হটলাইন

01787-652629

E-mail: teknafnews@gmail.com

সর্বশেষ সংবাদ

প্রচ্ছদস্বাস্থ্য

বাংলাদেশে ভুল চিকিৎসায় সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি প্রতিকার পেতে যাবেন কোথায়?

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক::
বাংলাদেশে চিকিৎসকদের অবহেলায় চট্টগ্রামে আড়াই বছর বয়সী একটি শিশু মৃত্যুর অভিযোগ নিয়ে বেশ বিতর্ক চলছে গত কয়েকদিন ধরে।
গত এক সপ্তাহে এরকম অন্তত তিনটি ঘটনায় অবহেলার অভিযোগ উঠেছে চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে।
বাংলাদেশে ভুল চিকিৎসা বা চিকিৎসকদের অবহেলার অভিযোগ নিয়ে প্রতিকার পাওয়া আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া আসলে কী?
বিজ্ঞাপন

গত বছরের অক্টোবর মাসে রক্তবমি হয়েছিলো ভোলার এক স্কুল শিক্ষকের।
চিকিৎসার জন্য পরিবার তাকে ঢাকায় খুব নামকরা একটি হাসপাতালে নিয়ে আসে।
রক্ত বন্ধ করা হলেও চিকিৎসকেরা জানান তার লিভার সিরোসিস হয়েছে। আর তাই লিভার প্রতিস্থাপনের জন্য মানসিক ও আর্থিক প্রস্তুতি নিতে বলা হয়।
বাংলাদেশে চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে অবহেলার অভিযোগ অনেক, কিন্তু প্রতিকারের ব্যবস্থা কী?ছবির কপিরাইট দেশে চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে অবহেলার অভিযোগ অনেক, কিন্তু প্রতিকারের ব্যবস্থা কী?
পরিবার তাকে দেশের বাইরে নিয়ে গেলে সেখানে পাওয়া গেলো ভিন্ন ধারণা, বলছিলেন তার ছেলে সৌমিত্র শুভ্র।
“ওখানে গিয়ে একজন সার্জনের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিয়েছি কারণ বাংলাদেশে লিভার ট্র্যান্সপ্ল্যান্ট হয়না। তিনি আমাকে বললেন আমার কাছে কেন এসেছেন? তিনি বললেন ওনার লিভার সিরোসিস আছে তবে যে ধরনের জটিলতা থাকলে লিভার ট্র্যান্সপ্ল্যান্ট করা লাগে তা ওনার নেই। এবং উনি আমাদের একজন মেডিসিনের ডাক্তারের কাছে আমাদের রেফার করেন।”
সৌমিত্র শুভ্র আরো বলছেন, “বাবা আর মোটে ৬ মাস বাঁচবেন বলে সময় দিয়েছিলেন বাংলাদেশের চিকিৎসক এবং অপারেশনের জন্য ৬০ লাখ টাকা লাগবে বলে জানিয়েছিল। কিন্তু ঐ মেডিসিনের ডাক্তার মাত্র ৫৮৫ টাকার ঔষধ লিখে দেন ছয়মাসের জন্য। বাবা এখন ভালো আছেন এবং তার যতটুকু সমস্যা সেটি শক্তভাবে মোকাবেলা করার চেষ্টা করছেন।”
তাকে জিজ্ঞেস করেছিলাম দেশে ফিরে তিনি অভিযোগ করার ব্যাপারে চিন্তা করেছিলেন কিনা। অথবা কিভাবে সেটি করতে হয় সে বিষয়ে কিছু জানেন কিনা।
তিনি বলছিলেন, “ডাক্তাররা আসলে তৎক্ষণাৎ রক্তক্ষরণটা বন্ধ করেছিলেন। আমরা তাতেই কৃতজ্ঞ ছিলাম। ডাক্তার বিরুদ্ধে গিয়ে বলতে যাওয়া সে বিষয়ে নিজেরাই এতটা আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠতে পারি না। আর আমাদের দেশে কাঠামোটা দুর্বল।”
বাংলাদেশে চিকিৎসকদের অবহেলা বা ভুল চিকিৎসার অভিযোগে প্রায়ই রোগীর আত্মীয়স্বজন ও ডাক্তারদের মুখোমুখি হতে দেখা যায়। কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ করার পদ্ধতি রোগীদের জানাতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিজেরা কী করছেন?

Leave a Response

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.