টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

দিন দিন বাড়ছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৯ আগস্ট, ২০১৩
  • ১৫৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

camera -1ঢাকায় তারা বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেল ও পত্রিকার জাল পরিচয়পত্র ব্যবহার করে ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষকে হুমকি দিয়ে চাঁদা আদায় করে৷ এতে বিপাকে পড়ছেন পেশাদার সাংবাদিকরা৷

পুলিশ জানিয়েছে, ভুয়া সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযানের নেয়া হবে৷

ঢাকার কারওয়ান বাজার এলাকা থেকে তানভীর আহমেদ নামে এক ভুয়া সাংবাদিককে পুলিশ বুধবার দুপুরে গ্রেফতার করে৷ তার কাছ থেকে দুটি টেলিভিশন চ্যানেল এবং চারটি পত্রিকার জাল পরিচয়পত্র উদ্ধার করা হয়৷ এছাড়া, তার মোটরবাইকেও লাগানো ছিল টেলিভিশন চ্যানেলের স্টিকার৷ সে ইনসিওরেন্স কোম্পানির একজন কর্মকর্তার কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের সময় হাতেনাতে ধরা পড়ে৷

প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম জানান, ক্ষতিকর রিপোর্ট করার হুমকি দিয়ে এই ভুয়া সাংবাদিক গত ছয় মাস ধরে তার কাছে থেকে প্রতিমাসে প্রায় পাঁচ হাজার টাকা করে নিত৷ পরে তিনি জানতে পারেন যে, সে আসলে সাংবাদিক নয়৷ তখন তিনি তাকে ধরে পুলিশে দেন৷ পুলিশ তার ছয়টি ভুয়া পরিচয়পত্র এবং মোটরসাইকেল জব্দ করেছে৷

ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান জানান, তারা প্রায় প্রতিদিনই এরকম ভুয়া সাংবাদিকদের নানা বেআইনি তৎপরতার খবর পান৷ চলতি বছরে তারা এ পর্যন্ত অন্তত ২০ জন ভুয়া সাংবাদিকে আটক করেছেন৷ তিনি জানান, এইসব ভুয়া সাংবাদিকদের ঠাটবাট এমন যে তাদের সাধারণ মানুষ সহজে ধরতে পারেন না৷ এমনকি পেশাদার সাংবাদিকরাও তাদের দেখে মাঝেমধ্যে বিভ্রান্ত হন৷ তারা অনেকেই দামি গাড়িতে চলা-ফেরা করে৷ আর ক্যামেরায় জাল স্টিকার লাগিয়ে মানুষকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে চাঁদা আদায় করে৷ মাসুদুর রহমান জানান, তারা এইসব ভুয়া সাংবাদিকের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযান পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৷

এদিকে, আটক হওয়ার পর ভুয়া সাংবাদিক তানভীর আহমেদ পুলিশকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে যে তাদের চক্রের সদস্য চারজন৷ তাদের ক্যামেরা, গাড়ি সব কিছু আছে৷ আর জাল পরিচয়পত্র তারা নিজেরাই কম্পিউটারে তৈরি করে থাকে৷ এসব পরিচয়পত্র তারা তৈরি করে একাধিক নামে৷ সে পুলিশকে জানায়, ঢাকায় বর্তমানে এরকম অন্তত ২০টি ভুয়া সাংবাদিক চক্র আছে এবং তারা দলবেধে চলা-ফেরা করেন৷

ঢাকার কয়েকজন পেশাদার সাংবাদিক জানান, শুধু পুলিশকে উদ্যোগ নিলেই হবে না, বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম এবং সাংবাদিক ইউনিয়নকে ভুয়া সাংবাদিক চিহ্নিত করতে ব্যবস্থা নিতে হবে৷ নয়তো সাংবাদিকদের প্রতি মানুষের আস্থা কমে যাবে আর পেশাদার সাংবাদিকরা বিব্রতকর অবস্থায় পড়বেন৷ ডিডব্লিউ এই খবর দিয়েছে।

এদিকে নতুন বার্তার প্রতিবেদক জানান, দ্বিধাবিভক্ত ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নে ভুয়া সাংবাদিকের ছড়াছড়ি। এক পক্ষে অন্তত ৩০০ ও আরেক পক্ষে ৫০০’রও বেশি ভুয়া সাংবাদিক সদস্য রয়েছে। এদের মধ্যে ট্রাক ড্রা্ইভার, নরসুন্দর, দারোয়ান, পানবিক্রেতাও রয়েছে। ইউনিয়নে এদের দৌরাত্ম ব্যাপক। ভোটের রাজনীতিতে এরা ফ্যাক্টর। এদের সহায়তায় একবার এক ইউনিয়নে একজন অসাংবাদিক সাধারণ সম্পাদকও হয়েছেন!

পেশাদার সাংবাদিকরা মনে করেন, ঐক্যবদ্ধ ইউনিয়ন থাকলে এটি সম্ভব ছিল না।

camera -1

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT