টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

টেকনাফে পানি উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে ৫ কিলোমিটার ভগ্ন বেড়ীবাঁধ সংস্কারের ১২ ল টাকা বরাদ্ধঃ শিগ্রি কাজ শুরু হবে

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৩০ আগস্ট, ২০১৩
  • ১৭৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

নুর হাকিম আনোয়ার,টেকনাফ :::কক্সবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) ২০১৩-২০১৪ অর্থ বছরে টেকনাফ সীমান্ত উপজেলার নাফ-নদীর উপকূলীয় এলাকার ৫ কিলোমিটার বেড়ীবাঁধ ব্লকদ্বারা নির্মান, সংস্কার ও উচ্চত করনের জন্য ১২ কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নিয়েছে। কক্সবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। তথ্য মতে চলতি বছরের সেপ্টম্বর মাসে টেকনাফ সীমান্ত উপজেলার হোয়াইক্যং ৬৭ নং পোল্ডারের ১ কিলোমিটার বেড়ীবাঁধ সংস্কার, ৬৮ নং পোল্ডারের টেকনাফ পৌর এলাকার কায়ুকখালী খালের নাফ নদীর মোহনা হতে ১ কিলোমিটার ব্লকদ্বারা বেড়ীবাঁধ নির্মান এবং উত্তর জালিয়া পাড়া থেকে শাহপরীরদ্বীপের ঘোলার পাড়া পর্যন্ত পৃথক পৃথক ভাংগন বেড়ীবাঁধ দ্বারা বাঁধ মেরামত ও উচ্চ করন। উক্ত প্রকল্পের আওতায় কক্সবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) ১২ কোটি টাকা বরাদ্ধ দিয়েছে। শিগ্রি এ কাজ শুরু হবে বলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের টেকনাফের সংশ্লিষ্ট দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তা মোঃ গিয়াস উদ্দীন জানান। তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রেেিত পানির উচ্চতা বৃদ্ধি এবং তোড়ের কারনে টেকনাফের উপকূল রাকারী মান্ধাত্বার আমলের বেড়ীবাঁধ রা করা যাচ্ছেনা। অভিজ্ঞ মহলের মতে টেকসই বেড়ীবাঁধ নির্মান এবং উপকূলীয় এলাকায় সবুজ বনায়ন আরো জোরদার করা হলে টেকনাফ সীমান্ত উপকূলীয় এলাকা নাফ-নদী ও সমূদ্রের ভাংগন থেকে রেহায় পাবে। পরিবেশবাদীদের মতে টেকনাফ সীমান্ত উপজেলার নাফ-নদীও বঙ্গোপসাগর উপকূলীয় এলাকার প্যারাবন নিধন করে চিঙড়ীঘের করার কারনেই উপকূল রাকারী বেড়ীবাঁধ জোয়ারের তোড় ও তরঙ্গের আঘাতে বেড়ীবাঁধ ভাঙগনের একমাত্র কারন এবং বেড়ী বাঁধের অব্যাহত ভাঙগনের হাত থেকে রা পেতে হলে বিস্তীর্ন উপকূলীয় এলাকায় সবুজ বনায়নের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। এমন পরামর্শ দিলেন পরিবেশবাদীরা। টেকনাফ ৬ ইউনিয়নের মধ্যে হোয়াইক্যং, হ্নীলা, টেকনাফ সদর, সাবরাং ও টেকনাফ পৌর এলাকা নাফ-নদী ও সাগরের ভাংগনে ঝূঁকির মধ্যে রয়েছে। উল্লেখ্য, সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীরদ্বীপ সাগরের ভাংগনের কবলে পড়ে আজ সড়ক যোগাযোগ একেবারে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। সেখানে ৫টি পাড়ায় সাগরের জোয়ার ভাটা চলছে। প্রায় ২০ হাজার মানুষ আজ সাগরের পানি বন্ধীতে মানবেতর জীবন যাপন করে আসছে। তাদের আর্তনাদের আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে।  ######

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT