টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সম্ভাব্য সংসদ সদস্য প্রার্থীরা গ্রামেগঞ্জে চষে বেড়াচ্ছেন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৩
  • ১১১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

moheskhali copyএম রমজান আলী,মহেশখালী: মহেশখালীঃ সংসদ নির্বাচন কে সামনে রেখে (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) সম্ভাব্য প্রার্থীরা গ্রামেগঞ্জে চষে বেড়াচ্ছেন। ককসবাজার জেলার সংসদীয় আসন-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) প্রায় ৪ লক্ষাধিক ভোটার ঘিরে প্রার্থীরা নানা কৌশলে নির্বাচনী প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে। যেমনি ভাবে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা, ডিজিটাল ব্যানার, পোষ্টারিং, দেয়াল লিখন, ঈদ কার্ড, ঈদ সেলামী লুঙ্গী, শাড়ি, পায়জামা-পাঞ্জাবী, শার্ট, পেন্ট, চিনি, সেমাই সহ যাবতীয় কিছু বিতরন বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ বৃদ্ধি পাশাপাশি দল গোছানো উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটি গঠন। প্রাপ্ত তথ্যমতে, জামায়াতে মহেশখালী-কুতুবদিয়ার একক প্রার্থী, বর্তমান সংসদ সদস্য, এলাকার উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ড ও দলীয় নেতাকর্মীরা সক্রিয় ভাবে দল গোছানো ও সু-কৌশলে নির্বাচনী প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাওয়া ও ১৮ দলীয় জোটের প্রভাবশালী শীর্ষ নেতা হওয়ায় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরীর নায়েবে আমীর এ এইচ এম হামিদুর রহমান আষাদ ভাল অবস্থানে। পাশাপাশি প্রধান বিরোধী দলীয় জোটের অন্যতম শরীক দল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রতিষ্টাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের একান্ত সহচর তৎকালীন ককসবাজার মহেশখালীর সাবেক সফল সাংসদ এবং বৃহত্তর চট্রগ্রামের সাবেক ডিডিসি (উপমন্ত্রী) রশিদ মিয়ার পুত্র বিশিষ্ট ব্যবসায়ী অধ্যাপক জেড,এম,গোলাম মোস্তফার স্ত্রী পরিবেশ ও সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা (ইএসডিও) চট্রগ্রাম জেলার চেয়ারম্যান ও জাতীয় মানবাধিকার কাউন্সিল ককসবাজার জেলা সভাপতি এবং মহেশখালী-কুতুবদিয়ায় বিএনপি থেকে একমাত্র মহিলা সম্ভাব্য সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী আলহাজ্ব শামীম মোস্তফা মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সর্বস্থরের জনগনের সাথে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা ও গনসংযোগ কালে জনগনের একান্ত দাবী সাবেক সফল সাংসদ রশিদ মিয়ার শাসন আমল ফিরে পেতে তার পুত্রবধূ বিশিষ্ট ব্যাংকার শামীম মোস্তফার বিকল্প নাই। তাদের জবাবে শামীম মোস্তফা বলেন, আপনাদের সার্বিক সহযোগীতা ও এ আসনে নির্বাচিত হলে এলাকার ও জনগনের আর্মূল পরিবর্তন করব ইনশাল্লাহ। বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও দুই দুই বারের সাবেক সফল সাংসদ আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজুল্লাহ ফরিদ মহেশখালী-কুতুবদিয়ার গ্রামেগঞ্জে সর্বস্তরের জনগনের সাথে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা বিনিময় ও গনসংযোগ কালে সকল স্তরের লোকের প্রিয় নেতা কে একনজর দেখার জন্য ও আগামীবারে সাংসদ হিসাবে পাওয়ার জন্য ব্যাকুল। আওয়ামীলীগ তথা মহাজোটের প্রার্থী আর্ন্তজাতিক পরিবেশ বিজ্ঞানী ও জেলা নেতা ড. আনচারুল করিম ২০০৮ সালে অনুষ্টিত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামায়াতের প্রার্থীর কাছে ১৭ হাজার ২শত ৭৩ (এ এইচ এম হামিদুর রহমান আযাদ (১০৪২১৭) আওয়ামীলীগের ড. আনচারুল করিম (৮৬৯৪৪) ভোটে পরাজিত হলে ও এবারে আগের সমস্যা গুলি কেটে উঠেছে নেতাকর্মীদের বুকভরা আশা এবারে বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হয়ে মহেশখালী-কুতুবদিয়াকে ডিজিটাল এলাকায় পরিনত করবে। দীর্ঘ দিন ধরে মাঠে থাকা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা মাটি ও মানুষের প্রিয় নেতা ,বঙ্গবন্ধু সাহিত্য পরিষদ কেন্দ্রীয় সভাপতি ও বিশিষ্ট কলামিষ্ট সমাজ বিজ্ঞানী সাদত উল্লাহ খাঁন হাজার হাজার নেতাকর্মী নিয়ে মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সর্বস্থরের জনগনের ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা বিনিময় ও ব্যাপক গনসংযোগকালে জনগনের প্রানের দাবী গুনে ধরা সমাজ ও এলাকার পরিবর্তন করতে হলে আপনার মত সময়ের সাহসী সন্তান ও শিক্ষানুরাগী নিতান্তই প্রয়োজনী। জাতীয়পার্টি (এরশাদ) থেকে মহেশখালী-কুতুবদিয়ায় শতভাগ নিশ্চিত লাঙল প্রতীক নিয়ে সম্ভাব্য সংসদ সদস্য প্রার্থী কেন্দ্রীয় নেতা, ককসবাজার জেলা জাতীয়পার্টি আহবায়ক ও সী কুইনের সত্বাধিকারী মালিক আলহাজ্ব কবির আহমদ সওদাগর ও তার দলীয় নেতাকর্মীরা মাঠে ময়দানে চষে বেড়াচ্ছেন। এ ছাড়া ও যাদের নাম শুনা যাচ্ছে আওয়ামীলীগ থেকে-জেলা নেতা আশেক উল্লাহ রফিক, এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা ও হোছাইন ইব্রাহিম, বিএনপি থেকে-সাবেক সাংসদ, কুতুবদিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা নেতা এটিএম নুরুল বশর চৌধুরী, মহেশখালী উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবু বক্কর ছিদ্দিক ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সম্পাদক ফরিদ মিয়া আরমান। জাতীয় পার্টি থেকে আ ন ম শহীদ উদ্দীন (ছোটন)। ও মহাজোট থেকে বাংলাদেশ ইসলামী জোট জেলা নেতা ও বিশিষ্ট সাংবাদিক ডাক্তার মৌলানা রুহুল কাদের। উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব আনোয়ার পাশা চৌধুরী জানান, গনতন্ত্র দেশে প্রত্যেকের অধিকার আছে সেই হিসাবে সকলে দাবীদার এরপর ও কেন্দ্রীয় হাইকমান্ড যাকে সিলেক্টেট করে তাকে আমরা সমর্থন দিয়ে তার সাথে স্ব-দল বলে কাজ করে যাব। উপজেলা বিএনপি সভাপতি এডভোকেট মোহাম্মদ নুরুল আলম জানান,ককসবাজার জেলায় দ্বিধাবিভক্ত দেখা দিলে ও কেন্দ্রীয় ভাবে কোন ধরনের বিভক্তি নাই সেই হিসাবে আমরা মুলধারার অনুসারী এরপর ও ১৮ দলীয় জোট নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া তথা জোটগত ভাবে যাকে মন্নোয়ন দে স্ব-দল বলে তার পক্ষ হয়ে কাজ করব। উপজেলা জামায়াত দক্ষিন আমীর জাকের হোসাইন জানান,বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী গনতন্ত্রের বিশ্বাসী জাতীয়তাবাদী ও ইসলামী মুল্যবোধ কে রক্ষা করতে প্রয়োজনে শরীরের শেষ রক্ত বিন্দু দিয়ে হলে ও প্রতিষ্টা করব এবং ১৮ দলীয় জোটগত ভাবে যাকে সিলেক্টেট করে তার সাথে স্ব-দল বলে কাজ করে যাব তাতে কোন ধরনের সন্দেহের অবকাশ নাই। উপজেলা জামায়াত উত্তর আমীর আব্দুল মুবিন জানান,জামায়াত ইসলামী একটি ক্যাডার ভিত্তিক সংগঠন সবসময় কেন্দ্রীয় কমান্ড কেরি করে জামায়াত ইসলামী ১৮ দলীয় জোটের একটি অন্যতম শরীক দল সেই হিসাবে জোট গত ভাবে যাকে মন্নোয়ন দে তার পেছনে স্ব-দল বলে একনিষ্ট ভাবে কাজ করে যাব। উপজেলা জাতীয় পার্টি (এরশাদ) সভাপতি নাজিম উদ্দীন ও উপজেলা প্রভাবশালী নেতা মাহবুব জানান, পল্লীবন্ধু হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ সাবেক সফল প্রেসিডেন্ট তারই মনোনীত একমাত্র মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সাংসদ পদপ্রার্থী কবির আহমদ সওদাগরের পেছনে স্ব-দল বলে কাজ করে যাব।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT