টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
২৩ জন রোহিঙ্গা ও টেকনাফের ৬ জনসহ ১৭ মে জেলায় ১১০ জন করোনা রোগী শনাক্ত কোয়ারেন্টাইনে তরুণীকে ধর্ষণ : সেই এএসআই বরখাস্ত ফিলিস্তিনে মানবাধিকার লঙ্ঘন চোখে পড়েনি হিউম্যান রাইটস ওয়াচের’ সচিবালয়ে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রাখল প্রথম আলোর সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে সাবরাংয়ের জাফর ও রফিক ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার বাড়ছে তাপমাত্রা সঙ্গে দাবদাহ ও অস্বস্তি: থাকবে ৫ দিন টেকনাফে শাহজাহান চৌধুরীর ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়,ইউনিটে ইউনিটে খালেদা জিয়ার জন্য দোয়া কওমি মাদ্রাসায় সব ধরনের ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ রাখার নির্দেশ লকডাউনে ব্যাংকিং কার্যক্রম চলবে যেভাবে টেকনাফে শাহজাহান চৌধুরীর ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়, ইউনিটে ইউনিটে খালেদা জিয়ার জন্য দোয়া

টেকনাফ-শাহপীরদ্বীপ সড়কের বিধ্বস্থ অংশে সাঁকো..মেরামতের উদ্যোগ নেই

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ৯ জানুয়ারি, ২০১৩
  • ১৩৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মুহাম্মদ তাহের নঈম  … টেকনাফ-শাহপরীরদ্বীপ সড়কের বিশাল অংশ জোয়ারের পানিতে বিধ্বস্থ হয়ে পড়েছে। ধ্বসে পড়েছে কালভার্ট ও বিভিন্ন অংশের গাইড ওয়াল। গত বর্ষায় কয়েক হাজার মিটার উপকূলীয় বেড়িবাঁধের ভয়াবহ ভাঙ্গন সৃষ্টি হয়ে অস্বাভাবিক জোয়ারের পানির স্রোতে ২শ’ ফুট সড়কের পৃথক অংশ তলিয়ে যায়। তৎসময় থেকে ক্রমে বিলীন হচ্ছে সড়কের বিভিন্ন অংশ। পর্যটন ও উন্নয়ন সমৃদ্ধশালী এলাকা হিসেবে পরিচিত শাহপরীরদ্বীপ দেশের মূল ভূ-খন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এরপর হতে অদ্যাবধি সড়কের মেরামতের উদ্যোগ নেয়নি সওজ। অব্যাহত ভাঙ্গনরোধেও কোন প্রকার পদক্ষেপ না নেয়ায় ক্রমে জোয়ারের আঘাতে প্রায় ৭শ’ ফুট সড়ক জুড়ে ভয়াবহ ভাঙ্গন দেখা দেয়। সম্প্রতি উপকূলীয় বাঁধের বিভিন্ন অংশ ও ভাঙ্গা অংশে নির্মাণাধীন পাউবো’র রিং বাঁধ ভেঙ্গে জোয়ারের পানি প্রবেশের ফলে সড়কের ভাঙ্গন আরো তীব্র হয়ে উঠেছে। এ অবস্থাতে শাহপরীরদ্বীপের ৪০ হাজার বাসিন্দার অন্তহীন দূর্ভোগ দেখা দেয়। বর্তমানে বিধ্বস্থ কয়েকশত ফুট সড়কের উপর দিয়ে চলে সাগরের জোয়ার-ভাটা। ওইসব স্থানে স্থাপন করা হয় বাঁশের সাঁকো। এ সাঁকোও মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ। জোয়ারের সময় নৌকা-সাম্পান আর ভাটার সময় সাঁকো দিয়ে পারাপার করতে হয় লোকজনদের। বর্তমানে এলাকার খুব নাজুক অবস্থা দেখা দিয়েছে। ৬ মাস ধরে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকায় নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সংকট, সমুদ্র থেকে আহরিত মাছ ও কাঁচা মালামাল পরিবহণ এবং লবণ ও রবিশস্য উৎপাদন বন্ধ হয়ে পড়ে। এতে প্রতিমাসে কোটি টাকার লোকসানের সম্মুখীন হওয়ার পাশাপাশি চরম দূর্ভোগ আর কঠিন শঙ্কায় দিন কাটছে দ্বীপবাসীর।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT