টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
তালিকা দিন, আমি তাঁদের নিয়ে জেলে চলে যাব: একজন পুলিশও পাঠাতে হবে না: বাবুনগরী টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের উদ্যোগে মানসিক রোগিদের মধ্যে খাবার বিতরণ বাংলাদেশে নারীর গড় আয়ু ৭৫, পুরুষের ৭১: ইউএনএফপিএ ফেনসিডিল বিক্রির অভিযোগে ৩ পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার দেশের ৮০ ভাগ পুরুষ স্ত্রীর নির্যাতনের শিকার’ এ বছর সর্বনিম্ন ফিতরা ৭০ টাকা, সর্বোচ্চ ২৩১০ হেফাজতের বর্তমান কমিটি ভেঙে দিতে পারে: মামলায় গ্রেফতার ৪৭০ জন মৃত্যু রহস্য : তিমি দুটি স্বামী – স্ত্রী : শোকে স্ত্রী তিমির আত্মহত্যাঃ ধারণা বিজ্ঞানীর দেশে নতুন করে দরিদ্র হয়েছে ২ কোটি ৪৫ লাখ মানুষ দাঙ্গা দমনে পুলিশের সাঁজোয়া যান সাজছে নতুনরূপে

‘তরুণ সমাজকে বইমুখী করতে না পারায় শিক্ষার অবনতি’

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৯ নভেম্বর, ২০১২
  • ১৫১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ অধ্যাপক ড. আলমগীর মোহাম্মদ সিরাজুদ্দীন বলেছেন, তরুণ সমাজকে বইমুখী করতে না পারার ব্যর্থতায় শিক্ষার অবনতি হচ্ছে।
শিক্ষার এ অবনতির জন্য সমাজের বিভিন্ন অসামঞ্জস্যতার পাশাপাশি শিক্ষকদের দায়ী করে তিনি বলেন, শিক্ষকরা তাদের ভূমিকা যথাযথভাবে পালন করছেন না। ডায়মন্ড সিমেন্টের সহযোগিতায় বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব আয়োজিত তিনদিন ব্যাপী বই উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, উন্নত দেশে বই প্রকাশের ক্ষেত্রে বিভিন্ন বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান যেভাবে সহায়তা করে তা আমাদের দেশের প্রেক্ষাপট একেবারেই কম। সৃজনশীল এ কাজে দেশের বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলো এগিয়ে এলে বই প্রকাশনার ক্ষেত্র আরো প্রসারিত হতো। এর মাধ্যমে সৃষ্টিশীলতার পাশাপাশি শিল্প, সাহিত্যও উপকৃত হবে।
সমাজ জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে সাংবাদিকদের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সমাজের প্রতিটি স্তে তাদের বিচরণের কারণে বিভিন্ন বিষয়ে সাংবাদিকরা অন্য পেশাজীবীদের তুলনায় ভাল জানেন।
তিনি বলেন, ‘ সাংবাদিকরা ভাল গ্রন্থ রচনা করতে পারেন। বিশ্বের নামকরা বিভিন্ন গ্রন্থের রচিয়তাও সাংবাদিকরা।’  
সভাপতির বক্তব্যে আবু সুফিয়ান বলেন, সাংবাদিক-লেখকদের উৎসাহিত করতেই চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব বই উৎসবের শুরু করেছে। এই উৎসাহের ধারায় ভবিষ্যতে এই উৎসব আরও ব্যাপক আকার ধারণ করবে।
চট্টগ্রাম প্রেস কাবের উদ্যোগে প্রেসক্লাব সদস্যদের লেখা বই নিয়ে আয়োজিত তিনদিনের এ বই উৎসব শনিবার পর্যন্ত চলবে। প্রেসক্লাবের ইঞ্জিনিয়ার আবদুল খালেক মিলনায়তনে আয়োজিত এই উৎসবে ৫২ জন লেখকের লেখা বই স্থান পেয়েছে। উৎসবে ১০০ টাকার বই কিনলে ২০০ টাকার পুরস্কারের অফার রয়েছে।

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সভাপতি আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ডায়মন্ড সিমেন্টের পরিচালক হাকিম আলী। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রেস কাবের সাধারণ সম্পাদক রাশেদ রউফ।

চট্টগ্রাম প্রেসকাবের যুগ্ম সম্পাদক মহসিন চৌধুরী সঞ্চলনায় এ অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শহীদ উল আলম ও প্রেসক্লাবের গ্রন্থাগার সম্পাদক মো. শহীদুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি বেলুন উড়িয়ে উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। আলোচনার শুরুতে প্রেস কাবের অনারারি জীবন সদস্য ও সাংসদ আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু এবং সাবেক সাংসদ আলহাজ রফিকুল আনোয়ারের মৃত্যুতে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

শুক্রবার বিকেল চারটায় উৎসবের দ্বিতীয় দিনে ‘বইয়ের প্রচার প্রসারে মিডিয়ার ভূমিকা’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category