টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

মদিনা সনদে দেশ চললে সুরঞ্জিতের হাত কাটতে হয় : বাবুনগরী

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০১৩
  • ১১২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

top_36422013-07-24_শীর্ষ নিউজ ডটকম, চট্টগ্রাম : ‘প্রধানমন্ত্রী হতে চাওয়ার’ তথ্যকে মিথ্যা ও অপপ্রচার দাবি করে হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব হাফেজ আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী বলেছেন, রিমান্ডে তিনি নির্যাতনের পরও এ ধরনের কোনো স্বীকারোক্তি দেননি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, অপনার কথামতো মদিনা সনদ অনুযায়ী দেশ চললে চুরির জন্য প্রথমেই দফতরবিহীন মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের হাত কেটে নিতে হবে।

বুধবার নগরীর লালখানবাজার মাদ্রাসায় হেফাজতে ইসলাম চট্টগ্রাম মহানগরী শাখা আয়োজিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাফেজ বাবুনগরী এসব কথা বলেন।

হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব বলেন, সংবিধানে আল্লাহর ওপর আস্থা ও বিশ্বাস পুনঃস্থাপনসহ ১৩ দফা দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত হেফাজতে ইসলাম আন্দোলন চালিয়ে যাবে। যারা আল্লাহ ও রাসুলের আবমাননা করেছে সেইসব নাস্তিক মুরতাদদের ঠাঁই বাংলার মাটিতে হবে না। তাদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত লাখ লাখ তাওহীদি জনতা বুকের রক্ত দিয়ে লড়াই করে যাবে।

শারীরিকভাবে অসুস্থ বাবুনগরী হুইল চেয়ারে করে ইফতার মাহফিলে যোগ দেন। তিনি বলেন, বিনা অপরাধে আমাকে সরকার ৩১ দিন রিমান্ডে নিয়েছে। আমরা কারো পক্ষে নই, বিপক্ষেও নই। ইসলামের পক্ষে কথা বললে কারো যদি গায়ে আগুন লাগে তার জন্য আমরা দায়ী নই।

বাবুনগরী বলেন, রিমান্ডে আমাকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল হেফাজতে ইসলাম নাকি গদি দখল করতে চেয়েছিল, আর আমি নাকি প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছি। আমি তাদের বলেছি, গদির জন্য নয়, ইসলাম রক্ষার জন্য আমাদের আন্দোলন। আলেম-ওলামাদের সম্মান প্রধানমন্ত্রীর গদির চাইতে শতগুণ বেশি।

গত ৫ মে ঢাকায় হেফাজতে ইসলামের সমাবেশে হামলার বিচার দাবি করে তিনি বলেন, আমরা যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের বিরোধী নই। আমরাও চাই সকল অপরাধের বিচার হতে হবে। ৪০ বছর পরে যদি কারো অপরাধের বিচার হতে পারে তাহলে কয়েক মাস আগে হেফাজতে ইসলামের শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচিতে চালানো হত্যাকা-ের কেন বিচার হবে না!

হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর মাওলানা মহিব্বুল্লাহ বাবুনগরীর সভাপতিত্বে ও আজিজুল হক ইসলামবাদীর উপস্থাপনায় ইফতার মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আল্লামা সুলতান যওক নদভী, হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর মুফতি ইজহারুল ইসলাম চৌধুরী, মাওলানা আবদুল মালেক হালিম, কুষ্টিয়া ইসলামিক ইউনিভার্সিটির সাবেক ভিসি ড. ইনাম উল হক, হাফেজ আহমদুল্লাহ, সৈয়দ আবু নোমান প্রমুখ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা এসএম ফজলুল হক, নগর বিএনপির সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান, অ্যাড.আবদুস সাত্তার, আবুল হাশেম রাজু, জাগপা নগর সভাপতি আবু মোজাফফর মোহাম্মদ আনাছ, হুম্মাম কাদের চৌধুরী প্রমুখ। ইফতার মাহফিলে ৫ মে ঢাকায় অবস্থান কর্মসূচিতে নিহত ও আহতদের উদ্দেশ্যে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT