টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

টেকনাফে মালয়েশিয়া আদম পাচার থেমে নেই, রাগবোয়ালরা ধরা ছোঁয়ার বাইরেঃ এবার যাওয়ার প্রস্তুতিকালে আটক-১৮ : ১ দালালের বিরুদ্ধে মামলা

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১৫২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

Teknaf pic (A)-04-09-2013 জসিম উদ্দিন টিপু, টেকনাফ ::::টেকনাফে মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রস্তুতিকালে ১৮ বাংলাদেশী নাগরিককে আটক করেছে বিজিবি। ১ দালালের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বিজিবি। তবে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অবস্থানরত দালাল চক্রের রাগবোয়ালরা ঠিকই ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়েছে। অনেক রথি মহারথিদের ব্যাপারে কোন প্রকার আইনী ব্যবস্থা না হওয়ায় দিন ছোট দালালের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে সচেতন মহল মনে করছে। এদিকে মালয়েশিয়াগামী ব্যক্তিদেরকে তাদের পরিবারের নিকট হস্তান্তরের নিমিত্তে টেকনাফ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে এবং পলাতক দালালচক্রের সদস্যের বিরুদ্ধে মানব পাচারের সহায়তাকারী হিসেবে মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে টেকনাফ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে যার মামলা নং-০৪ তারিখ ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৩। সুত্রে জানাগেছে, ৩ সেপ্টেম্বর রাত ৮টায় হ্নীলা দমদমিয়া বিজিবি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হাবিলদার মো: আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে মোচনী এলাকায় অভিযান চালিয়ে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং উনচিপ্রাং এলাকার আশরাফ জামানের পুত্র মো: ইমরান (১৯), নাজির হোসনের পুত্র মো: নুর ইসলাম (১৯), নুরুল বশরের পুত্র মো: নুরুল আলম (২০), মো: জাকির হোসেনের পুত্র মো: খাইরুল বশর (১৮), টেকনাফ পৌরসভা এলাকার নাইট্যংপাড়া গ্রামের মো: মোজাম্মেলের পুত্র মো: সোহেল (১৮), সুলতান আহমদের পুত্র ওবাইদুল হক (২০), রামু গর্জনিয়া এলাকার আবুল হাসেমের পুত্র নুরুল আফসার (২২), ঈদগাঁও এলাকার কামাল হোসনের পুত্র মো: আবুল হোসন (১৯), হ্নীলার নয়াপাড়া গ্রামের ইউসুফ আলীর পুত্র মো: আহম্মেদ (১৯), টেকনাফের শাপলাপুর বাইন্যাপাড়া এলাকার নুর মোহাম্মদের পুত্র মো: হামিদুল্লাহ (২২), উখিয়ার পালংখালী গ্রামের মো: আশরাফ মিয়ার পুত্র মো: নাজিমুদ্দিন (৩০), কুতুপালং এলাকার অছিয়র রহমানের পুত্র মো: তপুর মিয়া (২৫), হ্নীলার নাইক্ষ্যংখালী গ্রামের মৃত ইসলাম মিয়ার পুত্র মো: আলম (২১), বান্দরবনের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার চাকতালা নতুন পাড়া গ্রামের হোসেন আলীর পুত্র মো: আলীম শেখ (২১), চট্টগ্রামের লোহাগাড়া থানার ভাবানীপুর বড় হাতিয়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের পুত্র মো: আব্দুর রহিম (৩৪), সাতকানিয়া বাজালিয়া গ্রামের মৃত পরেন্দ্র কর্মকারের পুত্র রুপন কর্মকার (৩২), সিলেটের কানাইঘাট ঝিংগাবাড়ী এলাকার আব্দুল মালেকের পুত্র মো: নাজিম (২২), গোবাইল ঘাট বৌ বাড়ী এলাকার চারগ্রামের মো: জামসেদ আলীর পুত্র মো: আনোয়ার হোসেন (২০) সহ মোট ১৮ জন বাংলাদেশী নাগরিককে আটক করা হয়। আটকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে হ্নীলার নয়াপাড়া এলাকার চিহ্নিত মালয়েশিয়ার দালাল মো: ফয়েজ আহম্মেদের নাম বেরিয়ে আসে। সে ঐ এলাকার মো: আব্দুর রহমানের পুত্র বলে জানাগেছে। উক্ত এলাকায় ফয়েজ আহমদের নেতৃত্বে বিশাল একটি সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন মালয়েশিয়ার আদম পাচার করে যাচ্ছে। প্রশাসনের নাকের ডগায় এ সিন্ডিকেটের আদম পাচার থেমে নেই। এলাকার অনেক যুবক তাদের ফাঁদে পড়ে মালয়েশিয়া যাওয়ার লোভে পড়ে অনেকে এখন মিয়ানমার ও থাইল্যান্ডের কারাগারে বন্দি জীবন-যাপন করছে। এদের পাতানো প্রতারাণায় অনেক মানুষ এখন সর্বহারা। এলাকাবাসী জরুরী ভিত্তিতে শুধু ফয়েজ আহমদ নই হ্নীলার লেদা, মোচনী সহ বিভিন্ন এলাকায় বসবাসরত দালাল চক্রের রাগবোয়ালদের অতি শ্রীঘ্রই আটক করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি প্রদানের মাধ্যমে অবৈধ মানব পাচার রোধে কার্য্যকরী পদক্ষেপ নিতে সরকারের দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন। #####

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT