টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

রামুর শিকলঘাট ব্রীজে ঝুঁকি নিয়েই চলছে ভারী যানবাহন যে কোন মূহুর্তে দূর্ঘটনার আশংকা, বর্ষার আগেই সংস্কারের দাবি

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৭ জুন, ২০১২
  • ২৩৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মুহাম্মদ আবু বকর ছিদ্দিক রামু…….কক্সবাজারের রামুর বাঁকখালী নদীর উপরে অবস্থিত শিকলঘাট ব্রীজে ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় যান চলাচল অব্যাহত রয়েছে। যে কোন মূহুর্তে দূর্ঘটনার আশংকা করা যাচ্ছে। বর্ষার আগে ব্রীজটি সংস্কার করা না গেলে বড় ধরণের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। আর যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেলে লক্ষ লক্ষ মানুষের দূর্ভোগ পোহাতে হবে। জানা যায়, প্রতিদিন বড় বড় মালভর্তি ট্রাকসহ বিভিন্ন গাড়ী যাতায়াতের মাধ্যমে ব্রীজের নিচতলা ফাটল ধরায় বড় বড় বিকট শব্দ শুনে আশেপাশের লোকজনদের মাঝে আতঙ্ক অবস্থা বিরাজ করেছে। মনে হয় যেন, আশেপাশে যুদ্ধ চলছে (গোলাগুলির আওয়াজের মতো) হচ্ছে। গভীর রাতে ওই ব্রীজের উপর দিয়ে গাড়ী চলাচল করলে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। সওজ বিভাগ কর্তৃপক্ষ ভারী যানবাহন না চলার সতর্কিকরণ সংকেত সাইনবোর্ড দিলেও সেই ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজের সাইনবোর্ডটি কে বা কারা নিয়ে গেছে। সাইনবোর্ড না থাকার কারণে অনেক যানবাহন কোন সতর্কতা অবলম্বন করছে না। যে কোন মুহুর্তে ব্রীজ ভেঙ্গে যানবাহন যাত্রীসহ বাঁকখালী নদীতে তলিয়ে যেতে পারে।

১৯৯২ সালের পুরাতন আরকান সড়ক রামু মরিচ্যা টু শিকটঘাটের ব্রীজটি প্রায় ২০ বছর ধরে সংস্কারের অভাবে ব্রীজের আশপাশ লোহার পাটাতনগুলো জরাজীর্ণ হয়ে ফাটল ধরেছে।

স্থানীয় জনসাধারণ জানান, এই ব্রীজ দিয়ে প্রতিদিন মালভর্তি হাজার হাজার যানবাহন চলাফেরা করে। ফলে জনসাধারণ ব্রীজের এপার হতে ওপারে যাতায়াত করতে ব্রীজটি উভয় পাশে সাধারণ জনসাধারণ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে স্কুল-কলেজের পড়–য়া ছাত্র-ছাত্রীসহ ব্যবসায়ী বিভিন্ন ধরণের পেশাজীবী সমস্যা সৃষ্টি হয়।

ব্রীজের পাশে অবস্থিত আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা জানায়, প্রতিদিন স্কুলে যাওয়া-আসার পথে ব্রীজের হাঁটার উভয় পাশে চলাচলের ব্যবস্থা না থাকায় ঝুকিপূর্ণভাবে চলাচল করতে হয়।

এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি না দিলে লক্ষ লক্ষ জনতা ও যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাবে।

জানা যায়, রামু থেকে উখিয়া, টেকনাফ, মরিচ্যাসহ, রাজারকুল ও বিজিবির ক্যাম্পসহ এই পুরাতন আরকান রোড দিয়ে চলাচলের ব্যবস্থা সহজ হলেও যদি যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে জনগণের দূর্ভোগ পোহাতে হবে।

সচেতন মহল, শিগগিরই ব্রীজটির পূণঃসংস্কার করে যাতায়াতের ব্যবস্থা করার দাবি জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষের কাছে।

উল্লেখ্য, এ ব্রীজ নিয়ে পত্রিকায় অনেকবার লেখালেখি হয়েছে। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। আগামী বর্ষা মৌসুমের আগেই যদি ব্রীজটি সংস্কার করা না হয় আরো বড় ধরণের সমস্যা দেখা দিবে। ফলে অনতিবিলম্বে ব্রীজটি সংস্কারের জোর দাবি উঠেছে।

ছবির ক্যাপশন:

রামু বাঁকখালী নদীর উপর অবস্থিত আরকান সড়কের শিকলঘাটের ব্রীজটির উপর দিয়ে বেপরোয়াভাবে ঝুঁকিপুর্ণ অবস্থায় ভারী যান চলাচল করছে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT