টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

নির্বাচনকালীন সর্বদলীয় সরকারের প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৩
  • ১০৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
 নির্বাচনকালীন সর্বদলীয় সরকারের প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, “নির্বাচনকালীন সর্বদলীয় সরকারের মন্ত্রিসভায় বিরোধী দলের সদস্যও রাখা হবে।” সেই মনোনীত সদস্যদের তালিকা দিতে বিরোধী দলকে আহ্বান জানান তিনি।   শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে এক ভাষণে তিনি এ আহ্বান জানান।
প্রসঙ্গত, নির্বাচনকালীন সরকারের প্র্রধান কে হবেন- সে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী বলেননি। তার ভাষণের পর একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে তার উপদেষ্টা এইচটি ইমাম বলেছেন, ওই সরকারের প্রধান থাকবেন শেখ হাসিনাই।
তবে বিএনপির মূল দাবি, নির্বাচনকালীন যে সরকারই হোক না কেন, সেই সরকারের প্রধান হিসেবে শেখ হাসিনাকে মানা হবে না। সম্প্রতি বিভিন্ন জনসভায় বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়াও দলের সেই অবস্থান দৃঢ়ভাবে ব্যক্ত করেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমরা সকল দলকে সঙ্গে নিয়েই জাতীয় সংসদ নির্বাচন করতে চাই। বিরোধী দলের কাছে আমার প্রস্তাব, নির্বাচনকালীন সময়ে আমরা সকল দলের সমন্বয়ে সরকার গঠন করতে পারি। আমাদের লক্ষ্য অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন। শান্তিপূর্ণ নির্বাচন। তাই আমি বিরোধী দলের কাছে প্রস্তাব করছি যে, বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের মধ্য থেকেও আপনারা নাম দিতে পারেন যাদেরকে আমরা অন্তর্বর্তীকালীন সময়ে মন্ত্রীসভায় সদস্য করে সর্বদলীয় সরকার গঠন করতে পারি এবং নির্বাচনে যাতে কারো কোন সন্দেহ না থাকে, সকল সন্দেহ দুর করে আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পারি যে নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণ ভোট দিয়ে তাদের মনমতো সরকার গঠন করতে পারবে। আমি বিরোধী দলের নেতাকে অনুরোধ করছি যে, তিনি আমার এই ডাকে সাড়া দিবেন। আমার এ অনুরোধ তিনি রক্ষা করবেন এবং আমাদের যে সদিচ্ছা সেই সদিচ্ছার মূল্য তিনি দিবেন।”
তিনি বলেন, “তাই আসুন, দেশ ও জাতির কল্যাণের স্বার্থে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্রকে আরো সুদৃঢ় ভিত্তির উপর প্রতিষ্ঠিত করি। যাতে আমাদের তরুণ প্রজন্ম একটি সুন্দর সমাজ পায়। একটি সুন্দর সম্ভাবনাময় বাংলাদেশ আমরা সকলে মিলে গড়ে তুলতে পারি। ”
সব ভেদাভেদ ভুলে ২০২১ সালের মধ্যে গড়ে তুলি ক্ষুধা, দারিদ্র্য ও নিরক্ষরতামুক্ত আধুনিক বাংলাদেশ ও জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।
তিনি তার ভাষণে সরকারের নানা উন্নয়ন কর্মকাণ্ডও তুলে ধরেন।
বর্তমান নবম সংসদের যাত্রা শুরু হয় ২০০৯ সালের ২৫ জানুয়ারি। এ সংসদের মেয়াদ শেষ হবে ২০১৪ সালের ২৪ জানুয়ারি। সংবিধান অনুযায়ী আগামী ২৭ অক্টোবর থেকে ২৪ জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচন হতে হবে।
এদিকে, আগামী ২৫ অক্টোবর রাজধানীতে পাল্টাপাল্টি সমাবেশ ডেকেছে দুই দল। ‘আক্রমণ প্রতিহত করতে’ ঢাকায় ২৫ অক্টোবরের সমাবেশে নেতা-কর্মীদের দা-কুড়াল নিয়ে আসতে বলেছে দলটি।
২৫ অক্টোবর-পরবর্তী বিরোধী দলের সম্ভাব্য আন্দোলন মোকাবেলায় পাল্টা প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার ও সরকারি দল। দলগত এবং প্রশাসনিকভাবের বিরোধী দলকে মোকাবিলার কৌশল নেয়া হয়েছে।
এমন পরিস্থিতিতে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরাসহ জনগণে আশঙ্কা, সরকার ও বিরোধী দলের মধ্যে বড় কোনো সংঘর্ষ হতে যাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন প্র্রধানমন্ত্রী।
নতুন বার্তা/এইচএস

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT