টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

রাজধানীতে আরও তিন খুন, দুই ক্রসফায়ার ১৪ সেকেন্ডেই নৃশংস খুন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩১ জুলাই, ২০১৩
  • ১৮৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

      P1_dolio-kondole    ১. গাড়ি থেকে নেমে গুলশানের শপার্স ওয়ার্ল্ডে ঢুকছেন ঢাকা মহানগর যুবলীগের (দক্ষিণ) সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজুল হক খান ২. খুব কাছে থেকে তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ছেন সাদা পাঞ্জাবি ও টুপি পরিহিত এক ব্যক্তি ৩. গুলির আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ার পরও আরেক দফা তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন ওই ব্যক্তি ৪. গুলি করার পর মোটরসাইকেলে করে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন তিনি ষ ছবি: ভিডিও থেকে নেওয়াঈদের কেনাকাটায় মুখর বিপণিবিতান। সড়কে তখনো যানবাহন ও মানুষের আনাগোনা। গাড়ি থেকে নেমেই বিপণিবিতানে ঢুকছিলেন কালো পাঞ্জাবি পরা এক ব্যক্তি। আর মুঠোফোনে কথা বলতে বলতে বিপণিবিতান অতিক্রম করছিলেন সাদা পাঞ্জাবি পরা এক যুবক। কাছাকাছি হতেই যুবকটি ওই ব্যক্তির মাথা লক্ষ্য করে গুলি করেন। সড়কে ছিটকে পড়েন তিনি। তবু যুবক থামেননি। চালাতে থাকেন এলোপাতাড়ি গুলি। সঙ্গে যোগ দেন মোটরসাইকেলে আসা আরও কয়েক যুবক। কিছুক্ষণ পর মোটরসাইকেলযোগে তাঁরা পালিয়ে যান। সড়কে পড়ে থাকে নিথর নিস্তব্ধ একটি দেহ। সড়কে পড়ে থাকা ব্যক্তির নাম রিয়াজুল হক খান ওরফে মিল্কি (৪২)। তিনি ঢাকা মহানগর যুবলীগের (দক্ষিণ) সাংগঠনিক সম্পাদক। গত সোমবার গভীর রাতে গুলশানের একটি বিপণিবিতানের সামনে মাত্র ১৪ সেকেন্ডেই ওই যুবকেরা গুলি করে তাঁকে হত্যা করেন। এ ঘটনায় রাতেই মহানগর যুবলীগের (দক্ষিণ) যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সিদ্দিকী তারেকসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। ওই বিপণিবিতানে থাকা ক্লোজড সার্কিট (সিসি) ক্যামেরায় ধারণ করা দৃশ্য থেকে হত্যাকাণ্ডের বিবরণ পাওয়া গেছে। একই রাতে রাজধানীর হাজারীবাগে গুলি করে হত্যা করা হয় বিএনপির ওয়ার্ড নেতা জসিমউদ্দিনকে। ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন দুই কথিত ছিনতাইকারী। আর গতকাল কোতোয়ালি ও কদমতলীতে খুন হন দুই ব্যক্তি।Untitled-13

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক উইং কমান্ডার এ টি এম হাবিবুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ভিডিও ফুটেজ দেখে নিশ্চিত হওয়া গেছে, প্রথম গুলিবর্ষণকারী সাদা পাজামা-পাঞ্জাবি ও টুপি পরা যুবকটি জাহিদ। সঙ্গে ছিলেন আরও কয়েকজন। উত্তরায় জসীমউদ্দীন রোডের একটি ক্লিনিক থেকে পায়ে গুলিবিদ্ধ ও পাজামা-পাঞ্জাবি পরা অবস্থায় জাহিদকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে আরও পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

হাবিবুর রহমান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জাহিদ স্বীকার করেছেন, ব্যক্তিগত ও দলীয় কোন্দলের কারণে তিনি রিয়াজুলকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। ধারণা করা হচ্ছে, রিয়াজুলকে লক্ষ্য করে সহযোগীদের ছোড়া গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে জাহিদের পায়ে লেগেছে।

র‌্যাবের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, সোমবার রাতে রিয়াজুল রাজধানীর মোহাম্মদপুর স্যার সৈয়দ রোড এলাকার বাসা থেকে ব্যক্তিগত গাড়িযোগে ঈদের কেনাকাটা করতে গুলশান-১-এ ‘শপার্স ওয়ার্ল্ড’ নামের একটি বিপণিবিতানে যান। রাত একটার দিকে বিপণিবিতানের সামনে নেমে ভেতরে ঢোকার আগ মুহূর্তে সন্ত্রাসীরা গুলি ছোড়ে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে গুলশানের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় রিয়াজুলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

মাথার ডান বরাবর, বাঁ চোখের পাশে ও নিচে, পিঠে ও বাঁ পাঁজরে একটি করে গুলির ছিদ্র রয়েছে বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন।

রিয়াজুলের মা জাহানারা এরশাদ বলেন, সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাইরে থেকে বাসায় ফেরেন রিয়াজুল। কিছুক্ষণ পর একজন ফোন করে তাঁকে গুলশানে যেতে বলেন। এরপর মারুফ হাসান সাগর নামের একজনের গাড়িতে করে গুলশানে যান। রিয়াজুলের নিজের গাড়ি থাকলেও তিনি তা নিয়ে যাননি।

মারুফ সাংবাদিকদের বলেন, তিনি রিয়াজুলকে চাচা বলে ডাকতেন। সব সময় তাঁর সঙ্গে ঘুরতেন তিনি। বিপণিবিতানের সামনে গাড়ি থেকে রিয়াজুল নামার পর একজন মুখোশধারীসহ চার যুবক তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালান।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, প্রথম গুলিতেই ছটফট করতে করতে কুঁজো হয়ে বিপণিবিতানের সামনের সড়কে হুমড়ি খেয়ে পড়েন রিয়াজুল। এরপর এলোপাতাড়ি গুলি চালানো হয়। তখনই দুটি মোটরসাইকেলে কয়েকজন যুবক ঘটনাস্থলে আসেন। তাঁদের একজন আবারও রিয়াজুলকে লক্ষ্য করে কয়েকটি গুলি করেন। এরপর সবাই মোটরসাইকেল নিয়ে পূর্ব দিকের সড়ক ধরে চলে যান। এ ঘটনার পর পথচারীদের ছোটাছুটি শুরু হয়। বিপণিবিতানের মূল ফটক বন্ধ করে দেওয়া হয়। অনেকক্ষণ ধরে রিয়াজুল সড়কেই পড়ে ছিলেন।

যুবলীগের কয়েকজন নেতা-কর্মী প্রথম আলোকে বলেন, মতিঝিলের ১০ নম্বর ওয়ার্ডের যুবলীগের সাবেক সভাপতি ছিলেন রিয়াজুল। মাস দুয়েক আগে নতুন কমিটিতে মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ পান তিনি। সোমবার রাতে মতিঝিলের এজিবি কলোনিতে বন্ধু ও দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আড্ডা দিয়ে বাসায় ফেরেন তিনি। রিয়াজুলের বাবা আরশাদ উদ্দিন হাইকোর্টের আইনজীবী। মতিঝিলের এজিবি কলোনিতে তাঁরা একসময় থাকতেন। রিয়াজুলের জন্ম, বেড়ে ওঠা, রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড—সবকিছুই মতিঝিলে।

রিয়াজুলের মা জাহানারা বলেন, মতিঝিলে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের সূত্রে জাহিদের সঙ্গে রিয়াজুলের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। অনেক বছর ধরে সম্পর্ক বলে তিনি জাহিদকে চিনতেন। তবে রাজনীতি ছাড়া রিয়াজুল কার সঙ্গে কী করতেন, তা তিনি জানেন না।

যুবলীগের একজন নেতা প্রথম আলোকে বলেন, রিয়াজুলের রাজনৈতিক ঘনিষ্ঠ ছোট ভাই হচ্ছেন জাহিদ। বছর দেড়েক আগে ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিলে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রিয়াজুল। এ নিয়ে মতিঝিলের আওয়ামী লীগের এক নেতার সঙ্গে তাঁর দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। এ ছাড়া কমিটিতে পছন্দের লোক নেওয়া না-নেওয়া, বাড্ডা এলাকার নিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন বিষয়ে দলের কয়েকজন নেতার সঙ্গে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। ধীরে ধীরে তা চরম আকার ধারণ করে। এ ছাড়া রিয়াজুলের এক অপছন্দের লোক বাড্ডা যুবলীগের ওয়ার্ড কমিটিতে স্থান পান। এতে রিয়াজুল বিরোধিতা করায় ওই নেতাও তাঁর ওপর ক্ষিপ্ত ছিলেন। এভাবে একদিকে তাঁর বিশাল শত্রুপক্ষ গড়ে ওঠে, অন্যদিকে ঠিকাদারি নিয়ন্ত্রণ, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে জাহিদের সঙ্গে দূরত্ব সৃষ্টি হয়।

পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে রিয়াজুল চতুর্থ। গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জে। গতকাল বিকেলে ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে ময়নাতদন্তের পর পরিবারের কাছে রিয়াজুলের লাশ হস্তান্তর করা হয়।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় রিয়াজুলের ভাই মেজর রাশিদুল হক খান একটি হত্যা মামলা করেছেন। এ মামলায় জাহিদসহ ১১ জনের নাম উল্লেখ করে আসামি করা হয়েছে।

জাহিদসহ কয়েকজনকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে জানতে চাইলে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ প্রথম আলোকে বলেন, পুলিশের তদন্তে অপরাধ প্রমাণিত হলে সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিএনপি নেতা হত্যা: সোমবার রাতে মোটরসাইকেল আরোহী দুজন ৫৮ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক জসিমউদ্দিনকে (৫০) গুলি করে হত্যা করে। হাজারীবাগে নবীপুরে জসিমের বাসার সামনে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল পর্যন্ত ঘটনার কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ। তবে বিএনপি এই হত্যাকাণ্ডের জন্য আওয়ামী লীগকে দায়ী করেছে। গতকাল রাতে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা হয়েছে।

হাজারীবাগ থানার ওসি ইকবাল হোসেন বলেন, পুলিশ হত্যাকাণ্ডের কারণ এখনো স্পষ্ট করতে পারেনি। স্বজনদের কাছ থেকেও কোনো তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না।

তবে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক বিবৃতিতে দাবি করেন, আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা জসিমউদ্দিনকে গুলি করে হত্যা করেছে।

‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুজন নিহত: কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ কথিত দুই ছিনতাইকারী নিহত হয়েছেন। র‌্যাব-১০-এর কেরানীগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, গত সোমবার রাত একটার দিকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ঢাকা-মাওয়া সংযোগ সড়কে ঝিলমিল আবাসনসংলগ্ন এলাকায় র‌্যাবের একটি দল টহল দিচ্ছিল। এ সময় একটি সাদা রঙের গাড়িকে চেকপোস্টের দিকে আসতে দেখে থামার সংকেত দেওয়া হয়। তাঁরা চেকপোস্টের কাছে না থেমে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হয়ে মো. সবুজ (২৫) ও সাগর আহমেদ (৩৮) মারা যান।

কেরানীগঞ্জ থানার ওসি শাখাওয়াত হোসেন জানান, সবুজ ও সাগরের বিরুদ্ধে যাত্রাবাড়ী, কদমতলী ও শ্যামপুর থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

কোতোয়ালি ও কদমতলীতে দুই হত্যা: গতকাল কোতোয়ালি ও কদমতলীতে মোহাম্মদ আলী নওশাদ (৩৪) ও আবু সালেহ শাহীন (২৭) নামের দুজন খুন হন।

মোহাম্মদ আলীর পরিবারের বরাত দিয়ে কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু হাসান প্রথম আলোকে বলেন, মোহাম্মদ আলীর এক আত্মীয় স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও মিটফোর্ড হাসপাতালের পেছনে ভাঙারির ব্যবসা করেন। গতকাল বিকেলে দুই যুবক সেখানকার দোকানে ঢুকে মোহাম্মদ আলীকে গুলি করে চলে যান।

আবু হাসান আরও জানান, ডাকাতির প্রস্তুতির অভিযোগে মোহাম্মদ আলীর বিরুদ্ধে ওয়ারী থানায় মামলা রয়েছে। তিনি জামিনে ছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে, অভ্যন্তরীণ কোন্দলে এ ঘটনা ঘটেছে।

কদমতলী থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, গতকাল রাতে কদমতলীর পূর্ব জুরাইনে কথা-কাটাকাটির জের ধরে কয়েকজন যুবক আবু সালেহকে কুপিয়ে হত্যা করেন। আবু সালেহ পূর্ব জুরাইনে নিজের বাসায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT