টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

বিদ্যুতের লুকোচুরিতে ওষ্ঠাগত জনজীবন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৬ আগস্ট, ২০১৩
  • ১১২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

কাফি আনোয়ার,সদর প্রতিনিধি :::::শ্রাবনেও চৈত্রের খরা। মেঘ-রৌদ্রের ফাঁকে  কণা কণা আগুন ঢালছে আকাশ। তার উপর বিদ্যুতের আসা-যাওয়ার মাঝে দীর্ঘ বিরতি। দুর্বিসহ গরমে নাভিশ্বাস উঠেছে জনজীবনের প্রতিটি পরতে। ফলে বিদ্যুৎনির্ভর সকল কর্মকান্ডে নেমেছে স্থবিরতা । ঈদপূর্ব সময়ে  ব্যস্থ দর্জিবাড়ি  থেকে শুরু করে  সর্বত্র চলছে নীরব হাহাকার, যা পরিনত হচ্ছে ােভে । বিদ্যুৎ বিভ্রাটের ওই চিত্র  নাগরিক জীবনের সকল স্থানে । বিভিন্ন সুত্র থেকে জানা যায় , বিদ্যুতের লুকোচুরির মাত্রা   রমজানে মাসে স্বাভাবিকভাবে  হ্রাস পাওয়ার কথা থাকলেও  প্রকৃতপে  তা হয়নি । বরং ত্রেবিশেষে বিদ্যুতের আসা-যাওয়া বৃদ্ধি পেয়েছে বলে মনে করছেন অনেক গ্রাহকভোক্তা। তবে বদলেছে  বিদ্যুৎবিভ্রাটের ধরন। রমজানের পূর্বে  ছিল বিদ্যুতের ঘন ঘন আসা-যাওয়া আর এখন একবার গেলে আসে দীর্ঘ বিরতি নিয়ে । বিশেষ করে ইফতার ও সাহরীর আগে ও পরে ওই আসা যাওয়ার মাত্রা সবচেয়ে বেশী  ল্য বলে জানা গেছে ।  ঈদগাঁও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সুত্রে জানা যায় , গতকাল ঈদগাঁও উপকেন্দ্রের আওয়াতাধীন ইসলামপুর , জালালাবাদ , পোকখালি , ভারুয়াখালি , ইসলামাবাদ , চৌফলদন্ডী ,    ঈদগড় ও ঈদগাঁও বাজার এলাকায়  সারাদিন বিদ্যুতের চাহিদা ছিল পাঁচ মেগাওয়াট । তারমধ্যে দুপুরে বিদ্যুৎ বিতরন করা হয়েছে দুই মেগাওয়াট, বিকালে তিন মেগাওয়াট  এবং ইফতারের পূর্বে দেড় মেগাওয়াট। এ বিষয়ে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ঈদগাঁও উপকেন্দ্রের লাইন  টেকনেশিয়ান মাহমুদুর রহমান রুবেল জানান,  রমজান মাসে বিদ্যুৎ বিতরনে ভারসাম্য রা ও নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে গণসচেতনতা সৃষ্টির ল্েয ব্যাপকভাবে পাবলিসিটি করা হয়েছে । ঈদগাঁও বাজারের বিপনী বিতান ও শপিং মার্কেটগুলোতে অতিরিক্ত আলোকসজ্জা প্রতিরোধে বাজারের প্রত্যেক ব্যবসায়ী, দোকান ও মার্কেট মালিকদের   অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে । কার্যত এত প্রস্তুতি  ও সর্তকতামূলক ব্যবস্থা গ্রহন করা সত্ত্বেও তা কোন উপকারে আসেনি, কমেনি আলোকসজ্জা কিংবা বিদ্যুৎবিভ্রাট। তবে কয়েক দিনের মধ্যে বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক  হবে বলে তিনি দৈনিক বাঁকখালী’কে আশ্বস্থ করেন । বিদ্যুৎ   বিতরন ও ব্যবহারে একদিকে যেমন বৃদ্ধি পেয়েছে  বিভ্রাট ও অসঙ্গতি  অন্যদিকে তেমনি বেড়েছে বৈষম্যও। সব মিলিয়ে ঈদের আগেই বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক পর্যায়ে নেমে আসবে এমনই প্রত্যাশা সকলের ।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT