টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
হ্নীলার বিশিষ্ট সমাজসেবক মৌলভী ফরিদ আহমদ আর নেই, বাদে আছর জানাযা রোহিঙ্গার ঘরে মিলল ৫৭ লাখ দেশি-বিদেশি টাকা ও ৭০ ভরি সোনা রোহিঙ্গারা কন্যাশিশুদের বোঝা মনে করে অধিকতর বন্যার ঝূঁকিপূর্ণ জেলা হচ্ছে কক্সবাজার টেকনাফে মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে ৩০ পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমি ও ঘর হস্তান্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বারদের দায়িত্ব নিয়ে ডিসিদের চিঠি আগামীকাল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন (তালিকা) বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান টেকনাফ উপজেলা কমিটি গঠিত: সভাপতি, সালাম: সা: সম্পাদক: ইসমাইল আজ বিশ্ব শরণার্থী দিবস মিয়ানমারে ফেরা নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় রোহিঙ্গারা ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান বন্ধের সিদ্ধান্ত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

টেকনাফে জাতীয় পরিচয় পত্র পাওয়া অভিযুক্ত রোহিঙ্গা তালিকায় জনপ্রতিনিধি !

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ৫ আগস্ট, ২০১৩
  • ১৫৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

কাইছার পারভেজ চৌধুরী, টেকনাফ::::01 (163)টেকনাফে জাতীয় পরিচয় পত্রে অন্তর্ভূক্ত হয়ে পড়া অভিযুক্ত রোহিঙ্গাদের তালিকায় রয়েছেন স্থানীয় এক জনপ্রতিনিধিও। এ নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে ব্যাপক তোলপাড়। জানা যায়, গতকাল ৪ আগস্ট টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন অফিসে জাতীয় পরিচয় পাওয়া অভিযুক্ত ৬৩ রোহিঙ্গার শুনানীর ধার্য্য তারিখ ছিল। এই অভিযুক্ত তালিকায় ছিলেন টেকনাফ সদর ইউপি সদস্য খুরশিদা বেগম। তিনি এদিন শুনানীতে উপস্থিত হয়ে জাতীয়তার স্বপক্ষে প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র প্রদান করেন। নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, এদিন অভিযুক্ত আরো ১৫ ব্যক্তি তাদের তথ্য প্রমানাদি শুনানীতে উপস্থাপন করেন। অভিযুক্ত ৬৩ ব্যক্তির মধ্যে পূর্বে ৩৫ ব্যক্তি তথ্য প্রদান করেন। তবে আরো ১৩ ব্যক্তি শুনানীতে উপস্থিত হননি। তাদেরকে পরবর্তীতে আবারো নোটিশ প্রদান করা হবে বলে নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে। উল্লেখ্য গত ২০০৮ সালে তত্বাবধায়ক সরকারের সময় তৈরী জাতীয় পরিচয় পত্র ও পরবর্তীতে ২০১১ সালে হালনাগাদের সময় কিছু সংখ্যক মিয়ানমারের রোহিঙ্গা কৌশলে অন্তর্ভূক্ত হয়ে পড়ে। রোহিঙ্গা প্রতিরোধ কমিটি উক্ত রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয় পত্র বাতিলের জন্য গত বছরের শুরুতে নির্বাচন কমিশন বরাবরে লিখিত আবেদন জানায়। এ প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন ৪ আগস্ট অর্ন্তভূক্ত উক্ত ৬৩ ব্যক্তিকে উপজেলা নির্বাচন অফিসে তাদের নাগরিকতার স্বপক্ষে প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রসহ উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দেয়। এ ঘটনায় অভিযুক্তরা জাতীয় পরিচয় পত্র বাতিলের আশংকায় ক্ষিপ্ত হয়ে রোহিঙ্গা প্রতিরোধ কমিটির নেতা-কর্মীদের উপর হামলা চালাতে পারে এমন আশংকায় জেলা পুলিশ সুপারসহ সংর্শ্লিষ্ট সরকারী দপ্তরে নিরাপত্তার জন্য আবেদন জানিয়েছিল। এদিকে রোহিঙ্গা প্রতিরোধ কমিটির নেতৃবৃন্দ জানান, এদিন অভিযুক্ত রোহিঙ্গা ও তাদের স্থানীয় সহযোগীরা নির্বাচন অফিসে প্রতিরোধ কমিটির নেতৃবৃন্দের উপর হামলার চেষ্ঠা করে। এসময় কোস্টগার্ড টেকনাফ স্টেশন কমান্ডার লে. মামুন শুনানী স্থলে উপস্থিত হলে তাঁরা সটকে পড়ে। এছাড়া নেতৃবৃন্দ আরো জানান, শুনানীতে অভিযুক্তরা তাদের স্বপক্ষে যে ধরনের তথ্য-দলিলাদি প্রদান করেছে তার সবগুলোই অসম্পূর্ন ও অগ্রহনযোগ্য। এ ব্যাপারে নির্বাচন অফিসের সর্তকতার প্রয়োজন রয়েছে বলে জানান তাঁরা। অপরদিকে অভিযুক্ত জনপ্রতিনিধি খুরশিদার ব্যাপারে রোহিঙ্গা প্রতিরোধ কমিটি জানান, ১৯৭৮ সালের পরে মিয়ানমার থেকে খুরশিদার পিতা স্বপরিবারে টেকনাফের কেরুনতলীতে এসে বসবাস শুরু করে। ২০০১ সালে খুরশিদার পিতা মিয়ানমার আরএসও নেতা মৃত লোকমান হাকিমকে টেকনাফ থানা পুলিশ জঙ্গী কর্মকান্ডের অভিযোগে আটক ও জেলে প্রেরন করেছিল।
এব্যাপারে খুরশিদা বেগমের বক্তব্যের জন্য তার মোবাইলে (০১৮১৮-৬২৭০১৬) যোগাযোগ করা হলে এক ব্যক্তি ফোন রিসিভ করেন। তবে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে পরে কথা বলবেন বলে ফোনের লাইন কেটে দেন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT