টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

বান্ধবীসহ জনতার ধাওয়া খেলেন চিত্রনায়ক অমিত হাসান

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১৩৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
অসদাচরণের জন্য বসুন্ধরা সিটি শপিংমলের সামনে জনতার ধাওয়া খেয়ে পালালেন চিত্রনায়ক অমিত হাসান। শুক্রবার সন্ধায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের এক কর্মকর্তার চার মাসের সন্তান তাহসিনের চিকিৎসার জন্য বসুন্ধরা সিটি শপিংমলের সামনে অর্থ সহায়তা চাইতে গেলে বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও উপস্থিত কয়েকজন সাংবাদিকদের কটাক্ষ করেন অমিত। তখই জনতা তাকে ধাওয়া করে। সেসময় সঙ্গে থাকা বান্ধবীকে নিয়ে দ্রুত পালিয়ে গা বাঁচান তিনি।
এর আগে অর্থ সহায়তার জন্য অনুরোধ করলে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ করে অমিত বলেন, ‘সাহায্যের নামে ব্যবসা করছিস! আমি বাংলাদেশের বড় বড় সাংবাদিকদের পকেটে রাখি আর তোরা তো সাংবাদিকতার শিক্ষার্থী।’
শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, তাহসিনের চিকিৎসার জন্য সকাল থেকেই মার্কেটের গেটে দাঁড়িয়ে সাধারণ মানুষের কাছে থেকে অর্থ সহায়তা চাচ্ছিলেন তারা। সন্ধ্যা ৭টার দিকে শপিং মলের মেইন গেট দিয়ে বের হচ্ছিলেন চিত্রনায়ক অমিত হাসান। এ সময় এক শিক্ষার্থী অমিত হাসানকে দেখে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে অর্থ সহায়তা চাইলে অমিতের সঙ্গে আসা এক নারী সেই শিক্ষার্থীকে হঠাৎ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করেন।
সাংবাদিকতা বিভাগের ১ম বর্ষের ছাত্রী তাজরিন অভিযোগ করেন, বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে অমিত হাসান নিজেও তাকে এবং সঙ্গে থাকা অন্য শিক্ষার্থীদের ওপরও চড়াও হন। সাংবাদিকদের দেখে নেয়ারও হুমকি দেন তিনি। পরে বসুন্ধরা কর্তৃপক্ষ এবং উপস্থিত জনতাও অমিত হাসানের আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে তেড়ে আসে। তখন বান্ধবীসহ দ্রুত পালিয়ে যান অমিত।
সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থীরা ছাড়াও সেখানে উপস্থিত ছিলেন- বিভাগের সহকারি অধ্যাপক মীর মোশাররফ হোসেন, দৈনিক জনকণ্ঠের রিপোর্টার আরিফ হোসেন, দেশ টিভির স্টাফ রিপোর্টার আখলাকুস সাফা, দৈনিক যুগান্তরের কন্ট্রিবিউটিং রিপোর্টার আনিসুর সুমন ও শাওয়াল নবী উজ্জল, দৈনিক ইত্তেফাকের রিপোর্টার জুবাইর আব্দুল্লাহ, বাংলা নিউজ২৪ ডটকমের নিউজরুম এডিটর হুসাইন আজাদ, বার্তা নিউজ ২৪ডট কমের বার্তা সম্পাদক শফিউল আলম রনি, দৈনিক প্রথম আলোর জবি প্রতিনিধি মুসা আহমেদ, দৈনিক সমকালের কন্ট্রিবিউটিং রিপোর্টার তৌহিদুল ইসলাম তুষারসহ সাংবাদিকতার শিক্ষকগণ।
এ ঘটনার পরে অমিত হাসানের বক্তব্যের জন্য তার সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT