টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
হ্নীলার বিশিষ্ট সমাজসেবক মৌলভী ফরিদ আহমদ আর নেই, বাদে আছর জানাযা রোহিঙ্গার ঘরে মিলল ৫৭ লাখ দেশি-বিদেশি টাকা ও ৭০ ভরি সোনা রোহিঙ্গারা কন্যাশিশুদের বোঝা মনে করে অধিকতর বন্যার ঝূঁকিপূর্ণ জেলা হচ্ছে কক্সবাজার টেকনাফে মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে ৩০ পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমি ও ঘর হস্তান্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বারদের দায়িত্ব নিয়ে ডিসিদের চিঠি আগামীকাল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন (তালিকা) বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান টেকনাফ উপজেলা কমিটি গঠিত: সভাপতি, সালাম: সা: সম্পাদক: ইসমাইল আজ বিশ্ব শরণার্থী দিবস মিয়ানমারে ফেরা নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় রোহিঙ্গারা ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান বন্ধের সিদ্ধান্ত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মধ্যবিত্তের ঈদ ভাবনা…..

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৯ আগস্ট, ২০১৩
  • ৪২২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

স্কুল শিক্ষক হামিদুল হক বলেন, আগষ্ট মাস এসে গেছে কিন্তু জুন মাসের সরকারী বেতন এখনো পাইনি। চাকুরিজীবী মুফিজুর রহমান বলেন, বোনাস এবং বেতন
পেয়েই কলিগের ১০ হাজার টাকা পরিশোধ করেছি। পেশাজীবী গোলাম রাববানী বলেন, ১ মাসের বেতন দিয়ে অনেক কষ্টে ১৫ দিন চলে, বাকি দিন ধার-দেনাতে। আমাদের
আয়ের বেশিরভাগ্‌ই চুষে নেয় আকাশ ছোঁয়া নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য। তাই সুখের মতো অনেক কিছু দুঃখ দিয়েই কিনতে হয়। চিরাচরিত এই টানাপড়েন নিয়েই
মধ্যবিত্তের দুয়ারে আবার  উপস্থিত ঈদ। মধ্যবিত্তের জীবনে আনন্দের উপলক্ষ খুব একটা আসেনা। মধ্যবিত্ত জীবনে তাই ধর্মীয় এবং সামাজিক উৎসবগুলোই
আনন্দের প্রধান উৎস। যে কোন আনন্দ উৎসবের সাথে নতুন পোষাক বা কেনাকাটার একটা সম্পর্ক আছে। উৎসবের এই কেনাকাটা মধ্যবিত্তদের কাছে বজ্র আঁটুনির ফস্কা গেরোর মত।
পারিবারিক দায়িত্ববোধ থেকেই হোক কিংবা সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকেই হোক ঈদ আসলে মধ্যবিত্ত মানুষগুলো মার্কেটে ভীড় জমায়। বাইরে থেকে ঘুরে ঘুরে
জিনিষপত্র দেখা, মনে মনে ভাবা নিশ্চয় সামনে আরো ভাল কালেকশন আসবে, তখন এই দোকানে আসব। হয়তো পছন্দের জিনিষে একটু হাত বোলানো, একটু স্পর্শ করা সব্‌ই
ঈদকে সামনে রেখে কিছু সুন্দর কল্পনা। বাস্তবতার তাগিদে হয়তো অনেকের এই কল্পনাটুকু বাস্তবে রুপ নেয়না। ঘুরে ফিরে কিছুটা অপুর্ণতা এবং সেই পুরনো
স্বপ্নে ফিরে যাওয়া, এইবার হয় নি, আগামীবার হবে। সন্তানের কান্না ভেজা চোখ, স্ত্রীর অভিমানী হাসি, একজন বাবার পরাজিত চেহারা, একজন স্বামীরহতাশার দৃষ্টি এসব্‌ই হয়তো মধ্যবিত্তের ঈদ ভাবনা, মধ্যবিত্তের ঈদ বাজার।ঈদ আসে, ঈদ চলে যায়। কিন্তু মধ্যবিত্তের ঈদ উদযাপনের কোন তারতম্য ঘটেনা।মধ্যবিত্তের সংজ্ঞা অনেকটা রবিন্দ্রনাথের ছোট গল্পের মত। তিনি বলেছিলেনযে গল্প শেষ হইয়াও হয়না শেষ তাহাই ছোট গল্প। তেমনি মধ্যবিত্তের সব ইচ্ছা আহলাদ পূরণ হয়েও অপূর্ণ থেকে যায়। এটা কিনলে ওটা কেনা হয় না। কিছু পেলামতো কিছু ছাড় দিলাম। সমাজের সংগে তাল মিলিয়ে চলতে গিয়ে মধ্যবিত্তের সংসারে কাউকে না কাউকে অনেক কিছুই ছাড় দিতে হয়। মধ্যবিত্তের জীবন আসলে শাখেরকরাত-দুদিকেই কাটে। সব রক্ষা করে বা নিয়ম মেনে চলার একমাত্র দায়িত্ব শুধুএই মধ্যবিত্তদের। সামাজিক প্রতিবন্ধকতাগুলো মেনে নেয়াই যেন মধ্যবিত্তের
দিনাতিপাত।

মোহাম্মদ ওমর ফারুক
মোবাইলঃ ০১৯৬৬৩৭০৫৭০

 

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT