারা আজ পাহাড়ে গিয়ে জীবনকে পেছনে ফেলে গাছ কাটে। পানির দামে বিক্রি করে গেরামের মোড়লের গোশত ভূনার তরে। পায় না সে ডালভাত, উচ্ছিষ্ট খাবার বা হাড্ডি; যা রয়ে যায় পড়ে। যাদের থাকা উচিত ছিলো মায়ের কোলে, বাবার সিঞ্চিত কাধে। তারা আজ রক্তাভ মুখে বুলেটের সামনে মা বাবার তরে কাঁদে। কেউ বা আবার জীবনের তরে সাগরের পাড়ে রয়ে যায় মরে। এভাবে সেভাবে আরো কতো শিশু আজ ঢুকরে ঢুকরে কাঁদে। আমরা যারা আছি, তারা কি ভেবেছি কভু একটু; তাদের তরে?! দু’ পয়সা দিয়ে কভু, তুলে নিয়েছি বুকে তাদের; একটু আদরে?! এভাবে যদি চলে, বৈরীতা তাদের তরে; এই পৃথিবীর বুকে। না আসুক আর কোন শিশু পৃথিবীতে; শুধু এই শোকে। জানেন কি! এই পৃথিবী কেনো সুন্দর এবং কেনো এতো সুন্দর? অনুভূত হয় কি কভু! হয়ত হবে; থাকে যদি মরমী অন্তর। শিশু আছে বলে ধরণী সুন্দর, নতুবা নেমে আসবে আধাঁর। তখন থাকা যাবে না কারো, থাকবে মহাসাগর আর পাথার।

Leave a Response

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.