টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

নয়াবাজারে সন্ত্রাসী নুরুল কবিরের হামলায় মহিলা সহ আহত ১০

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১০৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

জাহাঙ্গীর আলম, টেকনাফ:::: টেকনাফের হোয়াইক্যংয়ের নয়াবাজারে সন্ত্রাসী নুরুল কবির গংয়ের নেতৃত্বে প্রবাসী সাবের আহাম্মদের বাড়িতে এক বর্বরোচিত হামলায় তার স্ত্রী মসুদা বেগম সহ পরিবারের ১০ জন হামলার শিকার। জানা যায় যে, গত ২৭ সেপ্টেম্বর ভোর ৫ টায় স্থানীয় নয়াবাজার হাসন আলীর পুত্র নুরুল কবিরের নেতৃত্বে  ১০-১২ জনের একটি সন্ত্রাসী দল ধারালো অস্ত্র নিয়ে মসুদা বেগমের বাড়িতে হামলা ও লুটপাট চালিয়ে নগদ টাকা পয়সা গহনা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এবং আসবাপত্র সহ লুট করে নিয়ে যায়। তাদের হামলার শিকারে গুরুতর আহত হন মসুদা বেগম, ধয়া বিবি, রিজুয়ানা আকতার, সুমা আকতার, ইয়াসমিন, আবু তাহের, সিরাজ, রিদুয়ান, বেলাল উদ্দিন এবং আড়াই বছরের শিশু নাইম। সুত্রে আরো জানা যায়, বিগত সময়ে মসুদা বেগমের বাড়িতে সন্ত্রাসী নুরুল কবির আরো একবার ডাকাতি করেছিল এবং তার বিরুদ্ধে ডাকাতি মামলা দায়ের করা হয়। এরই পরিপ্রেেিত পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন করে, সে ৭ মাস কারাবাসের পর জামিনে এলাকায় ফিরে আসে। তারই রেশ ধরে নুরুল করিব এই বর্বর হামলা চালায়। এলাকার স্থানীয় গন্যমান্য ও জনসাধারনেরা বিভিন্নভাবে তার সন্ত্রাসী কার্যক্রমের হয়রানির শিকার হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। নুরুল কবিরের এই অপকর্মের  পৃষ্টপোষকতায় করে যাচ্ছে তারই চাচা স্থানীয় মেম্বার রোশন আলী। পুলিশ ঘটনাটি সম্পকের্  অবগত হলে, হোয়াইক্যং ফাঁিড়র পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার পুর্বে সন্ত্রাসী দল পালিয়ে যায়। প্রবাসী সাবের আহাম্মদের পরিবারের আহত রোগীদের শরীরে আপাদমস্তক ধারালো অস্ত্রের জখম দেখা যায়। তাদের হামলা থেকে রেহাই পায়নি আড়াই বছরের শিশুটিও । হামলায় আহতদের মধ্যে ধয়া বিবি (৬০) এর অবস্থা আশংকাজনক। এলাকায় এই ধরনের বর্বরোচিত মধ্যযুগীয় হামলার ঘটনায় সাধারন জনগনের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। আহত পরিবার অভিযোগ করে, আমরা ভোর ৫ টায় ঘুমিয়ে ছিলাম, আকষ্মিকভাবে নুরুল কবির সহ আরো ১০-১২ জনের একটি দল ধারালো অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে আমাদের ঘরে ঢুকে এই হামলা চালায়, পরবর্তীতে আমাদের অতি চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন এবং পুলিশ এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। আমরা আইন শৃংখলা বাহিনী এবং স্থানীয় ব্যক্তিদের কাছে ন্যয় বিচার ও নিরাপত্তার দাবি জানাই। বর্তমানে আহতদের সবাই কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে এবং উক্ত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায়।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT