টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

মহেশখালী সোনাদিয়াতে বিখ্যাত শুটকি মাছের উৎপাদন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১২
  • ১৬৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মহেশখালী নিজস্ব প্রতিনিধি….মহেশখালী সোনাদিয়াতে বিখ্যাত শুটকি মাছের উৎপাদন হচ্ছে। মহেশখালী সোনাদিয়া বঙ্গ সাগরের বুকে অবস্থিত সোনাদিয়ার চরে হাজার হাজার মৎস্যজীবি জেলেদের বাছাই-বাসা ও মৎস্যজীবি ব্যবসায়ীদের বাছাই-বাসা তৈরী করে ফিশিং বোট রাখিয়া সাগরে জাল বসাইয়া এই মাছগুলি সোনাদিয়ার চরে আনিয়া শুকায়। এই মাছগুলি শুকাইয়া শুটকিতে পরিণত করে, এই শুটকি মাছ লক্ষ লক্ষ টাকা রোজি-রোজগার করিয়া থাকে মৎস্যজীবি জেলে ও মৎস্য ব্যবসায়ীগণ। এই সব মাছের মধ্যে চুরি মাছ, লইঠ্যা মাছ, ফাসিয়া মাছ, রুপচাদা মাছ, কামিলা মাছ, লাক্ষ মাছ, করতি মাছ, রুপসা মাছ, সুরমা মাছ ও বিভিন্ন জাতের মাছ, পৃথিবীর সেরা সাগরের চিংড়ী যাকে বলে লতাকানি চিংড়ী মাছ। আরো বহু প্রজাতির সাগরের মাছ ইত্যাদি। প্রতিদিন এই সোনাদিয়ার চরে ফিশিং বোট ও অন্যান্য নৌকা বিভিন্ন জাতের নৌকার মাছ ক্রয় ও বিক্রয় হয় প্রায় অনুমান ১ কোটি টাকারও বেশি। এই মূল্যবান মাছগুলি রোদ্রে শুকাইয়া চট্টগ্রামের আছতগঞ্জ, ঢাকা, সিলেট, এবং দেশের বড় বড় শহরে আমদানি রপ্তানি করা হয়। এরপরেও বিদেশে কোটি কোটি টাকার শুকটি মাছ রপ্তানি করিয়া থাকে। তবে কক্সবাজারের নাজিরার টেক, ধলঘাটার সাপমারার ডেইল, পটুয়াখালী জেলা, খুলনা জেলা, রাঙ্গাবালী, বাহারখিল্লা, ভিতরখিল্লা চরেও এভাবে সোনাদিয়ার চরের মত মাছ শুকায় কোটি কোটি টাকার।

সোনাদিয়ার জাম্বু বাহিনীর জলদস্যুতা, ডাকাতি ও নিযার্তনে বঙ্গোপসাগরের জেলেরা আতঙ্কিত

মহেশখালী নিজস্ব প্রতিনিধি-০৮ ডিসেম্ভর

সোনাদিয়ার জাম্বু বাহিনীর ডাকাতি ও নিযার্তনে বঙ্গোপসাগরের জেলেরা আতঙ্কিত অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে। শীত মৌসুম আসার সাথে সাথে বিভিন্ন স্থান থেকে হত্যা মামলার, অস্ত্র মামলার, অস্ত্রধারী আসামী, ফেরুয়ারী, লুন্ঠন, ডাকাতি, খুন, অপহরণে বঙ্গপোসাগরের মৎস্যজীবি বিভিন্ন জেলেরা আতঙ্কিত অবস্থায় আছে। স্থানীয় সূত্রে খবর পাওয়া যায়, মোকারম মিয়া প্রকাশ (জাম্বু ডাকাত) পিতা- বাহাদুর মিয়া, সাং- সোনাদিয়া, কুতুবজোম দীর্ঘদিন মহেশখালীতে সাগরে ফিশিং বোট ডাকাতি করিয়া আসিতেছে। এদিকে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিগত ১ মাসের ভিতরে প্রায় ২২টি সাগরে ডাকাতি, অপহরণ, মুক্তিপন করিয়া যাইতেছে বীরদর্পে। বিগত বাশখালী, আনোয়ারা, পটিয়া, চট্টগ্রাম, মহেশখালী, খুরুশকুল বিভিন্ন জায়গায় জেলেদের ফিশিং বোট ডাকাতি করিয়াছে। ডাকাতি করিয়া মাছ লুন্ঠন ফিশিং বোটের যাবতীয় সবকিছু লুন্ঠন মাঝিমাল্লাদের বেধম মারধর সাগরের নিক্ষেপসহ বহু গুম, খুন করিয়াছে। আরেক সূত্রে জানা যায়, বর্তমান সোনাদিয়ার মেম্বার আব্দুল গফুর প্রকাশ (নাগু) মেম্বার এর ছত্র ছায়ায় এসব ডাকাতি জলদস্যুতা করিয়া যাইতেছে। বিগত ৮ নভেম্বর ও ডিসেম্বর প্রায় সাগরে বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, ৪টি স্পীড বোট, ২টি ফিশিং বোট, করে অতর্কিত ভাবে অস্ত্রধারী প্রায় ৮০ জনের অস্ত্রধারী সংঘবদ্ধ দল সাগরে জলদস্যুতা ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করিতেছে। এসবের নেতৃত্ব রাগব বোয়ালেরা ধরা ছোয়ার বাহিরে রইয়াছে। উর্ধতন প্রশাসনের কাছে আর কত মায়ের বুক খালি করবে এই জাম্বু বাহিনীর ডাকাতির কবলে। এসবের কি পরিত্রাণ পাব।

 

শ্রী শ্রী স্বামী অচ্যুতানন্দ পুরী মহারাজের ৯২তম আভির্ভাব দিবস উপলক্ষ্যে ৩ তিনদিন ব্যাপী সার্বজনীন মহতী ধর্মসভা মোনোজ্ঞ সংগীতানুষ্টান ও অষ্টপ্রহর মহানাম যজ্ঞ অনুষ্টিত হচ্ছে।

মহেশখালী নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ৮ই ডিসেম্ভর ২০১২ইং

শ্রী শ্রী স্বামী অচ্যুতানন্দ পুরী মহারাজের ৯২তম আভির্ভাব দিবস উপলক্ষ্যে ৩ তিনদিন ব্যাপী সার্বজনীন মহতী ধর্মসভা মোনোজ্ঞ সংগীতানুষ্টান ও অষ্টপ্রহর মহানাম যজ্ঞ অনুষ্টিত হচ্ছে। ৯ই ডিসেম্ভর সকাল ১০ ঘটিকায় হতে ১০ইং, ১১ইং, ডিসেম্ভর বেলা ৩ ঘটিকা পর্যন্ত। এতে সভাপতি করবেন ঃ শ্রী মন্ত দে। সঞ্চালনা করবেন ঃ শ্রী যুক্ত বাবু সুজন কান্তি দে। সমগ্র অনুষ্ঠান পৌরহিত করবেন ঃ ঋষিকুল শিরমনি শ্রীমৎ স্বামী নারায়ণ পুরী মহারাজ, মোহন্ত মহারাজ, তুলসীধাম, নন্দনকানন, চট্টগ্রাম ও অধিপতি, ঋষিধাম-বাঁশখালী, প্রফুল্লধাম, খুরুশকুল, কক্সবাজার।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন, আলহাজ মকসুদ মিয়া, মেয়র মহেশাখালী পৌরসভা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন, সরওয়ার আজম বি,এ সাবেক মেয়র মহেশখালী পৌরসভা। ধর্মীয় আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শ্রীযুক্ত বাবু বিষ্ণু পদ দে (প্রধান শিক্ষক চট্টগ্রাম), শ্রী আশীষ চক্রবর্তী (মহেশখালী ডিগ্রী কলেজ), শ্রী যুক্ত বাবু ভুবন চন্দ্র দে (প্রভাষক মহেশখালী ডিগ্রী কলেজ), শ্রী যুক্ত বাবু কমল কৃষ্ণ ঘোষ (আদিনাথ ঠাকুরতলা), শ্রীযুক্ত বাবু প্রতীক চন্দ্র দে (পানিরছড়া উচ্চ বিদ্যালয়), স্থান ঃ শ্রী শ্রী রাজশ্বরী রক্ষাকালী মন্দির প্রাঙ্গন স্বর্গীয় বাঁশি রামের বাড়ী, আদিনাথ ঠাকুরতলা মহেশখালী। দেশের বিভিন্ন স্থর থেকে ধর্মীয় সরণীয় বাণী শ্রবণের জন্য আগমনের অনুরোধ রইল।

 

ছবি আছে।

 

 

মাতারবাড়ী ইউনিয়ন শ্রমিক লীগ সভাপতি ও যুবলীগ সহ-সভাপতিকে মিথ্যা বানোয়াট মামলা থেকে অব্যাহতির আবেদন করেছে বিভিন্ন সংগঠন।

নিজস্ব প্রতিনিধি, মহেশখালী- ৮ ডিসেম্বর।

মাতারবাড়ী ইউনিয়ন শ্রমিক লীগ সভাপতি ও যুবলীগ সহ-সভাপতির মিথ্যা বানোয়াট মামলা থেকে অব্যাহতি আবেদন করেছে বিভিন্ন সংগঠন। মাতারবাড়ী ইউনিয়নের শ্রমিক লীগের সভাপতি ও যুবলীগের সহ সভাপতি ফরিদুল আলমকে অহেতুক মিথ্যা ভিত্তিহীন বানোয়াট মামলায় ১২ নং বিবাদী করিয়া মামলা দিয়াছে। উক্ত মামলা থেকে মহেশখালীর জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের আদলত থেকে স্ব-শরীরে হাজির হইয়া জামিন মঞ্জুর হইয়াছে। ফরিদুল আলম জানে না যে, তাকে মামলা দিয়াছে। মামলা নং- ৯২/২৯, তারিখ- ২০/০৬/২০১০। বাদী আবদুল খালেক, পিতা- মৃত আলী হোছন, সাং- মন হাজিরপাড়া, মাতারবাড়ী। ফরিদুল আলম, পিতা- ইসলাম মিয়া, সাং- সিকদারপাড়া, মাতারবাড়ী। উক্ত মামলা অহেতুকভাবে ১২ নং বিবাদী করে মামলা দিয়াছে। অথচ তার সহিত আমি ফরিদুল আলমের কোন শত্রুতামিও নাই এবং ভালবাসাও নাই। সে এক গ্রামের আমি এক গ্রামের। আমি আওয়ামীলীগ পরিবারের জন্মলগ্ন থেকেই জড়িত। তাই অনর্থক, অহেতুক আমি জানিনা আমার বিরুদ্ধে মামলা দিয়াছে। মাতারবাড়ী শ্রমিক লীগের ও যুবলীগের, মহেশখালী পৌরসভার আওয়ামীলীগের ও অন্যান্য সংগঠনের মিথ্যা ভিত্তিহীন মামলা থেকে ফরিদুল আলমকে অব্যহতি দানের অনুরোধ করিতেছি।

 

মোহাম্মদ সিরাজুল হক সিরাজ

০১৭২৭৬২৮২৯৫

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT