হটলাইন

01787-652629

E-mail: teknafnews@gmail.com

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফপ্রচ্ছদ

টেকনাফে আন্তর্জাতিক মাদক বিরোধী ও আলোচনা সভায় :কামাল হোসেন

নুরুল হোসাইন,টেকনাফ:
টেকনাফে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস ২৬ জুন উপলক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে গত ২৬ জুন-১৯ বুধবার সকাল ১০ টায় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে মাদক বিরোধী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রবিউল হাসানের সভাপতিত্বে টেকনাফ সরকারী কলেজের সহকারী অধ্যাপক সন্তোষ কুমার শীলের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখলেন, বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃশাজাহান আলী।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন,কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

সভায় বক্তব্য রাখেন,টেকনাফ ২- ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে.কর্ণেল ফয়সল হাসান খান,জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আদিবুল ইসলাম,উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী,উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম,পৌর মেয়র হাজী মোঃ ইসলাম,টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রদীপ কুমার দাস, জেলা মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সোমেন মন্ডল প্রমুখ।
সভায় উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব শফিক মিয়া,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মৌঃ ফৈরদোস আহাম্মদ জমেরী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাহেরা আক্তার মিলি, কোস্ট গার্ডের প্রতিনিধি, উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ,উপজেলা যুবলীগ ও পৌর আওয়ামীলীগ,উপজেলা সকল প্রশাসন, শিক্ষক,সাংবাদিক, কমিউনিটি পুলিশিংয়ের নেতৃবৃন্দ, মাদক প্রতিরোধ কমিঠির নেতৃবৃন্দ, যুবলীগের নেতৃবৃন্দ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ ও সুজিল সমাজের নেতৃবৃন্দ, স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী ও নেতা কর্মীরা।

প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন বলেন,মাদক খারাপ জিনিস। মাদক কোন দিন ভাল হতে পারে না। কক্সবাজার জেলায় ২৮ লক্ষ জনগনই রয়েছে। তারমধ্যে ১ লক্ষ মানুষ মাদক ব্যবসায় জরিত। ১ লক্ষ মানুষের জন্য ২৭ লক্ষ মানুষ কষ্ঠ পাবে কেন! এ মাদক ব্যবসায়ী ১লক্ষ মানুষ কে ছিন্ন বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে। এদেশে টেকনাফের দূর্ণাম বেশী হয়েগেছে। এ দূর্ণাম আর ছায় না। টেকনাফ কে মাদক মুক্ত চাই। মাদক মুক্ত করে টেকনাফে স্বীকৃতি চাই। মাথা উচু করে আমরা যেন এদেশে কথা বলতে পারি। টেকনাফে কোন মাদক ব্যবসায়ী থাকতে পারবে না। হয় মাদক ছাঁড়েন, আর না হয় টেকনাফ ছাঁড়েন। প্রত্যেক মাদক ব্যবসায়ীদের ভাল হয়ে যেতে হবে। কেউ বাঁচানোর সুযোগ পাবেন না।

বিভিন্ন বক্তারা আরো বলেন,জনগণই প্রতিরোধ ও সু-নির্দ্দিষ্ঠ তথ্যের মাধ্যমে টেকনাফ কে মাদক মুক্ত করতে হবে। যারা মাদক ব্যবসায়ী তারা কোন ছাঁড় পাবেনা। যদি বাঁচতে চান তাহলে মাদক থেকে দূরে থাকুন, মাদককে ঘৃনা করুন। সমাজ থেকে বয়কট করুন। নইলে কারো পরিণতি ভাল হবে না। যারা মাদক ব্যবসায়ী তাদের প্রকাশ্যে ধরিয়ে দিন। থানায় সোপর্দ করুন। হারাম কাজ করবো না। আগামীতে মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক ভাবে প্রতিরোধ করা হবে।

বক্তারা আরো বলেন, ১৯৯৭ সাল থেকে মাদক ব্যবসা শুরু হয়েছিলো। তখন মিয়ানমান থেকে বস্তা বস্তা মাদক আসতো। এ মাদক সারা দেশে জড়িয়ে গেছে। এদেশের যুব সমাজ ধ্বংশ হয়েগেছে। হাজার হাজার পরিবারের পিতা মাতাকে হারাতে হয়েছে।
বক্তারা আরো বলেন উপজেলার সকল প্রশাসন এক যোগে কাজ করে থাকলে মাদক বন্ধ হয়ে যাবে। আর কোন দিন টেকনাফে মাদক ঢুকবেনা।
টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, আমার জেল হউক আর আমার ফাঁসি হউক না কেন, আমি টেকনাফে মাদক নির্মূল করে ছাড়ঁবোই। কোন মাদক ব্যবসায়ীকে ছাঁড় দেবো না। এটাই আমার শেষ কথা।
পরিশেষে মাদকের বিরোদ্ধে শপথ পাঠ করান জেলা প্রশাসক।

Leave a Response

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.