টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের হাল ধরবেন কে?

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১২
  • ১৩৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

নুর হাকিম আনোয়ার,টেকনাফ…অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছে টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগ। সময়ের সাহসী সন্তান বর্তমান টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নুরুল আলম চেয়ারম্যান। আর ছাত্রলীগের সভাপতি হতে ইচ্ছে করছেনা। সংশ্লিষ্টদের মতে, দীর্ঘদিন ৮ বছর যাবত টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নুরুল আলম দায়িত্ব পালন করছিল। তিনি চেয়ারম্যান হওয়ার ছাত্রলীগের পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন এমন আবাস শুনা যাচ্ছে। এখন নেতৃবৃন্দের মধ্যে প্রশ্ন আসছে এখন কারা ধরবেন টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের হাল? দলীয় সূত্র মতে, ছাত্রজীবন থেকেই নুরুল আলম ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় তিনি ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। টেকনাফ উপজেলার ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব¡ পালন করেন। প্রসঙ্গত, উপজেলা ছাত্রলীগে দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী টেকনাফ দ্বীপ প্লাজায় সামনে দলের কাউন্সিলে সভাপতি নুরুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক শাহাব উদ্দীনের নাম ঘোষণা করা হয়। শাহাব উদ্দীনের মৃত্যুতে ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক দায়িত্ব পালন করেন ফরিদুল আলম জুয়েল। পরবর্তীতে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। ফলে সেই থেকে কমিটি ওই অবস্থায় রয়ে গেছে। তবে দলীয় সূত্রে জানা যায়,জেলা থেকে টেকনাফ উপজেলা  কমিটি গঠনের কথা ভাবা হচ্ছে কাউন্সিলের মাধ্যমে। অন্যথায় এ নিয়ে নানা কোন্দলের সৃষ্টি হতে পারে। তাই আগামী ১৮ নভেম্বর টেকনাফ দ্বীপ প্লাজায় টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন। এ ব্যাপারে দলীয় সূত্রে আরো জানা যায়,কারা দায়িত্ব নিয়ে আসছেন ছাত্রলীগের ? কারা হাল ধরছেন ছাত্রলীগের? সে অপেক্ষায় এখন টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের ওয়ার্ড,ইউনিট শাখার নেতৃবৃন্দরা।এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান নুরুল আলম জানান,আমাদের চেষ্টা থাকবে সারা দেশের মতো টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগে মেধাবী ও যোগ্য নেতৃত্ব উপহার দিতে। প্রবীণ ছাত্রনেতাদের মতে,টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগে মূলত নুরুল আলম ছিল একচ্ছত্র আধিপত্য।তার নেতৃত্বেই চলতো সাংগঠনিক কার্যক্রম। তিনি দলের শুধু নেতৃত্ব নিতেন না। প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতাও করতেন। তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সাথেও রাখতেন নিয়মিত যোগাযোগ। বিভিন্ন সমাবেশ সফল করার জন্য শুধু থানা নয়, ইউনিয়ন পর্যায়েও সহযোগিতা করতেন নুরুল আলম। সমাবেশসহ সাংগঠনিক কর্মসূচির বিপুল অংকের ব্যয়ভারও বহন করতেন তিনি নিজে। কিন্তু এ পরিস্থিতিতে সবকিছু সামাল দেওয়ার মতো মানসিকতা ও সাহস আছে এমন নেতা টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগে নেই বললেই চলে। বর্তমানে টেকনাফ উপজেলার দায়িত্ব নিতে দলীয় পর্যায়ের প্রভাবশালী তেমন কোনো ছাত্রনেতা নেই।তবে বর্তমান জেলা কমিটিতে স্থান করে নিয়েছেন নিজ মেধা ও যোগ্যতায়, নাছির সিকদার,আবুল কালাম,মনিরুল ইসলাম,তারেক মাহমুদ রনি ,সরওয়ার আলম, অপেক্ষাকৃত তরুণ ও মেধাবী ওই সব নেতাকে নিয়েও চলছে এখন আলোচনা। কেউ কেউ মনে করেন দলের প্রয়োজনে তারাই নেতৃত্ব দিতে পারেন।এতে দল উপকৃত হবে। তারা মনে করেন, এমন  ছাত্রনেতা গড়ে উঠতে সময়ের প্রয়োজন হবে। তাই তরুণ ও মেধাবীদের সুযোগ দেওয়া প্রয়োজন। অন্যথায় নেতৃত্ব শূন্যতার সুযোগটি কাজে লাগাবে জামায়াত-বিএনপি জোটের শরিকরা। জানা গেছে, বর্তমানে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল আলম জুয়েল,নাছির সিকদার,শিমুল মাহমুদ, টেকনাফ সদরের  নুরুল আমিন চেষ্টা তদবির (লবিং) করছেন সভাপতি পদের জন্য। তবে একাধিক জেলা নেতাদের কাছে দলের নাছির সিকদার ইতোমধ্যে সভাপতি করার ইঙ্গিত দিয়েছেন বলেও জানা গেছে। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পাওয়ার চেষ্টা করছেন একাধিক নেতা। এদের মধ্যে যাদের নাম বেশি আলোচিত হচ্ছেন তারা হলেন, জাফর আলম সবুজ, জাহাঙ্গীর আলম,সরওয়ার আলম, সাইফুল ইসলাম,নুরুল আবছারের নাম শুনা যাচ্ছে। উপজেলা ছাত্রলীগের আরেক নেতা মাহবুবুল আলম প্রতিবেদককে এ প্রসঙ্গে বলেন, চেয়ারম্যান নুরুল আলম ভাইয়ের যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা পূরণ করা পুরোপুরি সম্ভব নয়। তাই আমরা সম্মেলনের মাধ্যামে কমিটি গঠন করে দলকে চাঙ্গা করা দরকার। এরপর পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হলে দলীয় কাঠামো শক্ত হবে।’ তবে দীর্ঘ বছর ৮ বছর পর অনুষ্ঠেয় ওই সম্মেলনকে ঘিরে কাউন্সিলরদের মধ্যে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা গেছে। এছাড়া সম্মেলন বাস্তবায়ন করতে গিয়ে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিট ও শাখার নেতা-কর্মী-সমর্থক ও শুভাকাঙ্খিদের মাঝে সাজ সাজ রব উঠেছে। আগামী জাতীয় নির্বাচনসহ অনিবার্য বিভিন্ন ইস্যূকে সামনে রেখে ক্ষমতাসীন দলের এ অঙ্গসংগঠনের আগামী নেতৃত্বে কারা আসছেন তা নিয়ে উপজেলাবাসী অধীর আগ্রাগে প্রহর গুনছে। ‘উষার দুয়ারে হানিয়া আঘাত/আমরা আনিব রাঙ্গা প্রভাত’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে অনুষ্টিতব্য সম্মেলন ও কাউন্সিল সফল করতে উপজেলা ছাত্রলীগ ইতিমধ্যে দু’তৃতীয়াংশ প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। আগামী ২/১ দিনের মধ্যে তাদের পূর্ণপ্রস্তুতি শেষ হবে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।এতে উপজেলা ছাত্রলীগ সম্পাদক ফরিদুল আলম জুয়েল জানান, আগামী ১৮ নভেম্বর বিকাল ৩টায় পৌর এলাকার দ্বীপ প্লাজা প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলন ও কাউন্সিলে স্থানীয় সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি প্রধান অতিথি উপস্থিত থাকবেন বলে সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। উপজেলা সভাপতি নুরুল আলম চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিতব্য ওই সম্মেলন ও কাউন্সিলে জেলা সভাপতি আলী আহমদ উদ্বোধক এবং জেলা সম্পাদক আবু তাহের আজাদ প্রধান বক্তার ভাষণ দিবেন। এতে উপজেলা আ’লীগ সভাপতি জাফর আলম চৌধুরী, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শফিক মিয়া, ভাইস-চেয়ারম্যান এইচএম ইউনুচ বাঙ্গালী, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান মিছবাহার ইউছুফ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

এদিকে কাউন্সিলকে সামনে রেখে ইতিমধ্যে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌঁড়-ঝাঁপ শুরু হয়েছে। কাউন্সিলরদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে প্রার্থীরা। তবে কে কোন পদে নির্বাচন করছেন তা এখনো খোলে বলেনি। প্যানেলভূক্ত হয়েও কেউ এখানো পর্যন্ত কাউন্সিলরদের মাঝে আসেননি বলে একান্ত  আলাপচারিতায় কয়েকজন কাউন্সিলর জানান। তাঁদের মতে, সম্ভবত: আর ২/১ দিনের মধ্যে প্যানেলভূক্ত হয়ে অনেকে আসতে পারেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর জানান, বর্তমানে দু’টি গ্রুপে বিভক্ত ছাত্রলীগ এ নিয়ে সংশয় দেখা গেছে।


সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

৩ responses to “টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের হাল ধরবেন কে?”

  1. rajib says:

    Ai sanbadik beda ki liksey agolo. Bhol r Bhol. ai abar kivabey sangbadik hoy. kon patrika sampadak amon sanbadik niog dei. sala sampadak o osikkit money hoi. newser line, bhasa, chanda, kisoi bojbar noi. jemon…..দীর্ঘদিন ৮ বছর যাবত!
    তিনি চেয়ারম্যান হওয়ার ছাত্রলীগের পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন এমন আবাস শুনা যাচ্ছে। howar..
    এখন নেতৃবৃন্দের মধ্যে প্রশ্ন আসছে এখন কারা ধরবেন টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের হাল? Akon 2 time. Avabey Anek bhol to aseyi Imformation o tik nai. So, Amon Sanbadiker news leka prokash tekeye birorto takon. bad sanbadik….

  2. alammahmud says:

    They are not journalists .They are Sangaatik!

  3. Mohammad rana says:

    Ha tik e ..asa kori next teke r ei rokom vol hobe na hoi2..TEKNAF ER SATRO LIG ER MODDE EKTA VALO GON DEKA JAI SETA HOSSE TEKNAF A AKN O PROJJONTO KONO MARAMARI HOI NAI..JA PRESENT CHEIRMEN ALAM VAI ER OBODAN..TEKNAF ER SATRO LIG RA AKON O KONO DORONER ONNAI KAJ KORE NAI AMAR JANA MOTO..ASHA KORI NEXT JE ASBEN SE O AGER SONAM TA DORE RAKAR SESTA KORBEN …JATE AMRA GORBO KORE BOLTE PARI TEKNAF ER POLITICS A AKON O KONO DAG LAGE NAI…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT