টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

রামু: দোকানে ভেজাল ও পচা বাসি খাবার বিক্রি অব্যাহত

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ৭ অক্টোবর, ২০১৩
  • ৯৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

খালেদ হোসেন টাপু,রামু”:::: কক্সবাজারের রামু চৌমুহনী বাস ষ্টেশনসহ ১১টি ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানের অধিকাংশ হোটেল-রেস্টেুরেন্ট ও ফুটপাতে অবাধে বিক্রি হচ্ছে ভেজাল ও পচা বাসি খাবার । বিভিন্ন সময় ভ্রাম্যমান আদালতের  ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালিত হলেও দীর্ঘদিন ধরে সেই একই নিয়মে চলে আসছে ভেজাল খাবারের ব্যবসা। ওই সব দোকান গুলোতে অমানবিক ভাবে দেদারছে অস্বাস্থ্যকর খাবার বিক্রির মাধ্যমে ক্রেতাদের প্রতারনা করে যাচ্ছে। সেনেটারি ইন্সপেক্টরের কর্মতৎপরতা অনেক গুনের বৃদ্ধি করাসহ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা সব সময় জরুরী বলে স্থানীয় অভিজ্ঞ মহল মনে করেন।  সরজমিন পরিদর্শনে জানা গেছে  রামুর প্রানকেন্দ্র চৌমুহনী বাস ষ্টেশন, উপজেলা পরিষদ গেইট, বাইপাস, ফকিরা বাজার, তেমুহনী, রামু থানার সামনে, রামু হাসপাতালের সামনে, চা বাগান, জোয়ারিয়ানালা বাজার, কলঘর বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় ৫ শতাধিক বড় ও মাঝারি ধরনের হোটেল রেস্টেুরেন্ট, বেকারী রয়েছে। এর মধ্যে বেশিরভাগ হোটেল রেস্টুরেন্টের পরিবেশ খুবই অস্বাস্থ্যকর। এসব দোকান গুলোতে খোলা নোংরা পরিবেশে সেখানে খাদ্য দ্রব্য তৈরী ও বিক্রি করা হচ্ছে। দোকান গুলোর রান্না ঘরের ভেতরে স্যাঁতস্যাঁতে ময়লা, দুর্গন্ধ এবং রান্না করা খাবার গুলো ঢাকা থাকেনা, ময়লা ও মাছির উপদ্রবও কম নয়। রান্নায় ব্যবহৃত পানি গুলো ও বিশুদ্ধ নয়, ব্যবসায়িক কৌশুলগত কারনে পুকুরের পানি ব্যবহার করে যাচ্ছে অধিকাংশই। ক্রেতা সুমন,সরওয়ার ও সুলতান জানান, রামু চৌমুহনীর পলাশ হোটেলসহ ৪টি, উপজেলা পরিষদ গেইটস্থ ময়না হোটেলসহ ৩টি, ফকিরা বাজারে ৫টি, কলঘর বাজারে ৫টি, চা বাগান বাজারে ৩টিসহ উপজেলার অধিকাংশ হোটেল রেস্টেুরেন্টে অপরিস্কার, পচা বাসি খাবার বিক্রি করে আসছে। তাছাড়া ষ্টাফ বয়দের শারিরিক অপরিচ্ছন্নতা, পোষাক সচেতনতা ও ক্রেতা সার্ভিস অত্যন্ত নাজুক এবং বেআইনী শিশুশ্রমত আছেই। তারা আরো জানান, সেনেটারি ইন্সপেক্টর বিশেষ অবহেলা ও তৎপরতাহীনতার কারণে এসব হচ্ছে।

রামুতে গরু চোর সক্রিয় ঃ ক’দিনে ৫ গরু চুরি

খালেদ হোসেন টাপু,রামু   কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে রামুতে সক্রিয় হয়ে উঠেছে গরু চোর চক্র। চোরের উৎপাতে বিনিদ্র রাত কাটাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন গোয়ালঘর। গত ১০ দিনে উপজেলার বেশ কিছু এলাকায় গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে ৪ অক্টোবর রাতে  রামু উপজেলার ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের মধ্যম মেরংলোয়া গ্রামের মৃত হাজী মোকতার আহমদের পুত্র ব্যবসায়ী মো. আলী ইসলামের দরিদ্র বিমোচন প্রকল্পের আওতায় গৃহপালিত তিন ল টাকার দামের পাকিস্তানী শাহী ওয়াল জাতের ২টি গরু  চুরি করে নিয়ে যায়। পরের দিন ৫ অক্টোবর সকালে চকরিয়া থানার পুলিশ সন্দেহ জনক কক্সবাজার অ ১১-০০০৯ একটি পিকআপ আটক করলেও এঘটনায় জড়িতরা এখনো পলাতক রয়েছে। গত সপ্তাহে গভীর রাতে তেচ্ছিপুল সিকদার পাড়ার তসলিদার আব্দুল মজিদের ৩টি গরু চুরি করে নিয়ে যায়। যার মূল্য ২ লাধিক টাকা। এখনো পর্যন্ত গরুর গুলোর হদিস পাওয়া যায়নি।  গরুর মালিক আল ইসলাম জানান, চিহিৃত চোর জামাল হোসেন, সিকান্দার ও ড্রাইভার আব্দুল মালেক তার গরু চুরির ঘটনার সাথে সরাসরি জড়িত বলে তিনি অভিযোগ করেন। মহিলা মেম্বার রাবেয়া বসরী জানান, কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে রামুর বিভিন্ন অঞ্চলে গরু চুরির ঘটনা বেড়েছে। তাই আইন শৃংখলা বাহিনীর তৎপরতা প্রয়োজন।

রামুর প্রবীন শিক্ষক কাশেম মাষ্টারের দাফন সম্পন্ন খালেদ হোসেন টাপু,রামু   রামু উপজেলার চাকমারকুলের প্রবীন শিক্ষক আবুল কাশেমের নামাযের জানাযা ৭ অক্টোবর বাদে জোহুর তেচ্ছিপুলস্ত স্থানীয় কবরস্থান ময়দানে সম্পন্ন হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন রামু -কক্সবাজারের (৩) আসনে সাংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজল, রামু উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফজলুল্লাহ মোহাম্মদ হাসান, চাকমারকুল ইউপি চেয়ারম্যান মুফিদুল আলম, সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হোসেন কোং, নুরুল ইসলাম সিকদার, রামু উপজেলা বিএনপির সভাপতি আহমেদুল হক চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক ছৈয়দ মোহাম্মদ আব্দু শক্কুর,ব্যারিষ্টার তারেক খন্দকার, বিশিষ্ট সমাজ সেবক জাবেদ ইকবাল,পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির সভাপতি সাহেদুজজামান বাহাদুর,রামু সমিতির সভাপতি নাছির উদ্দিন,জেলা প্রাইমারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি সফিকুর রহমান,জেলা ছাত্র দলের সভাপতি ছৈয়দ আহাম্মদ উজ্জল,জেলা ইসলামী ছাত্র সমাজের সভাপতি হাফেজ আবুল মন্জুর সহ বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।এ প্রবীন শিক্ষকের ইন্তেকালে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। এদিকে রামু উপজেলা ছাত্রদলের সদস্যসচিব আবু তালেব ছোটনের পিতা প্রবীন শিক্ষক আবুল কাশেম মাষ্টারের ইন্তেকালে গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করে বিবৃতি দিয়েছেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র সমাজ কক্সবাজার জেলা সভাপতি হাফেজ আবুল মনজুর,সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইউছুপ মক্কী,রামু উপজেলা সভাপতি জয়নুল আবেদীন,সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু নাছের প্রমূখ,এছাড়া আরো শোক প্রকাশ করেছেন মিঠাছড়ী যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের,কাউয়ারখোপ ছাত্রদল নেতা নজরুল ইসলাম।নেতৃবৃন্দরা মহান আল্লাহর দরবারে মরহুমের রূহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

রামুতে ১১দিন ধরে স্কুল ছাত্র নিখোঁজ  উৎকন্ঠায় অভিভাবক খালেদ হোসেন টাপু,রামু   কক্সবাজারের রামু উপজেলা দক্ষিন চাকমারকুল ইউনিয়নের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র আমানুল্লাহ (১২) গত ২৬ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায়  বাড়ি থেকে কলঘর বাজার যাওয়া পথে নিখোঁজ হয়ে যায়। জানা যায়, নিখোঁজ স্কুল ছাত্র আমানুল্লাহ চাকমারকুল ইউনিয়নের আলি হোসেন সিকাদার পাড়ার রিক্সাচালক আনোয়ার হোসনের পুত্র। পিতা রিক্সাচালক আনোয়ার হোসেন জানান, তার  স্কুল পড়–য়া নিখোঁজ ছেলের এখনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।  এব্যপারে রামু থানায় একটি ডাইরী দায়েল করা হয়। তথ্য জানানোর ফোন নাম্বার ০১৮২৪১০২৭০৪-০১৮১৯৯৯৬৪৩৩ ।

প্রেরকঃ- খালেদ হোসেন টাপু,রামু-কক্সবাজার। ৭ অক্টোবর ফোন-০১৮১৯-৬০৭৭০১

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT