টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :

প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনে বেড়াতে গিয়ে আনন্দে আত্বহারা পর্যটকরা

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০১৬
  • ৪২৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সাইফুদ্দীন মোহাম্মদ মামুন:::
দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনে বেড়াতে গিয়ে আনন্দে আত্বহারা পর্যটকরা। তাছাড়া দ্বীপে বসবাস করা লোকদের মাঝেও আনন্দের জোয়ার দেখা দিয়েছে। তাছাড়া প্রতিদিন টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে পর্যটক নিয়ে এলসিটি কুতুবদিয়া,এমভি গ্রীনলাইন, এলসিটি কাজল,বে ক্রুস, কিয়ারী সিন্দাবাদ ও কেয়ারী ডাইনসহ মোট ৬টি জাহাজ চলাচল করছে। পর্যটকদের বেশী পরিচিত নাম এলসিটি কুতুবদিয়া জাহাজের টেকনাফ ইনচার্জ আজিজ কুতুবী,সহকারী ইনচার্জ মোঃ আলমগীর এবং এলসিটি কাজলের টেকনাফ ইনচার্জ ইকবাল হোসেন খোকা,সহকারী ইনচার্জ মাহবুব জানায়, প্রতিদিন দুর-দুরান্ত থেকে আগত পর্যটকরা সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে রওনা করছেন। তাতে আগত পর্যটকদের স্বার্থে আমরা তাদের কাছ থেকে স্বল্প টিকেট খরচ নিয়ে তাদেরকে প্রতিনিয়ত সুনামের সহিত নিরাপদে আনা-নেওয়া করে যাচ্ছি। ঘাট ইজারাদার ম্যানেজার মোঃ ফারুক ও টিকেট চেকের দায়িত্বে থাকা মুন্না,কামাল জানায় এখন যে পর্যটক আসছে সেই পর্যটক আসা অব্যাহত থাকলে ইজারা নেওয়া টাকা উঠিয়ে আনা সম্ভব হবে নাহয় লোকসানের মুখ দেখতে হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগত ছাত্রদের মধ্যে একজন মাসুদুর রাহমান জানান, এলসিটি কুতুবদিয়া জাহাজ আমাদের প্রিয় জাহাজ। তাই আমরা এলসিটি কুতুবদিয়াতে করে সেন্টমার্টিন যাচ্ছি। সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ,প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুর রব জানান, সেন্টমার্টিনে পর্যটকদের আগমন ঘটায় দিনদিন সেন্টমার্টিনের চেহারার পরিবর্তন ঘটছে এবং আমরা যতটুকু সম্ভব তাদেরকে সাহায্য-সহযোগীতা করে যাচ্ছি। সেন্টমার্টিন হোটেল সি স্যান্ড রিসোর্টের পরিচালক মোঃ সরওয়ার কামাল জানান, পর্যটক আসায় হোটেল রুম কিছুটা বুকিং হচ্ছে। তাছাড়া কম খরচে আমরা তাদেরকে থাকার সুযোগ-সুবিধা দিয়ে যাচ্ছি। সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ আব্দুস সালাম জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। তাছাড়া সেন্টমার্টিনে আগত পর্যটকরা কোন সমস্যা ছাড়ায় মনের আনন্দে ঘুরে ফিরে নিরাপদে স্ব-স্ব বাড়ী ফিরছে। টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শফিউল আলম জানান, সেন্টমার্টিন ভ্রমণে আসা পর্যটকদের নিরাপত্তা এবং সুবিধা-অসুবিধায় প্রশাসন সবসময় নজরদারি করে থাকে এবং জাহাজ চলাচল শুরু হওয়ায় পর্যটন সংশ্লিষ্টরা লাভবান হওয়ার পাশাপাশি সরকারও প্রচুর টাকা রাজস্ব পাচ্ছে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT