টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
রোহিঙ্গাদের এনআইডি কেলেঙ্কারি : নির্বাচন কমিশনের পরিচালকের বিরুদ্ধে দুপুরে মামলা, বিকালে দুদক কর্মকর্তা বদলি সড়কের কাজ শেষ হতে না হতেই উঠে যাচ্ছে কার্পেটিং! আপনি বুদ্ধিমান কি না জেনে নিন ৫ লক্ষণে ৫৫ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশি ভোটার: নিবন্ধিত রোহিঙ্গাও ভোটার! ইসি পরিচালকসহ ১১ জন আসামি হ’ত্যার পর মায়ের মাংস খায় ছেলে ব্যাংকে লেনদেন এখন সাড়ে ৩টা পর্যন্ত আগামী ১৫ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন বাড়ল মডেল মসজিদগুলোয় যোগ্য আলেম নিয়োগের পরামর্শ র্যাবের জালে ধরা পড়লেন টেকনাফ সাংবাদিক ফোরামের সদস্য ও ইয়াবা কারবারি বিপুল পরিমাণ টাকা ও ইয়াবা উদ্ধার রোহিঙ্গাদের তথ্য মিয়ানমারে পাচার করছে জাতিসংঘ: এইচআরডব্লিউ

টেকনাফ ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের নামধারী কমিটিতে বিবাহিত ও অছাত্র

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৩
  • ১৪০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

Student-Dol বিশেষ প্রতিবেদক:### বিবাহিত আর অছাত্র দিয়ে চলছে টেকনাফ ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদল। নতুন কমিটি না হওয়ায় এখানেও অন্যন্য দলের মতো নেতৃত্বের সংকট দেখা দিতে পারে বলে শংকা প্রকাশ করেছেন নেতাকর্মীরা। বর্তমান অঘোষিত কমিটির আহবায়ক ও যুগ্ন আহবায়ক দু’জনের শিা জীবন শেষ হলেও তারা পদ আগলে রাখার কারণে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে দাবি করেছেন ত্যাগি নেতাকর্মীরা। তবে কলেজ কমিটি না হওয়ার পেছনে জেলা ছাত্রদলের চরম গ্র“পিংকে দায়ী করেছেন অনেকে। এ অবস্থা থেকে দ্রুত উত্তোরণের দাবি জানিয়েছেন তারা। তবে গ্র“পিং-এর বিষয়টি অস্বীকার করেছেন জেলা সভাপতি ও সম্পাদক। জানা যায়, গত ৩ বছর পূর্বে মৌখিকভাবে টেকনাফ ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের মাঠ পর্যায়ে কাজ করার জন্য একটি অঘোষিতভাবে কমিটি প্রস্তুত করতে ঘোষণা করেছিল। উক্ত নামদারী কমিটিতে হাশেম ও জাহেদ স্থান পায়।  পরবর্তীতে তাদের নেতৃত্বে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার কথা থাকলেও তা আর সম্ভব হয়ে উঠেনি বলে জানায় সংশ্লিষ্টরা। কমিটি গঠনের পর ঝিমিয়ে পড়া কলেজ ছাত্রদল গা-ঝাঁড়া দিয়ে উঠার চেষ্টা করে। কিন্তু কমিটি গঠনের ৩ বছরের মাথায়   হাশেম ও জাহেদের শিা জীবন শেষ হয়। বর্তমানে তিনি বিয়ে করে সংসার করার পাশাপাশি বেসরকারী বিদ্যালয়ে শিক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এদিকে মোঃ হাশেম সৌদি আরব প্রবাসীর স্ত্রী এক সন্তানের জননীকে পরকীয়ার ফাঁদে ফেলে বিয়ে করে বর্তমানে শাহপরীরদ্বীপ শাশুড় বাড়িতে অবস্থান করছে। সে দীর্ঘ এক বছর যাবত কলেজে অনুপস্থিত রয়েছে এবং জাহেদ টেকনাফ ডিগ্রী কলেজে ভর্তি নাই। সে দীর্ঘদিন যাবত কক্সবাজার ও চট্টগ্রামে ভাড়াবাসা নিয়ে সেখানে থাকে। জাহেদ ও হাশেম দেদারছে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে নামদারী ছাত্রদলের আহবায়ক ও যুগ্ন আহবায়ক। এছাড়া জাহেদের ভাই আজিমুল্লাহ ও কাজল গ্র“পের একজন সক্রিয় কর্মী। তারা ২জন শাহপরীরদ্বীপ ও কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম থাকে। বর্তমানে দলকে সুসংঘঠিত করার জন্য সাধারণ কর্মী চেস্টা করলে তাতে বাধা দেয়।
টেকনাফ পৌর ছাত্রদলের প্রভাবশালী সদস্য মাহবুবুর রহমান বলেন- অছাত্র ও দালাল, চাদাঁবাজ বিবাহিতদের দিয়ে ছাত্রদলের কমিটি গঠন করা হলে তা মেনে নেওয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে দূর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। নতুন প্রজম্ম দায়িত্ব নিতে আসা দের সুযোগ দেওয়ার জন্য আলহাজ্ব শাহজাহান চৌধুরীর সুদৃষ্টি কামনা করছি। পৌর ছাত্রদলের যুগ্নআহবায়ক আব্দুল্লাহ আল মামুন- বিগত ৩ বছর আগে সাবেক সংসদ শাহজাহান চৌধুরী
টেকনাফ ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলকে সুসংঘঠিত করার জন্য নির্দেশনায় কাজ করা হলে এক মহলের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য
হাশেম ও জাহেদ কাজ করেছে বলে জানিয়েছেন ছাত্রদল কর্মীরা। ফলে কলেজ ছাত্রদলে কর্মকান্ড ঝিমিয়ে পড়েছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে কলেজে নেতৃত্বের সংকট দেখা দিতে পারে বলে শংকা প্রকাশ করেছেন পদ প্রত্যাশী অনেকে।
শিা জীবন শেষ হওয়ায় দলের নেতাকর্মীরা নতুন কমিটি গঠনের দাবি জানালেও তা আমলে নিচ্ছেনা জেলা ছাত্রদল।
এতে কলেজ ভিত্তিক নেতাকর্মীরা হতাশায় ভূগছেন বলে জানিয়েছেন দায়িত্বশীল সূত্র। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কলেজের অনেক নেতারা জানিয়েছেন কলেজে ছাত্রদলকে নেতৃত্ব শুন্য করতে নতুন কমিটি করা হচ্ছে না। তাছাড়া অন্যন্য দলের নেতাদের সাথে রাখতে একটি প কলেজ ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে তালবাহানা করছে বলেও অভিযোগ তাদের। কলেজ ছাত্রদলের দায়ীত্বশীল অনেকের সাথে কথা বলে জানা যায়, দিবস ভিত্তিক সভা সমাবেশ অনুষ্টিত হলেও হাশেম ও জাহেদকে দেখা যায়না। তাদের মতে জিয়ার আদের্শে গঠিত ছাত্রদল টেকনাফে অদৃশ্য হয়ে যাচ্ছে। দু’জনের শিা জীবন শেষ হলেও কেন উক্ত কমিটি বহাল রেখেছে তা তাদের বোধগম্য নয় বলে মত দিয়েছেন তারা। তবে অনেকে আবার এ অবস্থার জন্য জেলা ছাত্রদলকে দায়ী করেছে।জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ছৈয়দ আহমদ উজ্জল জানিয়েছেন কলেজসহ বিভিন্ন কমিটি গঠন নিয়ে কেন্দ্রীয়ভাবে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশ পেলে আমরা দ্রুত কমিটি গঠনের চিন্তা করব। নাম প্রকাশ না করার শর্তে জেলা ছাত্রদলের নেতা কর্মীরা জানিয়েছেন জেলা ছাত্রদলের গ্র“পিং এর কারণে কলেজে নতুন নেতৃত্ব আসার সুযোগ পাচ্ছে না। এতে কলেজে ছাত্রদলের কর্মকান্ড আবারো ঝিমিয়ে পড়ছে বলে দাবি করেছেন তারা। এ অবস্থায় সরকার বিরোধী আন্দোলন সংগ্রম করতে দ্রুত কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছেন তারা। তাদের দাবি ছাত্রদলের নেতারা টেকনাফে সংগঠনের চেয়ে ব্যক্তিকে বেশি প্রধান্য দিচ্ছে।
এ প্রসঙ্গে মোঃ হাশেম বক্তব্য নিতে তার ব্যবহৃত মুঠোফোনে বার বার কল করা হলেও ফোন রিসিভ না করায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। তবে জাহেদ দাবী করেছেন Ñ এসম্পর্কে জেলা কমিটি বরাবর অবগত করা আছে। কার কাছে জানতে চাইলে আছে আর কি। জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সৈয়দ আহমদ উজ্জল গ্র“পিং এর বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, উখিয়া -টেকনাফ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব শাহজাহান চৌধুরী’র সাথে আলোচনা করে শীঘ্রই কলেজ কমিটি গঠন করা হবে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT