টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
টেকনাফ সমিতি ইউএই’র নতুন কমিটি গঠিতঃ ড. সালাম সভাপতি -শাহ জাহান সম্পাদক বৌ পেটানো ঠিক মনে করেন এখানকার ৮৩ শতাংশ নারী ইউপি চেয়ারম্যান হলেন তৃতীয় লিঙ্গের ঋতু টেকনাফে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ৭ পরিবারের আর্তনাদ: সওতুলহেরা সোসাইটির ত্রান বিতরণ করোনা: শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কঠোর বিধি, জনসমাবেশ সীমিত করার সুপারিশ হেফাজত মহাসচিব লাইফ সাপোর্টে জাদিমোরার রফিক ৫ কোটি টাকার আইসসহ গ্রেপ্তার মিয়ানমার থেকে দীর্ঘদিন ধরে গবাদিপশু আমদানি বন্ধ: বিপাকে করিডোর ব্যবসায়ীরা টেকনাফ পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন যাঁরা বাহারছরা ইউপি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন যাঁরা

পর্যটকদের আস্থা অর্জন করেছে ট্যুরিস্ট পুলিশ

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৫ জানুয়ারি, ২০১৭
  • ১০৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

আইরিন আকতার []
গত ২ বছরে  ১২০ জন হারিয়ে যাওয়া পর্যটক শিশু উদ্ধার ও  পরিবারের কাছে হস্তান্তর, পর্যটকদের  নগদ ১ লক্ষ ৯৪ হাজার টাকা , ২২ টি মোবাইল ফোন, ১ টি ল্যাপটপ, স্বর্ণলংকার, হিরার আংটি সহ পর্যটকদের হারানো সম্পদ ফেরত দিয়ে পর্যটকের আস্থা অর্জন করছে কক্সবাজারের ট্যুরিস্ট পুলিশ। কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের তথ্যমতে ২০১৫ সালে ৫৭ জন হারানো পর্যটক শিশু উদ্ধার , নগদ ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা ,১ টি ল্যাপটপ, ৬ টি হারানো মোবাইল পর্যটকের কাছে ফেরত দেয় ট্যুরিস্ট পুলিশ। এছাড়া ২৮ জন ছিনতাইকারি, ৫ জন ইভটিজিংকারি, ১৪২ জন গন উপদ্রপকারী, ১ জন মামলার আসমী আটক করা হয়। উচ্ছেদ করা হয় ২০ টি পঁচা মাছের দোকান, ১৫ টি অবৈধ কিটকট, ৪১ টি অবৈধ দোকান। অনৈতিক পেশার দায়ে গ্রেপ্তার করা হয় ২১ জনকে। উদ্ধার করা হয় ৩ জন ভিকটিককে।
২০১৬ সালে হারানো ৬৩ জন পর্যটক শিশু উদ্ধার, নগদ ৬৪ হাজার টাকা, ১৬ টি মোবাইল সেট, ৭ টি সীম র্কাড, ১ টি স্বর্ণেও হাতের রিং, ১ টি লকেট, ১ টি চেইন, ২ টি আংটি, ২ টি নাকফুল, ২ টি কানের দুল , ২ টি হিরার আংটি উদ্ধারের পর পর্যটকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ছাড়া ৪৩ জন পুরুষ  ছিনতাইকারী, ৫ জন মহিলা ছিনতাইকারী, ১৫ জন ইভটিজিংকারী, ২৭ জন উপদ্রপকারী, ১ জন অপহরনকারী আটক করা হয়েছে। উচ্ছেদ করা হয়েছে ৭ টি অবৈধ কিটকট, ১৬ টি অবৈধ দোকান, ৩৪ টি পঁচা মাছের দোকান। উদ্ধার করা হয় ৯ টি গাঁজা পুরিয়া, ৭ বোতল বিয়ার, ২৯ পিচ ইয়াবা, ৫ টি ছোড়া , ৯ টি মোটরসাইকেল ও গাড়ী ও ৮ জন ভিকটিমকে। মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আটক করা হয়েছে ১১জনকে।
হারিয়ে যাওয়া অর্থ ও সম্পদ ফিরে পেয়ে খুশি পর্যটকেরা। এতে ট্যুরিস্ট পুলিশের সুখ্যাতিও ছড়িয়ে পড়ছে দেশব্যাপী। টাঙ্গাইল থেকে পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসে পর্যটক হাফিজুর রহমান। রাত ১২ টার দিকে তার মুঠোফোনটি হারিয়ে গেলে দুঃশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়েন তিনি। হারানোর আধাঘন্টা পরেই সৈকতে অবস্থানকারী ট্যুরিস্ট পুলিশ হারানো ফোনটি ফিরিয়ে দেন তাকে। পর্যটক হাফিজুর রহমান বলেন “ মুঠোফোনটিতে প্রয়োজনীয় নাম্বার, বিকাশ, ফেসবুক এ্যাকাউন্ট, ব্যাংক  এ্যাকাউন্ট নাম্বার সবকিছুই ছিলো। ফোনটি ছাড়া নিজেকে অসহায় লাগছিলো। বিষয়টি ট্যুরিস্ট পুলিশকে জানালে তারা তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা গ্রহন করে আধা ঘন্টার মধ্যে আমার ফোনটি  চোরের হাত থেকে রক্ষা করে আমাকে হস্তান্তর করে। ফোনটি ফিরে পাবো বলে বিশ্বাস হচ্ছিলনা। ট্যুরিস্ট পুলিশ না থাকলে সত্যিই ফোনটা ফিরে পেতামনা। ”
গাজীপুর থেকে আগত পর্যটক আরাফাত হোসেন সৈকতে ঘুরার সময় ছিনতাইকারীর কাছে মোবাইল ফোন ও মানিব্যাগ হারান । বিষয়টি ট্যুরিস্ট পুলিশকে অবগত করলে ছিনতাইকারী রাজেন্দ্র সরকারের পুত্র অধীন সরকারকে আটক করে আরাফাত হোসেনের ফোন ও মানিব্যাগ ফিরিয়ে দেয়া হয়। আরাফাত হোসেন বলেন “ ঘুরতে এসে ছিনতাই কারির কবলে পড়া সত্যিই দূর্ভাগ্যজনক। ট্যুরিস্ট পুলিশ না থাকলে হয়তো বাড়ি যাওয়ার টাকাটাও অবশিস্ট থাকতোনা। ”
পর্যটকদের নিরাপত্তার বিষয়েও সন্তুস্ট পর্যটকরা। ঢাকা থেকে আগত পর্যটক ইরতিয়াজ আহমেদ বলেন “ সময় পেলেই কক্সবাজার ঘুরতে চলে আসি। বছর তিনেক আগেও সন্ধ্যার পর বীচে নিজেকে অনিরাপদ বলে মনে হত। ছিনতাইকারীর ভয়ে সন্ধ্যার পরে হোটেলেই কাটিয়ে দিতাম । এখন রাত ১০ টার পরও বীচে বসে থাকি। নিরাপত্তার বিষয়টা আগের থেকে অনেকটা জোরদার করা হয়েছে বলে ভালো লাগছে।”
ট্যুরিস্ট পুলিশের সিনিয়র এএসপি রায়হান কাজেমী বলেন “ পর্যটকদের নিরাপত্তার জন্য আমরা সবসময় প্রস্তুত। সৈকত সহ শহরের ১৬ টি স্থানে আমাদের সাইনর্বোডে ট্যুরিস্ট পুলিশের নাম্বার দেয়া আছে। সে নাম্বারে ফোন করলেই আমরা পর্যটকদের সমস্যায় দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করবো। পর্যটকদের নিরাপত্তায় সর্বক্ষনিক সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে ট্যুরিস্ট পুলিশ নিয়োজিত রয়েছে।”
জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেন বলেন “ কক্সবাজার পর্যটন নগরী হিসেবে পর্যটকদের নিরাপত্তা অবশ্যই জোরদার হতে হবে। এ বিষয়ে ট্যুরিস্ট পুলিশ অবশ্যই গ্রহনযোগ্য ভূমিকা পালন করছে। পর্যটকদের কথা মাথায় রেখে , তাদের সমস্যা ও চাহিদার কথা মাথায় রেখে পর্যটনের সাথে যারা সম্পৃক্ত রয়েছে করছে তাদের  কাজ করতে হবে। এবং পর্যটকদের আস্থা অর্জন করতে হবে।”

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT