টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ডেট লাইন ২৫ অক্টোবর আতংকে পর্যটক : সেন্টমার্টিনদ্বীপের বুকিং বাতিল : মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে পর্যটকেরা

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৩
  • ১১০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

100_6428 copyনুর হাকিম আনোয়ার,টেকনাফ ::::ডেট লাইন ২৫ অক্টোবর আতংকে পর্যটক : সেন্টমার্টিনদ্বীপের বুকিং বাতিল : মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে পর্যটকেরা ,ঈদের পরে ২৫ অক্টোবর নিয়ে সরকার দল আর বিরোধী দলের মারমুখো অবস্থানের ঘোষণায় আতংকে আছে পর্যটককুল। এদিন কি না কি হয় এর যেমন কোন নিশ্চয়তা নেই। একইভাবে ঈদের পর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত সময়েও অপ্রত্যাশিত কোন অঘটন ঘটে যেতে পারে এ নিয়েও সর্বত্র বিরাজ করছে উদ্বেগ উৎকণ্ঠা। তাই এবার পর্যটনের ভরা মৌসুমে ঈদুল আজহা হলেও ঈদে টেকনাফ সেন্টমার্টিনদ্বীপে আশানুরূপ পর্যটকের আগমন নিয়ে সন্দিহান সংশ্লিষ্টরা। প্রতি বছর ঈদের ছুটিতে লাখো পর্যটকে সরগরম হয়ে উঠে সেন্টমার্টিনদ্বীপ। এবারও ঈদুল আজহার লম্বা ছুটিতে লাখো পর্যটক সেন্টমার্টিনে আসবেন এমটিই আশা করেছিলেন পর্যটন সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু দেশের রাজনীতিতে প্রতি মুহূর্তে অনিশ্চিত পরিস্থিতি এবং অর্থনৈতিক মন্দার কারণে প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন পর্যটক আগমন উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে। ঈদের পরে ২৫ অক্টোবর নিয়ে সরকার দল আর বিরোধী দলের মারমুখো অবস্থানের ঘোষণায় গোটা দেশে বিরাজ করছে ভীতিকর পরিস্থিতি। এর আগাম প্রভাব এসে লেগেছে  টেকনাফের সেন্টমার্টিনদ্বীপের পর্যটন শিল্পে। এতে করে ব্যাপক মন্দার কবলে পড়েছে টেকনাফ সেন্টমার্টিনদ্বীপ পর্যটন শিল্প। সেন্টমার্টিনদ্বীপ তো ঈদের ছুটিতে বেড়ানোর উত্তম জায়গা। প্রবাল দ্বীপ বলেই খ্যাত সেন্টমার্টিনদ্বীপ ছিড়াদ্বিয়াদ্বীপ, কক্সবাজার জেলার  বিশ্বের দীর্ঘ সমূদ্র সৈকত, বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্ক, হিমছড়ির ঝর্ণা, স্বপ্নের দ্বীপ সোনাদিয়া, প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন, ইন্টারন্যাশনাল অ্যামিউজমেন্ট কাব তো । এ ছাড়াও মেরিন ড্রাইভ সড়ক দিয়ে সাগর আর পাহাড়ের মাঝখান দিয়ে টেকনাফ পর্যন্ত ১২০ কিমি ভ্রমণ পৃথিবীর আর কোথাও নেই। এসব বিবেচনায় ঈদে এবং জাতীয় দিবসগুলোর ছুটিতে কক্সবাজার ও টেকনাফ  ভ্রমণকেই বেছে নেন পর্যটকরা। কিন্তু এবার দেশের অস্থিতিশীল পরিস্থিতির কারণে ঈদের লম্বা ছুটি কাটানো তিতা হয়ে যাবে কর্মকান্ত ভ্রমণ পিয়াসু মানুষের জন্য।  গত এক দশকে কক্সবাজার জেলার পর্যটন খাতে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হওয়ায় এখানে গড়ে উঠেছে একাধিক হোটেলসহ শতাধিক হোটেল মোটেল। এসব হোটেল মোটেলগুলোতে প্রচুর পর্যটকের আবাসন সুবিধা পাওয়া যায়। গত এক দশকে সেন্টমার্টিনদ্বীপে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি শান্ত থাকায় দেশি-বিদেশি পর্যটকের স্্েরাত বেড়েছে এদিকে। এই সুযোগে উদ্যোক্তারা করেছেন সেন্টমার্টিনদ্ভীপ পর্যটন সংশ্লিষ্ট খাতে হাজার হাজার কোটি টাকার বিনেয়োগ। উদ্যোক্তারা পুঁজি বিনিয়োগ করেছে বলে জানা গেছে। এই সময়ের মধ্যে আবাসন খাতে বেসরকারিভাবে বিভিন্ন উদ্যোক্তা আশাতীত পুঁজি বিনিয়োগ করায় বদলে গেছে সেন্টমার্টিনদ্ভীপের চেহারা। কিন্তু সম্প্রতি পর্যটন শিল্পে নানা কারণে ধস নেমেছে বলেই মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। এতে করে বড় বড় বিনিয়োগ নিয়ে তারা স্বভাবতই শঙ্কিত। গতকাল খবর নিয়ে জানা গেছে, হোটেলগুলোতেও ঈদের জন্য রুম বুকিং হয়েছে তুলনামূলক কম। সংশ্লিষ্টরা জানান, এবারের ঈদে যে পরিমাণ বুকিং তারা আশা করেছিল তা হয়নি। রাজনৈতিক অস্থিরতার চাপ পড়েছে সেন্টমার্টিনদ্বীপ পর্যটনেও। দেশের ২য় বৃহত্তম উৎসবে সেন্টমার্টিনদ্ভীপ আশানুরূপ পর্যটক শূন্যতায় উদ্বিগ্ন পর্যটন সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারীরা। সারা বছর পর্যটক কম থাকলেও ঈদ উৎসব ও জাতীয় দিবসগুলোতেই তারা সারা বছরের খরচ পুষিয়ে নিতে পারে। এ অবস্থা চলতে থাকলে খুব তাড়াতাড়ি রাজনৈতিক অস্থিরতার কোন সমাধান নাও হতে পারে। তখন ১৬ ডিসেম্বরের জাতীয় ছুটির সুযোগটাও তাদের হাত ছাড়া হতে পারে বলে অনেকেই আশঙ্কা করছেন। এদিকে  পুলিশ প্রশাসন পর্যটকদের নিরাপত্তায় সতর্ক ব্যবস্থা গ্রহণ করলেও রাজনৈতিক সহিংসতা কোন পর্যায়ে গিয়ে দাঁড়ায় তার অনুমান করতে পারছেন না। সার্বিক বিবেচনায় ভবিষ্যৎ চিন্তায় এখন থেকেই গা ভাসিয়ে দিতে শুরু করেছেন স্থানীয় প্রশাসন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT