টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

মানববন্ধনোত্তর সমাবেশে বক্তাদের অভিমত কক্সবাজারবাণীর মস্বফল সম্পাদক

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৩ অক্টোবর, ২০১৩
  • ১০১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

উপর হামলাকারী সন্ত্রাসী মেডিকেল অফিসারকে আইনের আওতায় আনা হচ্ছেনা কেন? ফরিদুল মোস্তফা খান, কক্সবাজার :::::কক্সবাজারবাণীর মস্বফল সম্পাদক এম. আমান উল্লাহর উপর সন্ত্রাসী হামলায় জড়িত সিভিল সার্জন অফিসের ঘুষখোর, ভূমিগ্রাসী, সন্ত্রাসী ও বহু মামলার আসামি ডাঃ আব্দুস ছালামের অপসারণ ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে কক্সবাজারের সুশীল সমাজ। রবিবার সকাল সাড়ে ১১টায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে সুশীল সমাজের পক্ষে মানববন্ধনকারীরা ঘটনার দীর্ঘ সময়েও সাংবাদিক হামলায় জড়িত সন্ত্রাসী মেডিকেল অফিসারের বিরুদ্ধে পুলিশ মামলা রেকর্ড না করায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। এ সময় বক্তারা উক্ত সন্ত্রাসী মেডিকেল অফিসার ডাঃ আব্দুস ছালামের অপসারণ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করে বিুব্ধ হয়ে উঠেন। বিুব্ধ বক্তারা অবিলম্বে কক্সবাজারবাণীর মস্বফল সম্পাদক এম. আমান উল্লাহর উপর হামলায় জড়িত ভূমিগ্রাসী, ঘুষখোড়, চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসী ডাঃ আব্দুস ছালাম এর অপসারণ ও শাস্তির দাবি জানান। মানববন্ধনে বক্তারা আরো বলেন, আহত সাংবাদিক এম. আমান উল্লাহর উপর যে সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়েছে তা একটি বর্বররোচিত, রাষ্ট্রদ্রোহিত ও ন্যাক্কারজনক ঘটনা। তাই এতে জড়িত সন্ত্রাসীকে আইনের আওতায় না আনা মানে তাকে আরো সন্ত্রাসী বানাতে উৎসাহ দেয়ার শামিল। বর্তমান সরকার আমলে সরকার দলীয় এমপি কর্তৃক সাংবাদিক পিটুনির ঘটনায় যদি জড়িত সাংসদ জেল খাটেন, তাহলে সিভিল সার্জন অফিসে চাকরীর আড়ালে এত অপকর্মের নায়ক ডাঃ আব্দুস ছালামকে কোন শাস্তির আওতায় আনা যাবেনা? কাজেই বিলম্বে হলেও বক্তারা কক্সবাজার প্রশাসনের সৃদৃষ্টি কামনা করে বলেন, আপনারা যদি আমাদের জীবনের নিরাপত্তা না দেন? তাহলে আমরা সাংবাদিক সমাজ যাবো কোথা? মত প্রকাশের অবাধ স্বাধীনতার যুগে একজন অপরাধীর বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশিত হয়, তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে আইন হাতে তুলে নিতে পারেন না। কিন্তু অবাক বিষয় হচ্ছে, ডাঃ আব্দুস ছালাম নামের এই সন্ত্রাসী তার বাহিনী নিয়ে রাজপথে প্রকাশ্যে একজন সাংবাদিকের উপর হামলা করে পার পেয়ে যাচ্ছেন, সে ব্যাপারেও প্রশাসনের কাছে প্রশ্ন রেখে মানববন্ধনকারীরা এ ব্যাপারে উচ্চ পর্যায়ের তড়িৎ হস্তক্ষেপ কামনা করেন। উল্লেখ্য, কক্সবাজার সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার সেই বহুল আলোচিত-সমালোচিত ডাঃ আব্দুস ছালাস গত শুক্রবার সাংবাদিক আমান উল্লাহর উপর হামলা চালায়। ফলে আহত সাংবাদিক আমান উল্লাহ বাদি হয়ে ওইদিন রাতেই জড়িত সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে সদর মডেল থানায় এজাহার জমা দেন। কিন্তু ঘটনার দুই দিন অতিবাহীত হয়ে রবিবার পর্যন্ত মামলাটি রেডর্ক না হওয়ায় মানববন্ধনকারীরা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করে।

 

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT