টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

রামুর নবনির্মিত ১২ বৌদ্ধ বিহারে ১১ মাস পর শুরু হবে পূজা প্রার্থনা

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১০২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

paja

কক্সবাজারের রামু ও উখিয়া গত ২০১২ সালের ৩০সেপ্টেম্বরবৌদ্ধ বিহার ও বসতিতে সহিংসতার ঘটনার ক্ষত শুকাতে শুরু করেছে। সে সাথে মুসলিম ওবৌদ্ধদের মাঝে ফিরে আসছে সম্প্রীতি এমটাই মনে করছেন স্থানীয়রা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৌদ্ধ বিহার গুলো উদ্বোধনের পরেই এসব নব নির্মিতবৌদ্ধ বিহার গুলোতে নিয়মিত পূজা প্রার্থনা শুরু হবে।

সেই দিন ভয়াল রাতে ১২টি বিহার ধবংসস্তুপে পরিণত করে দুবৃর্ত্তরা। রামু চৌমুহনিতে নব নির্মিত সীমা বিহার (সীমা কমপ্লেক্স) উত্তর মিঠা ছড়ির বিমুক্তি বির্দশন ভাবনাকেন্দ্র, শ্রীকুল গ্রামের মৈত্রি বিহার, লাল চিং, সাদা চিং ও অর্পনা চরন চিং,চেরাংঘাট উসাইসেনবৌদ্ধ বিহার, জাদিপাড়া আর্যবংশবৌদ্ধ বিহার, উখিয়ারঘোনাজেতবন বিহার, উত্তর মিঠাছড়ি প্রজ্ঞামিত্র বন বিহার, চাকমারকুল অজন্তাবৌদ্ধ বিহার ।

১২টি ক্ষতিগ্রস্থ বিহার নির্মাণের জন্য সরকারী ভাবে ১২কোটি টাকা বরাদ্দ ছাড়াওসেনা বাহিনীর পক্ষথেকে আরো ৮কোটি টাকা ব্যয় করা হয়। মাত্র ১১ মাসেইসেনা বাহিনী (১৭ ইসিবি)সেই ধবংসস্তুপের উপর গড়ে তুলেছেন দৃষ্টিনন্দন বৌদ্ধ বিহার। মুছে দিয়েছে সেই কালো রাত্রির ধবংসযজ্ঞের সকল অশুভ চিহ্ন। প্রধানমন্ত্রীশেখ হাসিনা আগামী ৩সেপ্টেম্বর কক্সবাজার সফর কালে তিনি রামুতে ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে নব নির্মিত ১২টি বৌদ্ধ বিহারের কয়েকটি পরির্দশন করবেন।

রামু কেন্দ্রীয় সীমা বিহারের অধ্যক্ষ পন্ডিত সত্য প্রিয় মহাথেরো বলেন, বিহার নির্মাণ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীরকোন আন্তরিকতার অভাব ছিল না। তাঁর নির্দেশে সেনা বাহিনী অল্প সময়ের মধ্যে গড়ে তুলেছেন দৃষ্টি নন্দনবৌবিহার গুলো। এখন শুধু উদ্বোধনের অপেক্ষায়। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৌদ্ধ বিহার গুলো উদ্বোধনের পরেই এসব নব নির্মিতবৌদ্ধ বিহার গুলোতে নিয়মিত পূজা প্রার্থনা শুরু হবে।

এছাড়া বিহার গুলোতে স্থায়ী নিরাপত্তা আর উপযুক্ত পরিচর্যা ও রক্ষনাবেখ্ষনের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে তিনি দাবী জানান। সেনা বাহিনীর (১৭ ইসিবি) ধনায়কলেঃ কর্ণেল জুলফিকার রহমান জানান, ১২টিবৌদ্ধ বিহার নির্মাণের জন্য সরকারের পক্ষথেকে ১২কোটি টাকা বরাদ্দদেয়া হয়েছে।বৌদ্ধ স্থাপত্য অনুসরণ করেই বিহার গুলো নির্মাণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নির্মিত বৌদ্ধ বিহার গুলোর সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য সেনা বাহিনীর পক্ষথেকে আরো ৮কোটি টাকা ব্যয় করা হয়েছে। ৩সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের পরেই প্রার্থনার জন্য খুলেদেয়া হবে নব নির্মিত বিহার গুলো।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT